গাঁজা-মাইক্রোবাসসহ মাদক চোরাকারবারি গ্রেফতার



Tabassum Tanjim
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীর খিলক্ষেত থানায় গাঁজা ও মাইক্রোবাসসহ এক মাদক চোরাকারবারিকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। গ্রেফতারকৃতের নাম- মো. মনির হোসেন ভূইয়া। এসময় থেকে ১২ কেজি গাঁজা ও একটি মাইক্রোবাস জব্দ করা হয়।

মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ১০ টায় খিলক্ষেত থানার কুড়িল তিনশত ফিট এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মিরপুর বিভাগের সংঘবদ্ধ অপরাধ, গাড়ি চুরি প্রতিরোধ ও উদ্ধার টিমের সহকারী পুলিশ কমিশনার সালাউদ্দিন খান নাদিম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়, এক মাদক চোরাকারবারি মাইক্রোবাসে গাঁজা বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে খিলক্ষেত থানার কুড়িল তিনশত ফিট রোডের সুমি টাইলস এন্ড স্যানেটারী দোকানের সামনে অবস্থান করছেন।

প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে ওই স্থানে অভিযান চালিয়ে গাঁজা ও মাইক্রোবাসসহ মনিরকে গ্রেফতার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা হতে গাঁজা সংগ্রহ করে ঢাকা শহরসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় পাইকারি ও খুচরা বিক্রয় করতো।

 

      

মোংলায় চিংড়ি ঘেরে গ্যাসের উদগীরণ, সংযোগ লাগিয়ে রান্নাবান্না



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, বাগেরহাট
মোংলায় চিংড়ি ঘেরে গ্যাসের উদগীরণ, সংযোগ লাগিয়ে রান্নাবান্না

মোংলায় চিংড়ি ঘেরে গ্যাসের উদগীরণ, সংযোগ লাগিয়ে রান্নাবান্না

  • Font increase
  • Font Decrease

 

মোংলায় একটি চিংড়ি ঘের থেকে সপ্তাহখানেক ধরে এক ধরণের গ্যাসের প্রচন্ড উদগীরণ হচ্ছে। ঘেরটির বিভিন্ন জায়গা থেকে পানির ঊর্ধ্বমুখী গ্যাসের এ উদগীরণ দেখতে প্রতিদিন বহু লোকজন সেখানে ভিড় জমাচ্ছেন। এ নিয়ে স্থানীয়দের মাঝে আনন্দ ও কৌতুল থাকলেও রয়েছে দুর্ঘটনার ভীতিও। এদিকে ঘের মালিক সেই গ্যাস দিয়ে কয়েকদিন ধরে রান্নাবান্নার কাজও করছেন।

উপজেলার মিঠাখালী ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের মিঠাখালীর পূর্বপাড়া এলাকার বাসিন্দা দেলোয়ার শেখের (৩৫) পৌনে তিন বিঘার চিংড়ি ঘেরের মাটির নিচ থেকে এ প্রাকৃতিক গ্যাসের উদগীরণ ঘটছে। গত সপ্তাহখানেক ধরে গ্যাসের উদগীরণ ক্রমেই বাড়ছে। ঘেরটিট ৪টি জায়গা থেকে প্রতিনিয়ত উঠছে এ গ্যাস। যদিও এ গ্যাস উদগীরণ হয়ে আসছে প্রায় ৬ বছর ধরে। তখন মুলত ঝই-ঝামেলা এড়িয়ে থাকার জন্যই বাড়ীর প্রকৃত মালিক হাজী আলতাফ শেখ বিষয়টি গোপন রাখেন। কিন্ত বছর দুই আগে মারা যান তিনি। এরপর পূর্বের ধারাবাহিকতায় গত এক সপ্তাহ ধরে সেই গ্যাসের উদগীরণ বেড়ে গেলে তার সেজো ছেলে দেলোয়ার শেখ (৩৫) তা কাজে লাগানোর উদ্যোগ নেন। উদগীরণস্থল থেকে পাইপলাইনের মাধ্যমে সেই গ্যাস দিয়ে গত তিনদিন ধরে রান্নাবান্নার কাজ করছেন দেলোয়ারের পরিবার।

দেলোয়ার বলেন, ঘেরের জমিতে ৬ বছর আগে মাটি উত্তোলনের জন্য মিনি ড্রেজারের পাইপ বসাতে গিয়েছিলাম। তখনই সেখান থেকে হঠাৎ প্রচুর গ্যাস বের হতে শুরু করে। সেই সময়ে সেই গ্যাসের প্রচন্ড চাপ ছিলো। পাইপের মাটি, পানি ও বালি প্রচন্ত বেগে ও বিকট শব্দে গুলির মত বের হতে থাকে। ভয়ে আমরা তখন মাটির ৬০ ফুট গভীরে ঢুকানো পাইপ তুলে ফেলি। তারপর থেকে এভাবে গ্যাস উঠতে থাকে। কিন্তু সপ্তাহখানেক ধরে বেশি বের হতে থাকে। এরপর এ গ্যাস কাজে লাগানোর জন্য বাজারের মোবাইল দোকানদার বাদশা মোড়লকে দিয়ে ড্রাম ও পাইপ দিয়ে গ্যাসের লাইন টেনে চুলায় রান্নার কাজ করছি।


দেলোয়ারের স্ত্রী সুফিয়া খাতুন মিম বলেন, তিনদিন ধরে এই গ্যাস দিয়ে চুলায় রান্নাবান্না করছি। সিলিন্ডার গ্যাসের যেমন প্রেসার এ গ্যাসেও চুলায় প্রায় একই রকম প্রেসার। এ গ্যাস দিয়ে গত বৃহস্পতিবার থেকে ভাত, মাছ, ডাল ও সবজি রান্না করছি। বহু লোকজন প্রতিদিন দেখতে আসছে এ গ্যাস দিয়ে তাদেরকে চা খাওয়াচ্ছি।

মিঠাখালী বাজারের মোবাইল সার্ভিসিংয়ের দোকান তান্ত্রিক টেলিকমের মালিক মোঃ বাদশা মোড়ল (৩৩) বলেন, দেলোয়ার এসে আমাকে তার ঘের থেকে গ্যাস উঠার কথা জানিয়ে কিভাবে এর ব্যবহার করা যায় তার ব্যবস্থার জন্য বলেন। পরে আমি গত সোমবার তার ঘেরের মধ্যে প্লাস্টিকের ৫০ লিটারের একটি ড্রাম বসিয়ে ও ১ ইঞ্চির পাইপ লাগিয়ে চুলায় সংযোগের ব্যবস্থা করে দিই। এর আগে পাইপের মুখে দিয়াশলাই দিয়ে দেখি আগুন জ্বলে কিনা। দিয়াশলাই দিতেই তাতে আগুন জ্বলে। সেই সংযোগ দিয়ে বৃহস্পতিবার থেকে তার ঘরে পুরো রান্নার কাজ চলছে।

তেল, গ্যাস, খনিজসম্পদ, বিদ্যৎ ও বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির মোংলার আহবায়ক মোঃ নুর আলম শেখ বলেন, মাটির নীচের প্রাকৃতিক সম্পদের মালিক জনগণ। জনগণের গ্যাস সম্পদ উত্তোলন-সংরক্ষণ ও বিতরণ করে দেশের সমৃদ্ধি এবং উন্নয়নের কাজে লাগাতে হবে। বাগেরহাট জেলার মোংলা উপজেলার মিঠাখালী গ্রামের দেলোয়ারের চিংড়ি ঘের থেকে তীব্র বেগে গ্যাসের উদগীরণ হচ্ছে। স্থানীয় মানুষ লোকায়ত জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে পাইপ দিয়ে গ্যাসের চুলার সাথে সংযোগ ঘটিয়ে রান্নাবান্না করছে। সরকারেরর কাছে গ্যাস অনুসন্ধানের দেশীয় প্রতিষ্ঠান বাপেক্স'র মাধ্যমে প্রয়োজনীয়পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর করণীয় প্রদান করে এলাকার মানুষের উদ্বেগ-উৎকন্ঠার অবসান ঘটানোর দাবী জানাচ্ছি।

মোংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কমলেশ মজুমদার বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও পর্যবেক্ষণ করে বিষয়টি বাপেক্স'কে জানানো হবে। তারা কিংবা তাদের প্রতিনিধিরা এসে গবেষণা করেই পরবর্তী ব্যবস্থা নিবেন।

;

রাজিবপুর উপ‌জেলা চেয়ারম্যান গ্রেফতার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কুড়িগ্রাম
রাজিবপুর উপ‌জেলা চেয়ারম্যান গ্রেফতার

রাজিবপুর উপ‌জেলা চেয়ারম্যান গ্রেফতার

  • Font increase
  • Font Decrease

কু‌ড়িগ্রা‌মের রাজিবপুর উপ‌জেলা চেয়ারম‌্যান আকবর হো‌সেন হি‌রো‌কে গ্রেফতার ক‌রে‌ছে পু‌লিশ। শুক্রবার (১ জুলাই) রা‌তে তা‌কে গ্রেফতার করা হয় ব‌লে নি‌শ্চিত ক‌রে‌ছেন রাজিবপুর থানার পু‌লিশ প‌রিদর্শক (তদন্ত) আতাউর রহমান।

আতাউর রহমান জানান, আ‌র্থিক লেন‌দেন নি‌য়ে চেক সংক্রান্ত এক‌টি মামলায় উপ‌জেলা চেয়ারম‌্যান আকবর হো‌সেন হি‌রোর বিরু‌দ্ধে জামালপু‌রে মামলা হয়। মামলা‌টি কু‌ড়িগ্রাম আদাল‌তে আস‌লে আদালত চেয়ারম‌্যা‌নের বিরু‌দ্ধে গ্রেফতা‌রি প‌রোয়ানা জা‌রি ক‌রেন। সেই প‌রোয়ানা মূ‌লে শুক্রবার দিবাগত রা‌তে চেয়ারম‌্যান‌কে ‌গ্রেফতার ক‌রে পু‌লিশ।

রাজিবপুর থানার পু‌লিশ প‌রিদর্শক (তদন্ত) আতাউর রহমান ব‌লেন, 'শ‌নিবার সকা‌লে চেয়ারম‌্যা‌ন‌কে আদাল‌তে পাঠা‌নো হ‌য়ে‌ছে।'

;

২৪ ঘণ্টায় ৬ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১১০৫



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ২৯ হাজার ১৬০ জনের প্রাণ কেড়ে নিল এই ভাইরাস।

এদিকে দ্বিতীয় দিনের মতো শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দুই হাজারের নিচে নেমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ১০৫ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৯ লাখ ৭৬ হাজার ৭৮৭ জনে।

শনিবার (২ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ৮ হাজার ৩৫৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ২২ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ২৩৩ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ৭ হাজার ৯৯০ জন।

;

শিক্ষক উৎপল হত্যা: জিতুকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
শিক্ষক উৎপল হত্যা: জিতুকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার

শিক্ষক উৎপল হত্যা: জিতুকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার

  • Font increase
  • Font Decrease

সাভারের আশুলিয়ায় শিক্ষক উৎপল কুমার সরকার হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার আশরাফুল ইসলাম জিতুকে স্কুল থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।

শুক্রবার (১ জুলাই) সকালে হাজী ইউনুস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ সাইফুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘জিতুকে স্কুল থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। তার সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি, যাতে কখনও কোনও শিক্ষকের ওপর এই ধরনের হামলা করার সাহস কেউ না পায়।’

এদিকে শিক্ষক উৎপল কুমার হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে বন্ধ থাকা হাজী ইউনুছ আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজে পুলিশ পাহারায় শনিবার (২ জুলাই) থেকে ক্লাস শুরু হচ্ছে। শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় আশুলিয়ার চিত্রশাইলে হাজী ইউনুছ আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ঢাকা জেলা পুলিশের মতবিনিময় সভা শেষে এই সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন সরদার।

সভায় শিক্ষক উৎপল কুমারের হত্যাকারী জিতুকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশকে ধন্যবাদ জানায় প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। পাশাপাশি হত্যাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি, নিহতের পরিবারের ক্ষতিপূরণ ও নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবি করে তারা।

প্রসঙ্গত, গত ২৫ জুন দুপুরে হাজী ইউনুস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজে ক্রিকেট খেলার স্ট্যাম্প দিয়ে শিক্ষক উৎপলকে এলোপাতাড়ি আঘাত করে পালিয়ে যায় দশম শ্রেণির ছাত্র জিতু। পরে আহত শিক্ষককে দ্রুত উদ্ধার করে গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে এনাম মেডিক্যালে আইসিইউতে রাখা হয় তাকে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার ভোরে তার মৃত্যু হয়। ঘটনার পরপরই নিহত শিক্ষকের ভাই অসীম কুমার বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় স্কুলছাত্রকে প্রধান আসামি ও আরও তিন-চার জনকে অজ্ঞাত করে একটি মামলা করেন।

প্রধান আসামি জিতুকে গত বুধবার গাজীপুর থেকে গ্রেফতার করে র‍্যাব। বৃহস্পতিবার তাকে আশুলিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়। পুলিশ তার ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠায়। আদালত তার পাঁচ দিনের  রিমান্ড মঞ্জুর করেন। একই মামলায় গ্রেফতার জিতুর বাবাও পাঁচ দিনের রিমান্ডে রয়েছে।

;