সিরাজগঞ্জে তিন এমপি করোনায় আক্রান্ত



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
সিরাজগঞ্জে তিন এমপি করোনায় আক্রান্ত

সিরাজগঞ্জে তিন এমপি করোনায় আক্রান্ত

  • Font increase
  • Font Decrease

সিরাজগঞ্জের তিনজন সংসদ সদস্য (এমপি) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়াও একজন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও উপজেলা চেয়ারম্যান এবং জেলা যুবলীগের সভাপতিও আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে সবাই দুই ডোজ টিকা নিয়েছেন বলে জানা গেছে।

আক্রান্ত ব্যক্তিরা হলেন, সিরাজগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য তানভীর শাকিল জয়, সিরাজগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না, সিরাজগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. আব্দুল আজিজ, কাজিপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান সিরাজী, রায়গঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৃপ্তি কনা মন্ডল এবং জেলা যুবলীগের সভাপতি রাশেদ ইউসুফ জুয়েল। 

শনিবার বিকেলে নিজের ফেসবুক পেজে দ্বিতীয়বারের মতো করোনা আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি জানিয়ে নিজের সুস্থতা কামনা করে দোয়া চেয়েছেন সিরাজগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না।

রোববার (২৩ জানুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে সিরাজগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্নার এপিএস একরামুল হক স্বপন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে, ২০২১ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণের মাধ্যমে সিরাজগঞ্জে টিকা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন সিরাজগঞ্জ-২ আসনের এমপি অধ্যাপক হাবিবে মিল্লাত মুন্না। এরপর ৮ এপ্রিল জাতীয় সংসদ ক্লিনিক থেকে দ্বিতীয় ডোজ ও ১২ জানুয়ারি টিকার বুস্টার ডোজ গ্রহণ করেন তিনি।

সিরাজগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য তানভীর শাকিল জয় বলেন, দুইটি করোনা টিকা এবং বুস্টার ডোজ গ্রহণ করার পরও ১৯ জানুয়ারি তৃতীয়বারের মতো তার শরীরে করোনা ধরা পড়েছে। ঠান্ডা ছাড়া তেমন কোন সমস্যা হচ্ছে না। বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি।

সিরাজগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. আব্দুল আজিজ সরকার বলেন, দুইটি টিকা নেওয়ার পর ৭ দিন আগে শরীরে করোনা ধরা পড়েছে। সর্দি-কাশি আছে, কিন্তু তেমন সমস্যা হচ্ছে না। বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি। 

রায়গঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তৃপ্তি কনা মন্ডল বলেন, দুইটি টিকা গ্রহণ করার পরও ১৮ জানুয়ারি করোনা ধরা পড়েছে। কাশি আছে, ডাক্তারের পরামর্শে বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি। 

অপর দিকে দুই টিকা গ্রহণের পরও ১৮ জানুয়ারি কাজিপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান সিরাজী এবং ১৭ জানুয়ারি জেলা যুবলীগের সভাপতি রাশেদ ইউসুফ জুয়েলের শরীরে করোনা ধরা পড়ে। এদেরও হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়নি। বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন তারা।

‘বিশ্বে দ্রব্যমূল্য ঊর্ধ্বমুখী হলেও দেশে নিয়ন্ত্রণে চেষ্টা চালাচ্ছে সরকার’



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম

  • Font increase
  • Font Decrease

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, বিশ্বে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য ঊর্ধ্বমুখী থাকলেও বাংলাদেশ সরকার তা নিয়ন্ত্রণে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সেই সাথে দেশে খাদ্য পণ্য ব্যাপকহারে উৎপাদনের জন্য নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

বুধবার (২৫ মে) মিরপুর ক্যান্টমেন্টে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অফ প্রফেসনাল-বিইউপি আয়োজিত ইনভায়রনমেন্টাল ফেস্ট-২০২২ এর সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, করোনা সংকট শেষ হতে না হতেই ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ পুরো বিশ্বে নতুনভাবে সংকট সৃষ্টি করেছে। আমাদের দেশের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বৃদ্ধি এবং দেশীয় খাদ্য পণ্য উৎপাদনে সরকার আগে থেকেই বিশেষ উদ্যোগ নেওয়ার ফলেই এই সংকট মোকাবিলা করতে সক্ষম হচ্ছে।

তিনি বলেন, গৃহস্থালি ও শিল্প বর্জ্যের পাশাপাশি নির্মাণ বর্জ্যও সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার মধ্যে আনতে সরকার কাজ করছে। ইতিমধ্যেই ঢাকা দুই সিটি করপোরেশনসহ গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের কার্যক্রম শেষ পর্যায়ে রয়েছে। পর্যায়ক্রমে সকল সিটি করপোরেশন এবং শহরাঞ্চলে বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে। এছাড়া পৌরসভাগুলোতে ছোট প্ল্যান্টের মাধ্যমে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার কাজ চলমান রয়েছে। এসব উদ্যোগের মাধ্যমে দেশের বর্জ্য যেমন একটি সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার মধ্যে আসবে একইভাবে পরিবেশ দূষণের হাত থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব হবে।

মো. তাজুল ইসলাম বলেন, মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বৃদ্ধি পাওয়ায় ভোগের পরিমাণ বেড়ে গেছে। যার ফলে অতীতের তুলনায় বর্তমানে প্রচুর পরিমাণ বর্জ্য উৎপাদন হচ্ছে। আগে যে কোনো পণ্য কেনার সময় একটি ব্যাগের মধ্যেই সবকিছু নেয়া হতো। কিন্তু এখন প্রত্যেকটি জিনিসের জন্য আলাদা আলাদা ব্যাগ দেওয়া হয় যার কারনে গৃহস্থালিসহ অন্যান্য বর্জ্য উৎপাদন বহুলাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে।

তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের মূল কারণ পরিবেশ দূষণ। আর এই পরিবেশ দূষণে উন্নত দেশের তুলনায় বাংলাদেশের মত উন্নয়নশীল দেশগুলোর প্রভাব অনেক কম। এসব দেশের তুলনায় উন্নত দেশগুলো পরিবেশ দূষণের জন্য বেশি দায়ী। পৃথিবীকে বাঁচাতে হলে পরিবেশ দূষণ বন্ধ করতে হবে।

মন্ত্রী জানান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশকে স্বাধীন করার পর ধ্বংসস্তূপ দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের ভিত্তি রচনা করে গেছেন। পরবর্তীতে অর্থনৈতিক ব্যবস্থা টালমাটাল থাকলেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠনের পর দেশের অর্থনীতিতে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। বাংলাদেশ বিশ্বে পরিচিতি পেয়েছে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে।

সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিইউপির উপাচার্য মেজর জেনারেল মো. মাহবুব উল আলম। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব ড. এস এম যোবায়দুল করিম।

;

বিএনপিকে নির্বাচন ভীতি পেয়ে বসেছে: তথ্যমন্ত্রী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ

  • Font increase
  • Font Decrease

বিএনপিকে নির্বাচন ভীতি পেয়ে বসেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্যমন্ত্রী ড হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন, এই জন্য কোন নির্বাচনে তারা (বিএনপি) অংশগ্রহণ করতে চায় না।

বুধবার (২৫ মে) কুমিল্লা টাউন হলে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কুমিল্লা জেলা প্রশাসন আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তিনি।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চায় না, এমনকি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চায় না। সিটি নির্বাচনসহ কোনো নির্বাচনেই তারা অংশগ্রহণ করতে চায় না। কারণ তারা জানে তাদের ভরাডুবি হবে। নির্বাচন ভীতি পেয়ে বসেছে এইজন্য তারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চায় না।

বিএনপি নির্বাচন ভীতি কাটিয়ে উঠবে বলে আশা প্রকাশ করে আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বলেন, আশা করি তারা নির্বাচন ভীতি কাটিয়ে উঠবে এবং দলকে নির্বাচনমুখী করবে।

;

কামরাঙ্গীরচরে বাসা থেকে দুই যুবকের মরদেহ উদ্ধার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর কয়লার ঘাট এলাকার একটি বাসা থেকে দুই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহতরা হলেন- মো. মেরাজ (২০) ও মো. রুবেল (১৯)।

বুধবার (২৫ মে) বেলা ১১টার দিকে কয়লারঘাট লবণ ফ্যাক্টরির গলির একটি তিনতলা ভবনের দ্বিতীয়তলা থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়

হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া ওই এলাকার বাসিন্দা তোফায়েল আহমেদ জানান, সকাল ১০টার দিকে তারা শুনতে পান ওই বাড়িটির দ্বিতীয় তলায় দুই যুবক মারা গেছেন। তারা সেখানে গিয়ে তাদেরকে বিছানায় শোয়া অবস্থায় দেখতে পান। দুজনের মধ্যে মিরাজ জীবিত আছে ভেবে তারা পুলিশের সহায়তায় হাসপাতালে নিয়ে যান।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কামরাঙ্গীরচর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অনিরুদ্ধ রায় জানান, খবর পেয়ে ওই বাসায় গিয়ে দুজনকে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। এদের মধ্যে রুবেল নামে এক যুবক অনেক আগেই মারা গেছে। তবে মিরাজকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যাওয়ার পর সেখানে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

;

পরকীয়ার জেরে স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, মাদারীপুর
পরকীয়ার জেরে স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম

পরকীয়ার জেরে স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম

  • Font increase
  • Font Decrease

মাদারীপুরে পরকীয়ার জেরে লিজা আক্তার (৩০) নামের এক গৃহবধূকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে স্বামী আজমীর ঘরামীর বিরুদ্ধে।

বুধবার (২৫ মে) সকাল ৮টার দিকে মাদারীপুর পৌরসভার চৌরাস্তা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত লিজা আক্তারকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে।

আহত লিজা আক্তার মাদারীপুর পৌরসভার সৈদারবালী এলাকার আ. হক মাতব্বরের মেয়ে। এদিকে অভিযুক্ত আজমীর ঘরামী পাঁচখোলা ইউনিয়নের জাফরাবাদ এলাকার মান্নান ঘরামীর ছেলে।

ভুক্তভোগী ও স্বজনরা জানায়, ৭ বছর আগে পারিবারিক সম্মতিতে বিয়ে হয় লিজা ও আজমীর ঘরামীর। তাদের সংসারে ৫ ও ৪ বছরের দুটি শিশু সন্তান রয়েছে। বিয়ের পরে সামান্য ব্যাপার নিয়ে মাঝে মধ্যেই লিজাকে মারধর করতো আজমীর। পরবর্তীতে লিজা আক্তার খোঁজ নিয়ে জানতে পারে, ঘোষের হাট এলাকার এক প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে আজমীরের পরকীয়ার সম্পর্ক। এই নিয়ে তাদের সংসারে অশান্তির সৃষ্টি হয়। সেই ঝামেলার সূত্র ধরে আজ সকালে আজমীর লিজাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ধারলো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। পরে স্থানীয়রা আহত লিজা আক্তারকে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

আহত লিজা আক্তার বলেন, আমার স্বামী আজমীরের সাথে এক মহিলার দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়ার সম্পর্ক, এছাড়াও সে মাদকাসক্ত। বিভিন্ন সময়ে লোকজন নিয়ে এসে বাসায় মাদকের আসর বসায়। এতে বাধা দিলে একাধিকবার শারীরিক নির্যাতন করেছে। কিন্তু আমার বাচ্চাদের মুখের দিকে তাকিয়ে তাকে কিছুই বলতে পারিনি। আজ সামান্য ব্যাপার নিয়ে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে চাপাতি দিয়ে মাথায় আঘাত করে গুরুতর জখম করে। আমি এর বিচার চাই।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত আজমীর ঘরামীকে একাধিকবার কল করলেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

মাদারীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম মিঞা বলেন, ভুক্তভোগী লিখিত অভিযোগ দিলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

;