জেলের জালে ধরা পড়ল ভারতের স্যাটেলাইট বসানো কচ্ছপ



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, মোংলা (বাগেরহাট)
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ভারতের গবেষণা কাজে স্যাটেলাইট ট্রান্সমিটার বসানো বিলুপ্ত প্রজাতির বাটাগুরবাস্কা কচ্ছপ খুলনার দিঘলিয়া থেকে উদ্ধার হয়েছে।

শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) দিঘলিয়া উপজেলার কাজীরহাট এলাকায় স্থানীয় এক জেলের জালে আটকে পড়ে এ কচ্ছপটি। ওই দিন গাজীরহাট ক্যাম্প পুলিশ সেটিকে উদ্ধার করে বনবিভাগকে খবর দেয়। এরপর রোববার সকালে বনবিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সেটিকে উদ্ধার করে করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রে নিয়ে যান।

করমজল পর্যটন ও বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আজাদ কবির জানান, শনিবার খুলনার দিঘলিয়ার গাজীরহাটে জেলের জালে কচ্ছপটি ধরা পড়ার পর সেটি প্রথমে পুলিশ উদ্ধার করে। এরপর বনবিভাগের খুলনাঞ্চলের সিএফ মিহির কুমার দো খবর পেয়ে আমাদেরকে জানালে আমরা সেটি সেখান থেকে এনে করমজলে রেখেছি। পরবর্তীতে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নির্দেশনার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে। এ সকল প্রাণী প্রকৃতির ইকোসিস্টেম রক্ষা করে থাকে। এর বিলুপ্তি ও অনুপস্থিতে ইকোসিস্টেমের ভারসম্য নষ্ট হয়ে থাকে। তাই প্রকৃতির ভারসম্য ও বিলুপ্ত এ কচ্ছপ সংরক্ষণ এবং প্রজননে সরকারি প্রশাসনিক বিভিন্ন দফতর এলাকায় প্রকল্প করা হলে তা আরও ফলপ্রসু হবে। কারণ এগুলো নদী-সাগর ও সুন্দরবনে ছাড়া থাকলে বা অবমুক্ত করলে তা জেলেদের জালে আটকে পড়ে। পরে তারা সেগুলো বাড়িতে বাণিজ্যিক ও খাওয়ার জন্য লালন পালন করে থাকে। তাই অবশেষ বিলুপ্তি ঠেকাতে প্রশাসন এরিয়ায় এর প্রকল্প গড়ে তোলা জরুরি।


পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের করমজল পর্যটন ও বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রে গড়ে উঠা বাটাগুরবাস্কা প্রজেক্টের ষ্টেশন ম্যানেজার আ. রব জানান, মূলত বিলুপ্ত প্রজাতির এ বাটাগুরবাস্কা কচ্ছপের গতি ও আচরণবিধি, বিচরণ ক্ষেত্র, খাদ্যভাস এবং প্রজনন সম্পর্কে জানতে ভারতের টাইগার প্রজেক্ট গত ১৫ ফেব্রুয়ারি সেদেশের সজনেখালী এলাকার কুলতলীতে স্যাটেলাইট ট্রান্সমিটার বসানো ১০টি পুরুষ কচ্ছপ অবমুক্ত করেন। এর ১১দিনের মাথায় সেটি নদী-সাগর হয়ে এদেশের খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার গাজীরহাটে চলে আসে। ভারতের এ ধরণের আরও একটি কচ্ছপ পূর্ব সুন্দরবনের বলেশ্বর ও সাউথখালীর নদীতে বিচরণ করছে। ভারতের টাইগার প্রজেক্টে স্যাটেলাইট ট্রান্সমিটার সমৃদ্ধ ১০ বাটাগুরবাস্কার পাশাপাশি ২শ কচ্ছপ গবেষণায় সংগৃহীত রয়েছে।

তিনি আরও জানান, এক সময়ে বাংলাদেশ, ভারত ও মায়ানমারে বাটাগুরবাস্কা প্রজাতির কচ্ছপের অস্তিত্ব ছিল। এখন যা বিলুপ্ত প্রায়। এসব দেশের উপকূলীয় এলাকায় দুই একটির যৎসামান্য অস্তিত্ব রয়েছে। সেগুলো সংগ্রহ করেই এ গবেষণার কাজ করছেন সংশ্লিষ্টরা।


আ. রব বলেন, বিলুপ্ত প্রায় বাটাগুরবাস্কা প্রজাতির কচ্ছপ সংরক্ষণ, প্রজনন, গতি ও আচরণ বিধি, বিচরণ ক্ষেত্র, পানিতে ডুবে ও ভেসে থাকার সময় নির্ণয়সহ নানা কার্যক্রম জানতে বাংলাদেশ বনবিভাগ, অস্ট্রিয়ার ভিজুয়েনা, আমেরিকার টিএসএ ও ঢাকার প্রকৃতি ও জীবন ফাউন্ডেশন যৌথভাবে কাজ করছে। পূর্ব সুন্দরবনের করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রে এ প্রকল্পের অবকাঠামোর কাজ শুরু হয়। এরপর ২০১৮ সালে প্রকল্পের কাজ চালু হয়। ২০১৮, ১৯ ও ২০ সালে দফায় দফায় ১৫টি স্যাটেলাইট ট্রান্সমিটার সমৃদ্ধ কচ্ছপ সুন্দরবন ও সাগর মোহনায় অবমুক্ত করা হয়। কচ্ছপের পিঠে বসানো স্যাটেলাইট ট্রান্সমিটারের কার্যক্ষমতা এক বছরের। এরপর এমনিতেই এটি খসে পড়ে যায়। এক বছরেই এর তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করা হয়। আর এসে সংগ্রহ করে থাকেন অস্ট্রিয়ার ভিজুয়েনা ও আমেরিকার টিএসএ'র গবেষকেরা। তবে এ প্রজেক্টে ব্যাপক সফলতা এসেছে বলেও জানান তিনি। মোট ১৫ টি নিয়ে কাজ শুরু হলেও এখন করমজলে এর সংখ্যা সাড়ে ৪শ।

ঢাকায় আবদুল গাফফার চৌধুরীর মরদেহ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বিশিষ্ট সাংবাদিক, গীতিকার, কলামিস্ট ও সাহিত্যিক আবদুল গাফফার চৌধুরীর মরদেহ ঢাকায় পৌঁছেছে ।

শনিবার (২৮ মে) বেলা ১১টার দিকে বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে গাফফার চৌধুরীর দেহ ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছে।

সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের জন্য দুপুর ১টায় বরেণ্য এই সাংবাদিকের মরদেহ নেওয়া হবে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে।

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বিমানবন্দরে উপস্থিত হয়ে আবদুল গাফফার চৌধুরীর মরদেহ আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রহণ করেন।

বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদে আবদুল গাফফার চৌধুরীর জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। বিকেল ৪টার দিকে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য তার মরদেহ জাতীয় প্রেসক্লাবে নিয়ে যাওয়া হবে।

এরপর বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানের উদ্দেশে আবদুল গাফ্‌ফার চৌধুরীর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে। পরে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে তাকে সমাহিত করা হবে।

এদিকে, আবদুল গাফ্‌ফার চৌধুরীর দাফনকাজ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য সরকারের বিভিন্ন দফতর ও সংস্থার সঙ্গে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট ও জাতীয় প্রেসক্লাব সার্বিক সহযোগিতা করছে।

মহান একুশের অমর সংগীতের রচয়িতা আবদুল গাফ্‌ফার চৌধুরী গত ১৯ মে লন্ডনের বার্নেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৮৮ বছর। পরিবারের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানিয়েছে, তিনি বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছিলেন।

;

ময়মনসিংহে গাছ পড়ে গৃহবধূর মৃত্যু



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ময়মনসিংহ
ময়মনসিংহে গাছ পড়ে গৃহবধূর মৃত্যু

ময়মনসিংহে গাছ পড়ে গৃহবধূর মৃত্যু

  • Font increase
  • Font Decrease

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে চলন্ত অটোরিকশায় গাছ পড়ে সালমা (৩২) নামের এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার (২৭ মে) রাত ৮টায় উপজেলার যশরা ইউনিয়নের মুক্তাপাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত সালমা আক্তার ওই এলাকার মিজানুর রহমানের স্ত্রী ও দুই সন্তানের জননী।

স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, সালমা গফরগাঁও থেকে সেলাই মেশিন ও গ্যাসের সিলিন্ডার কিনে অটোরিকশা করে বাড়িতে যাচ্ছিল। রাত আনুমানিক ৮ টার দিকে বাড়ির কাছাকাছি পৌঁছালে ঝড়ো বাতাস শুরু হয়। ঝড়ে একটি কৃঞ্চচুড়া গাছ ভেঙে অটোরিকশার ওপরে পড়ে। এতে সালমা আক্তার ঘটনাস্থলেই মারা যান।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম রিয়েল বলেন, ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। নিহতের দুইটি সন্তান রয়েছে।

গফরগাঁও থানার ওসি ফারুক আহম্মেদ বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

;

সাড়ে ১১ ঘণ্টা পর ঢাকার সঙ্গে উত্তরবঙ্গের রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে পঞ্চগড় এক্সপ্রেসের ইঞ্জিনসহ দুটি বগি লাইনচ্যুত হওয়ার সাড়ে ১১ ঘণ্টা পর রাজধানীর সঙ্গে উত্তরবঙ্গের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

শনিবার (২৮ মে) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়। মৌচাক রেলস্টেশন মাস্টার মো. শাহিনুল আলম শামীম সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে, শুক্রবার (২৭ মে) রাত সোয়া ১০টার দিকে মৌচাক রেলস্টেশনের কাছে ইঞ্জিনসহ ট্রেনের দুটি বগি লাইনচ্যুত হয়। এ ঘটনায় চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

জয়দেবপুর রেলওয়ে স্টেশনের মাস্টার রেজাউল ইসলাম বলেন, রাত সোয়া ১০টার দিকে ঢাকাগামী ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি মৌচাক স্টেশন পার হলে দুটি বগি লাইনচ্যুত হয়। মেইনলাইন ব্লক থাকায় ঢাকার সঙ্গে উত্তরবঙ্গের ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

যাত্রী সূত্রে জানা যায়, জয়দেবপুর-রাজশাহী রেল লাইনের কালিয়াকৈর উপজেলার মৌচাক এলাকায় ঢাকাগামী পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের ইঞ্জিনসহ দুটি বগি লাইনচ্যুত হয়। শুক্রবার রাত ১০টার মৌচাক রেলস্টেশন এলাকায় এ ঘটনা ঘটলেও উদ্ধারে তেমন তৎপরতা লক্ষ্য করা যায়নি। পরে সাড়ে ১১ ঘণ্টা পর ঢাকার সঙ্গে উত্তরবঙ্গের রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়।

;

বাংলাদেশের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার প্রশংসা পর্তুগালের



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গতিশীল উন্নয়ন ও উল্লেখযোগ্য অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বাংলাদেশের বিদ্যমান রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার ফসল হিসেবে অবিহিত করেছে পর্তুগাল।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম লিসবনে পর্তুগালের অর্থনীতি ও সমুদ্র বিষয়ক মন্ত্রী ড. আন্তোনিও কস্তা সিলভাসের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে তিনি এই মন্তব্য করেন।

বৈঠকে প্রতিমন্ত্রী পর্তুগিজ মন্ত্রীকে সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক খাতে দ্রুত প্রবৃদ্ধির বিষয়ে অবহিত করেন।

পর্তুগালের অর্থনৈতিক মন্ত্রী বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে আঞ্চলিক সহযোগিতার প্রশংসা করেন।

দুই দেশের মধ্যে সহযোগিতার যথেষ্ট সম্ভাবনা থাকার বিষয়টি স্বীকার করে পর্তুগালের মন্ত্রী নবায়নযোগ্য শক্তি, পরিবেশ বান্ধব রূপান্তর, সামুদ্রিক প্রযুক্তি, সমুদ্র অর্থনীতিসহ বিবিধ ক্ষেত্রে আরও সহযোগিতার সমর্থন ব্যক্ত করেন।

বাংলাদেশের প্রতিমন্ত্রী এসব ক্ষেত্রে সহযোগিতা এগিয়ে নিতে সম্মত হন এবং আঞ্চলিক জলবিদ্যুতের জন্য পর্তুগালের সহায়তা কামনা করেন। মন্ত্রী স্বীকার করেন বাংলাদেশ এবং পর্তুগাল উভয়ই উপকূলীয় দেশ হওয়ায় জলবায়ু পরিবর্তন এবং সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির কারণে অভিন্ন অস্তিত্ব হুমকির সম্মুখীন, যা আরও জলবায়ু সহযোগিতা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয়তা তৈরি করে।

জবাবে আলম তাকে ইন্ডিয়ান ওশান রিম অ্যাসোসিয়েশন ও ইন্টারন্যাশনাল সিবেড অথরিটিতে বাংলাদেশের অগ্রণী ভূমিকা সম্পর্কে অবহিত করেন এবং এ বিষয়ে বাংলাদেশ-পর্তুগাল অংশীদারিত্বকে এগিয়ে নিতে সম্মত হন। তিনি সমুদ্রবিদ্যা এবং সামুদ্রিক ক্ষেত্রে জ্ঞান আদানপ্রদান এবং অংশীদারিত্ব বাড়ানোর আহ্বান জানান।

প্রতিমন্ত্রী নয়াদিল্লীতে পর্তুগিজ দূতাবাসে সশরীরে উপস্থিতির বাধ্যতামূলক প্রয়োজনীয়তার কারণে বাংলাদেশি ভিসা আবেদনকারীদের অসুবিধার বিষয়ে মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন এবং একটি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থাকে বাংলাদেশে কাজ করার অনুমতি দিয়ে প্রক্রিয়াটি সহজ করার জন্য তার হস্তক্ষেপের অনুরোধ করেন।

মন্ত্রী দুই দেশের সম্ভাব্য বিনিয়োগকারী এবং ব্যবসায়ীদের সুবিধার্থে একটি সরলীকৃত ভিসা পদ্ধতির গুরুত্ব স্বীকার করেন এবং এই বিষয়টি গুরুত্বসহকারে বিবেচনার বিষয়ে আশ্বাস দেন।

বহুপাক্ষিক পর্যায়ে বিদ্যমান অংশীদারিত্বকে সুসংহত করতে মন্ত্রী ২৭ জুন থেকে ১ জুলাই পর্তুগালে অনুষ্ঠিতব্য আসন্ন দ্বিতীয় জাতিসংঘ মহাসাগর সম্মেলনে অংশগ্রহণের জন্য বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানান।

প্রতিমন্ত্রী ওই সম্মেলনে বাংলাদেশের একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দলের অংশগ্রহণের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

;