টেকনাফে ছাত্রীকে ২ ডোজ টিকা, যা জানালো স্বাস্থ্য অধিদপ্তর



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
টেকনাফে ছাত্রীকে ২ ডোজ টিকা, যা জানালো স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

টেকনাফে ছাত্রীকে ২ ডোজ টিকা, যা জানালো স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে চলমান টিকাদান কর্মসূচিতে টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে ভুল এড়াতে সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্যকর্মীদের সতর্ক করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

রোববার (২৩ জানুয়ারি) রাতে অধিদপ্তরের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে দেওয়া এক পোস্টে এ সতর্কবার্তা দেওয়া হয়।

সেখানে বলা হয়, শনিবার (২২ জানুয়ারি) টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের একজন মাদরাসাছাত্রীকে ভুলবশতঃ একসঙ্গে দুই ডোজ টিকা প্রদান করা হয়। খবর পাওয়ার পর স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ ওই ছাত্রীকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে। বর্তমানে সে সুস্থ আছে।

নির্দেশনায় আরও বলা হয়, ভবিষ্যতে যাতে এমন ভুল না হয়, সে বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর টিকা কেন্দ্রগুলোকে সতর্ক করেছে। খুব শিগগির স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এ সংক্রান্ত সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা জারি করবে।

টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক টিটু চন্দ্র শীল গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ভুলে ওই ছাত্রীকে দুই ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে। এতে কিছুই হবে না। কোনো সমস্যা হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দেখবে।

সমন্বয় সভায় চড় দেওয়ায় প্যানেল মেয়র গ্রেফতার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, মানিকগঞ্জ
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

মানিকগঞ্জে আইনশৃঙ্খলা মিটিং এবং মাসিক সমন্বয় সভায় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে প্রকাশ্যে চড়-থাপ্পড়ের ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে।

বুধবার (২৫ মে) রাত পৌনে ৮টার দিকে ভাড়ারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল সদর থানায় মারধরের বিষয় উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রউফ সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মামলার পর প্যানেল মেয়র ও জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আব্দুর রাজ্জাক রাজাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি জানান, সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে মানসম্মত শিক্ষা, জনসেবা ও দুর্নীতিসহ মাসিক আইনশৃঙ্খলা ও সন্বয়ন সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা চলাকালে দুপুরের দিকে সদরের ভাড়ারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল জলিলের সাথে প্যানেল মেয়র ও জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আব্দুর রাজ্জাকের সাথে কথা কাটাকাটি হয় এবং এক পর্যায়ে সভা চলাকালে তাদের মধ্যে হাতাহাতি হয়।

তিনি আরও জানান, ঘটনার পর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফোন করে পুলিশ পাঠাতে বলেন এবং পুলিশ গিয়ে আব্দুর রাজ্জাক রাজাকে থানায় নিয়ে আসেন। এ ঘটনায় রাতে ভাড়ারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সদর থানায় মারধরের বিষয় উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় প্যানেল মেয়র ও জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আব্দুর রাজ্জাক রাজাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, মানিকগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. রমজান আলী সরকারি ছুটিতে থাকায় পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর এবং প্যালেন মেয়র ও জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আব্দুর রাজ্জাক রাজা উক্ত মাসিক সভায় অংশগ্রহণ করেন।

;

কুষ্টিয়ায় নান্না বিরিয়ানির মালিককে জরিমানা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কুষ্টিয়া
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

কুষ্টিয়ায় নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার পরিবেশনের দায়ে নান্না বিরিয়ানি হাউজকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পঁচা বাসী মাংস ফ্রিজে সংরক্ষণের অপরাধে এ জরিমানা করেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর।

এছাড়া মেয়াদোত্তীর্ণ সিলিন্ডার ব্যবহার করে গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রয় করা এবং কোন প্রকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা না রাখার অপরাধে মেসার্স এ আর এন্টারপ্রাইজকে ৮ হাজার জরিমানা করা হয়েছে।

বুধবার (২৫ মে) দুপুরে শহরের এনএস রোড এলাকায় ভেজাল খাদ্যবিরোধী এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর কুষ্টিয়া জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সুচন্দন মন্ডল।

তিনি বলেন, কুষ্টিয়া শহরে যত্রতত্র গড়ে উঠেছে হোটেল-রেস্তোরাঁ। ঢাকার নামিদামি রেস্তোরাঁর নাম দিয়ে কুষ্টিয়া শহরের বেশকিছু এলাকায় গড়ে তোলা হয় বিরিয়ানির দোকান। যার মধ্যে হাজীর বিরিয়ানি এবং নান্না বিরিয়ানির হেঁসেল ঘরে অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে খাদ্য প্রস্তুত চলছিল। এসব নিয়ে এর আগে মিডিয়ায় সংবাদ প্রচার হলে প্রশাসনের টনক নড়ে। এর ফলে আজকের এই অভিযান।

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ও পঁচা ও বাসি মাংস দিয়ে বিরিয়ানি তৈরির অপরাধে নান্না বিরিয়ানি হাউজকে ১০ হাজার টাকা এবং মেয়াদোত্তীর্ণ সিলিন্ডার ব্যবহার করে গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রয় করা এবং কোন প্রকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা না রাখার অপরাধে মেসার্স এ আর এন্টারপ্রাইজকে ৮ হাজার জরিমানা করা হয়েছে। আগামীতে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

অভিযানে জেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর (ভারপ্রাপ্ত) সুলতানা রেবেকা নাসরীন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা সহায়তা করেন।

;

কাপ্তাই হ্রদে ড্রেজিংয়ের ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে: পার্বত্যমন্ত্রী



আলমগীর মানিক, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রাঙামাটি
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার অন্যতম বৃহৎ কৃত্রিম হ্রদ রাঙামাটির কাপ্তাই হ্রদের নাব্যতা ফিরিয়ে এনে অত্রাঞ্চলের বাসিন্দাদের জীবন মানোন্নয়নে শিগগিরই নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে কাপ্তাই হ্রদে ড্রেজিং কাজ শুরু করা হবে বলে জানিয়েছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর ঊশৈসিং এমপি।

মন্ত্রী বলেন, কাপ্তাই হ্রদে ড্রেজিংয়ের মাধ্যমে নাব্যতা ফিরিয়ে আনা হলে আমাদের জলবিদ্যুৎ উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে, হ্রদে মৎস্য সম্পদ বাড়বে এবং নৌ যোগাযোগ বৃদ্ধির মাধ্যমে পাহাড়ের মানুষের আত্মসামাজিক উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে।

বুধবার (২৫ মে) রাঙামাটি জেলা পরিষদের আয়োজন পরিষদের নিজস্ব সম্মেলন কক্ষে জেলা পরিষদের সদস্য, কর্মকর্তা এবং হস্তান্তরিত বিভাগ সমূহের কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

রাঙামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুই প্রু চৌধুরীর সভাপতিত্বে উক্ত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য মন্ত্রণালয় বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর ঊশৈসিং এমপি। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে পার্বত্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সতিন্দ্র নাথ রায়, জেলা পরিষদের মূখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আশরাফুল ইসলাম, সিভিল সার্জন ডাঃ বিপাস খীসা, কৃষি বিভাগের উপপরিচালক তপন কুমার পাল, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী বিভাগের নির্বাহী কর্মকর্তা অনুপম দে’সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রধানগণ বক্তব্য রাখেন।

মতবিনিময়কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের দীর্ঘ দুই যুগের সমস্যা নিরসনে জাতির জনকের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই উদ্যোগ নিয়েছিলেন। একমাত্র তিনি অনুধাবন করেছিলেন যে সেসময়ে পাহাড়ে চলমান সমস্যাটি একটি রাজনৈতিক সমস্যা, এটাকে রাজনৈতিকভাবেই সমাধান করতে হবে। তিনি নিজেই উদ্যোগ নিয়ে ১৯৯৭ সালের ২ ডিসেম্বর পার্বত্য চুক্তি করেন। যার ফল এখন পার্বত্যবাসী ভোগ করছেন। একসময় পার্বত্য চট্টগ্রামে কিছুই ছিল না।

বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিকতায় পার্বত্য চট্টগ্রামে মেডিকেল কলেজ, প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়সহ শিক্ষা ক্ষেত্রসহ প্রতিটি সেক্টরে বর্তমান সরকার ব্যাপক উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম একটি সম্ভাবনাময় অঞ্চল। এ সম্ভাবনাকে কাজে লাগানোর জন্য বর্তমান সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করছে। সরকারের চলমান এই উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়নে সরকারের প্রতিটি অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের আন্তরিকভাবে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন পার্বত্যমন্ত্রী।

;

শ্রীমঙ্গল ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে রবীন্দ্র-নজরুল-সুকান্ত স্মরণোৎসব পালিত



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, সিলেট
স্মরণোৎসব অনুষ্ঠানে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের সঙ্গীত পরিবেশনা। ছবি: বার্তা২৪.কম

স্মরণোৎসব অনুষ্ঠানে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের সঙ্গীত পরিবেশনা। ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৩তম জন্ম উৎসব পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সাহিত্য-সংস্কৃতি সংসদের আয়োজনে বাংলাসাহিত্যের চিরস্মরণীয় ৩ কবির জীবন ও কর্মের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বিদ্যালয় অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছে রবীন্দ্র-নজরুল-সুকান্ত স্মরণোৎসব-২০২২।

বুধবার (২৫ মে) আয়োজিত এই অনুষ্ঠানের পর্বগুলোর মধ্যে ছিল- রবীন্দ্র-নজরুল-সুকান্ত কে নিয়ে কথামালা, কবিতা আবৃত্তি, রবীন্দ্র-নজরুল-সুকান্ত’র রচনা ও সাহিত্য থেকে পাঠ, রবীন্দ্র-নজরুল-সুকান্ত এর গান, নৃত্য এবং ‘রবীন্দ্র-নজরুল-সুকান্ত কে জানি’ শীর্ষক কুইজ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ।

ব্যতিক্রমী এই অনুষ্ঠানের ডেকোরামে ছিলো না গতানুগতিক প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি কিংবা সভাপতির আসন। আমন্ত্রিত অতিথিদের সবাইকেই প্রধান অতিথি’র মর্যাদায় অভিসিক্ত করে ঘোষণা দেয় কর্তৃপক্ষ।

সহকারি শিক্ষক সুধেন্দু ভট্টাচার্যের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অয়ন চৌধুরী। ক্রমান্ময়ে বিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং শিক্ষার্থীরা তাদের গান, আবৃত্তি এবং নৃত্য এখানে পরিবেশন করে। আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে থেকে বক্তব্য প্রদান করেন ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সহসভাপতি বিজয় কান্তি ভট্টাচার্য, বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষক দীপেন্দ্র ভট্টাচার্য, সারগাম শ্রীমঙ্গলের অধ্যক্ষ বুলবুল আনাম, শ্রীমঙ্গল উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শুভ্র ধর প্রমুখ।

আমন্ত্রিত অতিথিপর্বে রবীন্দ্রসঙ্গীত পরিবেশন করেন প্রবীন রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী রানু সেন, আবৃত্তি পরিবেশন করেন আবৃত্তিশিল্পী বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য বাপন এবং নজরুল সঙ্গীত পরিবেশন করেন এক সময়ে সঙ্গীতশিল্পী এবং প্রাক্তন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জয়শ্রী চৌধুরী।

সবশেষে ‘রবীন্দ্র-নজরুল-সুকান্ত কে জানি’ শীর্ষক কুইজ প্রতিযোগিতায় দুই গ্রুপে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অর্জনকারী ৬জন শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার হিসেবে মহামূল্যবান বই উপহার দেয়া হয়। কুইজ প্রতিযোগিতায় ক-বিভাগে প্রথম হয়েছে ৮ম শ্রেণির অরণ্য সাহা এবং খ-বিভাগে প্রথম হয়েছে ১০ম শ্রেণির বিশ্বপ্রিয় কাব্য।

;