দেশের স্বার্থে সরকার তদবির চালাবে



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

যেখানে তদবির দরকার, সেখানে আমরা চালাব। দেশেও তো কাজ করতে গেলে অনেক সময় তদবির লাগে।

শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) রাজধানীতে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ল অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্সে (বিলিয়া) এক আলোচনা শেষে র‍্যাবের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রসঙ্গে এসব বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ.কে আব্দুল মোমেন।

র‍্যাবের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞার পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশ নতুন করে লবিস্ট নিয়োগ করবে কি না, জানতে চাইলে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘আমি এসব বলতে পারব না। আমেরিকার চর্চা এটি (লবিস্টদের কাজ)। এটা বোধ হয় ২০১৩-১৪ সালে করেছিল এবং ওরা কাজ করে। প্রত্যেক দেশেই..আমাদের দেশে আমরা তদবির বলি। ওই দেশে বলে প্রাতিষ্ঠানিক তদবির। যেখানে তদবির দরকার, সেখানে আমরা চালাব। দেশেও তো কাজ করতে গেলে অনেক সময় তদবির লাগে।

মার্কিন নিষেধাজ্ঞার প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের উত্তরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সময়-সময় আমাদের অনেক ধরনের দুর্যোগ আসে। আমরা সেগুলো সমাধান করি। এখনো একটা হয়তো অসুবিধা আসছে। কিন্তু আমরা এটা সমাধান করতে পারব। আমেরিকানরা পরিপক্ব জাতি। তারা দেখবে। যদিও র‍্যাবের ওপর যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে, মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর বলছে গত কয়েক বছরে সন্ত্রাস কমেছে। র‍্যাব জনগণের আস্থা অর্জন করেছে। আমার মনে হয় সবাই এটা বুঝবে। তখন হয়তো অবস্থার পরিবর্তন হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘গণতান্ত্রিক কারণে এ দেশ সৃষ্টি হয়েছে। গণতন্ত্রে অনেক ধাক্কা আসে। সব গণতন্ত্রেই অপরিপূর্ণতা আছে। এটা একটি ধারাবাহিক প্রক্রিয়া। আমরা দিনে দিনে পরিপক্বতা অর্জন করেছি। আমেরিকা পরিপক্বতা অর্জন করার মধ্যেও ধাক্কা খায়। এ ধরনের ধাক্কাটাক্কা আসে। কোথাও দুর্বলতা থাকলে আমরা অবশ্যই তা দূর করার চেষ্টা করব।’

শিবালয়ে ৯ বিদ্রোহী প্রার্থীকে আ.লীগ থেকে বহিষ্কার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, মানিকগঞ্জ
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলায় ৯ বিদ্রোহী প্রার্থীকে দল থেকে বহিষ্কার করেছে জেলা আওয়ামী লীগ।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) দুপুরে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে। শিবালয় উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে আগামী ৩১ জানুয়ারি ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

বহিষ্কৃতরা হলেন- শিবালয় ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম, উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মোহসিন রাজু, তেওতা ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি করিম, ঢাকা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক দফতর সম্পাদক মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন, উথলী ইউনিয়ন আ.লীগের উপদেষ্টা মাসুদুর রহমান মাসুদ, শিমুলিয়া ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ রহমান আলী মৃধা, শিমুলিয়া ১নং ওয়ার্ড আ.লীগের সদস্য আয়নাল হক, শিবালয় ইউজেলা আ.লীগের সাংষ্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক জালাল সরকার, আরুয়া ইউনিয় আ.লীগের সদস্য ও মানিকগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মোনায়েম মুনতাকিম রহমান খান।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এই ৯ জন দলের নির্দেশ অমান্য করে দলীয় প্রার্থীদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন। তাই দলের নির্দেশে তাঁদের দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম বলেন, দলীয় পদে থেকে যাঁরা ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন তাঁদের সবাইকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের সব ধরনের পদ থেকে তাঁদের অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। এছাড়া দলীয় পদে থেকে যাঁরা নৌকার বিরুদ্ধে অন্য প্রার্থীর পক্ষে কাজ করছেন, তাঁদের সতর্ক করা হয়েছে। কেউ নৌকা প্রতীকের বাইরে প্রকাশ্যে বা গোপনে প্রচারণায় অংশ নিলে, তাঁর বিরুদ্ধেও সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

;

ডিবি'র অভিযানে মাদক চোরাকারবারি গ্রেফতার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,বার্তা২৪.কম,রংপুর
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

রংপুর নগরীতে মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে আশিকুজ্জামান আশিক(২২) নামে এক মাদক চোরাকারবারিকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। এসময় তার সাথে থাকা ১কেজি ৫শ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) বিকালে নগরীর তাজহাট থানাধীন মর্ডান মোড়স্থ কমিউনিটি চক্ষু হাসপাতালের পাশ থেকে তাকে আটক করা হয়।

গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেন রংপুর মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)’র উপ-পুলিশ কমিশনার কাজী মুত্তাকী ইবনু মিনান।

গ্রেফতার আশিকুজ্জামান আশিক লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার মালগাড়া গ্রামের আবুল কাশেম মিয়ার ছেলে।

ডিবি পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আরপিএমপি, তাজহাট থানাধীন মর্ডান মোড়স্থ কমিউনিটি চক্ষু হাসপাতালের পাশে অভিযান চালায় ডিবি পুলিশ। এসময় ১কেজি ৫শ গ্রাম গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আশিকুজ্জামান আশিককে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশের উপস্থিতি টেরপেয়ে তার সহযোগীরা পালিয়ে যায়।

এঘটনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে তাজহাট থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অতিঃ উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিবি) সাজ্জাদ হোসেন বলেন,মাদক নির্মূলে সব ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

;

সরকারি জায়গায় তোলা আ.লীগ নেতার ঘর ভেঙে দিল বিক্ষুব্ধ জনতা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ফরিদপুর
সরকারি জায়গায় তোলা আ.লীগ নেতার ঘর ভেঙে দিল বিক্ষুব্ধ জনতা

সরকারি জায়গায় তোলা আ.লীগ নেতার ঘর ভেঙে দিল বিক্ষুব্ধ জনতা

  • Font increase
  • Font Decrease

ফরিদপুরের নগরকান্দায় কুমার নদের পাড়ে বাজারের ড্রেন দখল করে শুক্রবার রাতে ঘর তোলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো. আক্কাছ আলী আক্কাছ। সরকারি জায়গা দখলের খবর পেয়ে, শনিবার (২২ জানুয়ারি) সকালে এলাকার বিক্ষুব্ধ জনতা সেই ঘর ভেঙে দেয়। 

নগরকান্দা বাজার বণিক সমিতির অর্থ সম্পাদক ও নগরকান্দা পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জাকির হোসেন বলেন, শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে নগরকান্দা বাজারের ড্রেন দখল করে ঘর তোলা হয়। এ খবর পেয়ে শনিবার সকালে আমি ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে গিয়ে দেখি, ড্রেন দখল করে নির্মাণ করা ঘরটি ভেঙে দিয়েছে বিক্ষুব্ধ জনতা।

তিনি জানান, এই জায়গায় অনেক আগে কুমার নদের ঘাট ছিল। বাজার ব্যবসায়ীদের সুবিধার্থে ড্রেনের দুই পাশের ফাঁকা জায়গায় পৌরসভার পক্ষ থেকে গণশৌচাগার এবং কুমার নদের পাড়ে পাকা ঘাটলা নির্মাণ করার পরিকল্পনা রয়েছে।

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আক্কাছ আলী আক্কাছ জানান, আমি ২০১০ সালে এই জায়গার ডিসিআর নিয়েছিলাম। তবে তখন এই জায়গায় ঘর নির্মাণ করা হয়নি। ঘর না থাকার কারণে ডিসিআরের নবায়ন করে দেয়নি। ডিসিআরের নবায়ন পেতেই আমার আমি দোকান ঘর নির্মাণ করেছি।

এ বিষয়ে নগরকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জেতী প্রু বলেন, নগরকান্দা বাজারের সরকারি জায়গা দখল করে ঘর নির্মাণের খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তবে আমি ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই বিক্ষুব্ধ জনতা ঘরটি ভেঙে দিয়েছে।

;

‘সংবিধান পরিবর্তন হলেও ভাষাগত ভুল রয়ে গেছে’



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, সাভার, ঢাকা
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

সতেরবার বাংলাদেশের সংবিধান সংশোধন হয়েছে। কিন্তু সংবিধানের ভাষাটা সঠিকভাবে পরিবর্তন করা হয়নি। সংবিধানের ভাষাগত বিভিন্ন ভুল সংশোধন জরুরী বলে জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সাখাওয়াৎ আনসারী।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে (গবি) 'বাংলাদেশের সংবিধান ও সমকালীন ভাষা পরিস্থিতি' শীর্ষক আলোচনা চক্রে তিনি এসব কথা বলেন।

অধ্যাপক আনসারী আরও বলেন, একটি দেশের পরিচয় বহন করে সে দেশের জাতীয় সঙ্গীত ও পতাকা। আমি মনে করি, সংবিধানে এ বিষয়গুলো আগে আসা উচিত ছিল। ভাষার বিষয়টি পরে রাখা যেত। কিন্তু সংবিধানে উল্টো হয়েছে।

ভাষার ক্ষেত্র নিয়ে তিনি বলেন, বহুভাষিক দেশ হলে কোন ভাষা কোথায় কতটুকু ব্যবহৃত হবে, সেটা ভাষা পরিকল্পনার গুরুত্বপূর্ণ অংশ। কোথায় বাংলা, কোথায় ইংরেজি ব্যবহার হবে, সেগুলো নির্দিষ্ট থাকা উচিত। ভাষার ক্ষেত্র চিহ্নিতকরণ খুবই দরকার। কিন্তু পঞ্চাশ বছরেও এটা হয়নি।

প্রায় দুই ঘন্টাব্যাপী এ আয়োজনে সংবিধানের ভাষাগত বিভিন্ন ভুল এবং উপমহাদেশের সংবিধানের তুলনামূলক আলোচনা করেন তিনি। আলোচনা শেষে প্রশ্নোত্তর পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

আয়োজক বিভাগের সিনিয়র প্রভাষক আয়েশা সিদ্দিকার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সমাপনী বক্তব্য প্রদান করেন বাংলা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মনসুর মুসা।

এ সময় বিভিন্ন অনুষদীয় ডিন, বিভাগীয় প্রধান, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার, শিক্ষক, শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

;