বাল্যবিবাহ রোধে কাজ করছে কিশোর-কিশোরী ক্লাব



তরিকুল ইসলাম সুমন, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
বাল্যবিবাহ রোধে কাজ করছে কিশোর-কিশোরী ক্লাব

বাল্যবিবাহ রোধে কাজ করছে কিশোর-কিশোরী ক্লাব

  • Font increase
  • Font Decrease

সমাজের বিভিন্ন স্তরের প্রান্তিক কিশোর-কিশোরীদের বাল্যবিবাহ ও যৌন নির্যাতন প্রতিরোধে কাজ করছে দেশের ৪ হাজার ৮৮৩টি কিশোর-কিশোরী ক্লাব। এছাড়াও এসব ক্লাব জেন্ডার বেইজড ভায়োলেন্স প্রতিরোধমূলক সচেতনতা, প্রশিক্ষণ, সৃজনশীল ও সাংস্কৃতিক কার্যক্রমের মধ্যদিয়ে সমাজে ইতিবাচক পরিবর্তনের চেষ্টা করছে বলে জানিয়েছেন কিশোর-কিশোরী ক্লাব স্থাপন সংক্রান্ত প্রকল্প পরিচালক এবং সরকারের যুগ্ম সচিব জয়ন্ত কুমার সিকদার।

তিনি বার্তা২৪.কম-কে জানান, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে সারা দেশে ৪ হাজার ৮৮৩টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কিশোর-কিশোরী ক্লাব স্থাপন করা হয়েছে। যার মধ্যে দেশের ৪ হাজার ৫৫৩টি ইউনিয়ন এবং ৩৩০টি পৌরসভা রয়েছে। ক্লাব সদস্যদের বয়স ১০-১৯ বছর। প্রতিটি ক্লাবে ২০ জন কিশোরী ও ১০ জন কিশোর রয়েছে।

প্রকল্প অফিস সূত্র জানায়, এ ক্লাবের মাধ্যমে ক্লাব সদস্যদেরকে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ, জেন্ডার বেইজড নির্যাতন প্রতিরোধ, প্রজনন স্বাস্থ্য ও অধিকার, জন্মনিবন্ধন, বিবাহ নিবন্ধন, যৌতুক, ইভটিজিং, শিশু ও নারী অধিকার, মাদকাসক্তি, নারী ও শিশু পাচার প্রতিরোধ, আইনি সহায়তা প্রদান, এইচআইভি/এইডস প্রতিরোধ, ব্যক্তিগত নিরাপত্তাসহ বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও এই ক্লাবের মাধ্যমে কিশোর-কিশোরীদের সৃজনশীল ও সাংস্কৃতিক বিকাশে ব্যবস্থা রয়েছে।

প্রকল্প পরিচালক জানান, কিশোর কিশোরীদের অফুরন্ত সম্ভাবনায় মানুষ গঠনে সমাজ তথা জাতি গঠনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে। একারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় তরুণ প্রজন্মকে যুগোপযোগী করে গড়ে তোলার অংশ হিসেবে এটি করা হয়েছে। যা নৈতিক শিক্ষা, শৃঙ্খলা ও দায়িত্ববোধে উদ্বুদ্ধ করবে।

প্রকল্প অফিস সূত্র আরও জানায়, প্রতিটি ক্লাবে প্রয়োজনীয় চেয়ার টেবিল, খেলার সরঞ্জাম সরবরাহ করা হয়েছে। কার্যক্রম পরিচালনার জন্য জেন্ডার প্রমোটার, সঙ্গীত শিক্ষক এবং আবৃতি শিক্ষক নিয়োগ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে ১ লাখ ৪৬ হাজার ৪৯০ জন কিশোর ও কিশোরীকে সেবা দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে নতুন করে একই সংখ্যক সদস্যকে সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। জেন্ডার প্রমোটারদের কাজের সহায়ক হিসেবে ১০৯৫টি বাইসাইকেল সরবরাহ করা হয়েছে। সপ্তাহে দুদিন এই ক্লাব সদস্যদের জন্য পুষ্টিকর খাবারও সরবরাহের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

বাংলাদেশকে রাশিয়ার শুভেচ্ছা



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
বাংলাদেশকে রাশিয়ার শুভেচ্ছা

বাংলাদেশকে রাশিয়ার শুভেচ্ছা

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা ও মস্কো কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০তম বার্ষিকী উপলক্ষে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সোমবার বাংলাদেশকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে।

ঢাকায় রুশ দূতাবাসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা বলেন, আমাদের সম্পর্কের এ মাইলফলক বার্ষিকীতে বাংলাদেশি বন্ধুদের অভিনন্দন জানাই।

মারিয়া জাখারোভা বলেন, আমাদের উভয় দেশ দীর্ঘদিন ধরে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের বন্ধনে আবদ্ধ ছিল, এর ভিত্তি ১৯৭২ সালে স্থাপিত হয়েছিল যখন (তৎকালীন) ইউএসএসআর বাংলাদেশের জনগণের জাতীয় মুক্তি সংগ্রামকে সমর্থন করেছিল এবং নতুন রাষ্ট্রের স্বাধীনতাকে প্রথম স্বীকৃতিদাতা দেশগুলোর অন্যতম ছিল।

তিনি বলেন, বাংলাদেশিরা সোভিয়েত সামরিক নাবিকদের কৃতিত্বের কথা স্মরণ রেখেছে, যারা ১৯৭২-৭৪ সালে চট্টগ্রাম বন্দরের মাইন ও ডুবে যাওয়া জাহাজ উদ্ধার করে বন্দর পরিষ্কার করেছিল।

জাখারোভা আরও বলেন, আমাদের উভয় দেশ একটি সক্রিয় রাজনৈতিক সংলাপ বজায় রেখেছে, যা সমতা ও পারস্পরিক শ্রদ্ধার নীতির ওপর ভিত্তি করে গড়ে উঠেছে। বর্তমানে বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ায় রাশিয়ার প্রধান বাণিজ্যিক অংশীদার এবং দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য বছরে ২.৫ বিলিয়ন ডলারেরও বেশি। খবর বাসস।

;

নারায়ণগঞ্জে তালাক হওয়া স্বামীর ঘরে স্ত্রীর লাশ



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নারায়ণগঞ্জ
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় সাবেক স্বামীর ঘর থেকে স্ত্রী ময়নার (১৯) মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় স্বামী রেজাউলকে আটক করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে পঞ্চবটি বন বিভাগ সংলগ্ন ফয়সালের পরিত্যক্ত ইটভাটার একটি ঘর থেকে নিহতের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিহত ময়না বরগুনা জেলার আমতলী থানার চরগাছিয়ার মো. আলমের মেয়ে। তিনি গার্মেন্টকর্মী ছিলেন।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী ফতুল্লা মডেল থানার উপ পরিদর্শক রাসেদ জানান, নিহত ময়নার সাথে বেশ কয়েক মাস পূর্বে তার স্বামী রেজাউলের তালাক হয়। এরপর তারা আবার সংসার শুরু করেন। ৮-১০ দিন পূর্বে তাদের মধ্যে আবারও বিচ্ছেদ হয়। ময়না আগে থেকেই লোহার মার্কেট সংলগ্ন আরবি গার্মেন্টসে চাকরি এবং পাশেই একটি বাসায় ভাড়া থাকত।

অপর দিকে স্বামী রেজাউলও একজন গার্মেন্টসকর্মী এবং বন বিভাগ সংলগ্ন ফয়সালের পরিত্যক্ত ইট খোলার জায়গায় তার বাবাকে নিয়ে একটি ঘরে বসবাস করত। ফয়সালের বাবা স্থানীয় একটি গার্মেন্টসে নিরাপত্তারক্ষী হিসেবে চাকরি করেন। সোমবার সকালে পিতা-পুত্র উভয়েই নিজ নিজ কর্মস্থলে চলে যায়। রেজাউলের বাবা দুপুরে খাবার খেতে এসে দেখেন ঘরের আড়ার সাথে ওড়না পেঁচানো ময়নার ঝুলন্ত লাশ। পরে পুলিশে সংবাদ দিলে পুলিশ দুপুর তিনটার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রেজাউলকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

ফতুল্লা মডেল থানার ইনচার্জ রকিবুজ্জামান জানান, সংবাদ পেয়ে গলায় ফাঁস লাগানো নিহতের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ বিষয়ে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে এখনও কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

;

দুই বছর স্কুল বন্ধ থাকায় প্রায় ৬৪ কোটি শিক্ষার্থী ক্ষতিগ্রস্ত



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনা ভাইরাস মহামারি দেড় বছরের বেশি সময় স্কুল বন্ধ থাকায় বাংলাদেশের ৩ কোটি ৭০ লাখ শিশুর পড়াশোনা ব্যাহত হয়েছে। মহামারিকালে বিশ্বজুড়ে স্কুল সর্ম্পূণ বা আংশিক বন্ধ থাকার কারণে ৬৩ কোটি ৫০ লাখেরও বেশি শিক্ষার্থীর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে ইউনিসেফের এর জরিপে উঠে এসেছে। 

আন্তর্জাতিক শিক্ষা দিবসে এবং কোভিড-১৯ মহামারি শুরুর দুই বছর পূর্ণ হওয়ায় ইউনিসেফ শিশুদের পড়াশোনার ওপর মহামারির প্রভাব সম্পর্কে প্রাপ্ত সর্বশেষ উপাত্ত তুলে ধরেছে।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ফের বেড়ে যাওয়ায় বাংলাদেশ সরকার ২৩ জানুয়ারি থেকে ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২২ পর্যন্ত স্কুল বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে।

বাংলাদেশে ইউনিসেফের প্রতিনিধি মি. শেল্ডন ইয়েট বলেন, ‘কোভিড-১৯ মোকাবিলার ক্ষেত্রে স্কুল বন্ধ করতে হলে তা অবশ্যই শেষ অবলম্বন হিসেবে অস্থায়ী ভিত্তিতে করতে হবে। সংক্রমণের ঢেউ সামাল দিতে আমরা যেসব পদক্ষেপ নিচ্ছি তার মধ্যে প্রতিষ্ঠান বন্ধের ক্ষেত্রে সবার শেষে এবং খুলে দেওয়ার ক্ষেত্রে সবার প্রথমে স্কুল থাকা উচিত।’

ইউনিসেফের শিক্ষা বিষয়ক প্রধান রর্বাট জনেকন্সি বলেন, ‘বৈশ্বিক শিক্ষা ব্যবস্থায় কোভিড-১৯ নামক বাঁধার দুই বছর পুর্ণ হবে আগামী মার্চে। খুব সহজভাবে বললে, আমরা শিশুদের পড়াশোনার ক্ষেত্রে প্রায় অপূরণীয় মাত্রার ক্ষতি দেখতে পাচ্ছি, তবে পড়াশোনার ক্ষেত্রের এই প্রতিবন্ধকতার অবসান ঘটাতে হবে এবং শুধু স্কুল পুনরায় খুলে দেওয়াই এক্ষেত্রে যথেষ্ট নয়। পড়াশোনার ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে শিক্ষার্থীদের নিবিড় সহায়তা প্রয়োজন। শিশুদের মানসিক ও শারীরিক স্বাস্থ্য, সামাজিক বিকাশ এবং পুষ্টি আগের অবস্থায় ফিরিয়ে নিতে স্কুলগুলোকে শুধু শেখানোর নির্ধারিত গন্ডির বাইরেও যেতে হবে।’

ইউনিসেফের জরিপে উঠে এসেছে, নিম্ন ও মধ্যম আয়ের দেশগুলোতে স্কুল বন্ধের কারণে পড়াশোনার ক্ষতি হওয়ায় ১০ বছর বয়সীদের ৭০ শতাংশই সহজ পাঠ্য পড়া বা বোঝার সক্ষমতা র্অজন করতে পারেনি, যা মহামারির আগের সময়ের তুলনায় ৫৩ শতাংশ বেশি।

ইউনিসেফ বলেছে, মহামারিকালে স্কুল বন্ধ থাকায় শিশুরা গণনা ও স্বাক্ষরতার মৌলিক দক্ষতা হারিয়েছে। বৈশ্বিকভাবে পড়াশোনায় ব্যাঘাতের অর্থ হলো- লাখ লাখ শিশু শ্রেনীকক্ষে থাকলে যে একাডেমিক শিক্ষা অর্জন করতে পারতো তা থেকে উল্লেখযোগ্য মাত্রায় বঞ্চিত হয়েছে, যেখানে ছোট ও আরও বেশি প্রান্তিক শিশুরা সব চেয়ে বেশি ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে।

ইথিওপিয়ার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশুরা স্বাভাবিক শিক্ষাবর্ষে যে পরিমাণ গণিত শিখতে পারতো তার মাত্র ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ শিখতে পেরেছে বলে ধারণা করছে ইউনিসেফ।

ব্রাজিলের বেশ কয়েকটি প্রদেশ গ্রেডে ২-এর প্রতি ৪ শিশুর মধ্যে ৩ জন পড়ার দক্ষতা অর্জন থেকে বিচ্যুত হয়েছে। যা মহামারির আগে ছিল প্রতি ২ শিশুর মধ্যে একজন। দেশটিতে ১০-১৫ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের প্রতি ১০ জনের মধ্যে ১ জন জানিয়েছে। তাদের স্কুল পুনরায় খুলে দেওয়ার পরে তারা আর স্কুলে ফিরে যাওয়ার পরিকল্পনা করছে না। টেক্সাস ২০২১ সালে গ্রেড ৩-এর দুই-তৃতীয়াংশ শিশুদের তাদের গ্রেডের জন্য গণিতে দক্ষতা কম ছিল। ২০১৯ সালে এই হার ছিল অর্ধেক শিশু।

যুক্তরাষ্ট্রে টেক্সাস, ক্যালিফোর্নিয়া, কলোরাডো, টেনেসি, উত্তর ক্যারোলিনা, ওহাইও, ভার্জিনিয়া ও মেরিল্যান্ডসহ অনেক অঙ্গরাজ্যে পড়াশোনার ক্ষতি পরিলক্ষিত হয়েছে। 

দক্ষিণ আফ্রিকায় স্কুলগামী শিশুদের শিক্ষাবর্ষে যে অবস্থানে থাকার কথা তার চেয়ে তারা ৭৫ থেকে ১০০ শতাংশ পর্যন্ত পিছিয়ে আছে। ২০২০ সালের মার্চ থেকে ২০২১ সালের জুলাইয়ের মধ্যবর্তী সময়ে প্রায় ৪ থেকে ৫ লাখ শিক্ষার্থী স্কুল থেকে ঝরে পড়েছে বলে জানা গেছে।

স্কুল বন্ধ থাকায় তা পড়াশোনার ক্ষতির পাশাপাশি শিশুদের মানসিক স্বাস্থ্যকে প্রভাবিত করছে, তাদের নিয়মিত পুষ্টি প্রাপ্তির উৎস কমিয়ে দিয়েছে এবং তাদের নিগ্রহের শিকার হওয়ার ঝুঁকি বাড়িয়েছে।

ইউনিসেফের গবেষণায় দেখা গেছে, কোভিড-১৯ শিশু ও তরুণ জনগোষ্ঠীর মধ্যে উচ্চ হারে উদ্বেগ ও বিষন্নতা সৃষ্টি করেছে, যার হার কিশোর-কিশোরী এবং গ্রামাঞ্চলে বসবাসকারী শিশুদের মধ্যে বেশী।

ইউনিসেফ আরও জানিয়েছে স্কুল বন্ধ থাকার সময়ে বিশ্বব্যাপী ৩৭ কোটিরও বেশী শিশু স্কুলের খাবার থেকে বঞ্চিত হয়েছে, যা কিছু শিশুর জন্য খাবার ও দৈনিক পুষ্টি প্রাপ্তির একমাত্র নির্ভরযোগ্য উৎস এবং তারা সেটা হারায়।

 

;

লাউয়াছড়া বন থেকে মানব কঙ্কাল উদ্ধার



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, মৌলভীবাজার
লাউয়াছড়া বন থেকে মানব কঙ্কাল উদ্ধার

লাউয়াছড়া বন থেকে মানব কঙ্কাল উদ্ধার

  • Font increase
  • Font Decrease

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের লাউয়াছড়ার বন থেকে মানব কঙ্কাল উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) বিকেল ৫টার দিকে স্থানীয় চা শ্রমিক বৌন বাউরি লাউয়াছড়া বনের স্টুডেন্ট ডরমিটরির পাশের জঙ্গল থেকে জ্বালানি কাঠ সংগ্রহ করতে যায়। এসময় সে আশপাশের কয়েকটি স্থানে মানুষের কঙ্কাল সাদৃশ্য বস্তু দেখে পুলিশে খবর দেয়।

কঙ্কালের পাশে গাছের সাথে পেঁচানো একটি শাড়ি পাওয়া গেছে। খবর পেয়ে সন্ধ্যা ৭টার দিকে কমলগঞ্জ থানা পুলিশ এসে হাড়গুলো উদ্ধার করে। পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে কঙ্কালগুলো মাধবপুর ইউনিয়নের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান আছিদ আলীর বোনের।

স্থানীয়রা বলছেন, প্রায় সাড়ে চার মাস আগে আছিদ আলীর বোন নিখোঁজ হয়। শাড়ি দেখে তারা ধারণা করছেন কঙ্কালগুলো নিখোঁজ হওয়া আছিদ আলীর বোনের হতে পারে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কমলগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সোহেল রানা বলেন, হাড়গুলো ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য সিআইডির ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানো হবে। এরপর কঙ্কালটির পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যাবে। এবিষয়ে থানায় একটি ইউডি মামলা হবে বলেও তিনি জানান।

;