ফরিদপুরে অটোরিকশা চালকের মরদেহ উদ্ধার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,বার্তা২৪.কম, ফরিদপুর
ছবিঃ বার্তা২৪.কম

ছবিঃ বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ফরিদপুরের নগরকান্দার সালথায় এক ব্যাটারী চালিত অটো রিকশাচালকের মরদেহ উদ্ধার করােহয়েছে। তার নাম মোহাম্মাদ আলী মাতুব্বর (৩৫)।

রোববার সকালে ফরিদপুর-বরিশাল মহাসড়কের নগরকান্দা উপজেলার ভবুকদিয়া নামক স্থানে মহাসড়কের পাশে কচুরিপানার ভেতর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে থানা পুলিশ।

এলাকাবাসী জানান, রোববার সকালে মহাসড়কের পাশে পানির কচুরিপানার ভেতর একটি লাশ দেখতে পান তারা। থানায়  খবর দিলে পুলিশ অর্ধগলিত মরদেহটি উদ্ধার করে। পরে মোহাম্মাদ আলীর ভাই ওয়াহিদ মাতুব্বর মরদেহ তার ভাইয়ের শনাক্ত করেন বলে থানার এস আই সিরাজুল ইসলাম জানান।

নিহত মোহাম্মাদ আলি পাশ্ববর্তী সালথা উপজেলার রামকান্তপুর ইউনিয়নের শৌলডুবি গ্রামের ইমান মাতুব্বরের ছেলে। পেশায় ব্যাটারী চালিত অটো রিকশাচালক।

এ সময় ওহিদুল মাতুব্বর বলেন, গত ১৭ ফেব্রুয়ারি প্রতিদিনের ন্যায় ভাড়ায় চালিত অটো নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন। এরপর আর ফিরে আসেনি। অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে ১৮ ফেব্রুয়ারি সালথা থানায় একটি নিখোঁজ ডায়েরি করি। আজ লাশ উদ্ধারের খবর পাই। 

থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাবিল হোসেন বলেন, ধারণা করা হচ্ছে অন্য কোথাও মেরে লাশ এখানে ফেলে গেছে। তবে বিষয়টি গভীরভাবে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

বন্যাদুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ এক্স নটরডেমিয়ান্স ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
বন্যাদুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ এক্স নটরডেমিয়ান্স ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের

বন্যাদুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ এক্স নটরডেমিয়ান্স ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের

  • Font increase
  • Font Decrease

সিলেটের গোয়াইনঘাটের সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত রুস্তমপুর ও ফতেপুরে বন্যাদুর্গত সহস্রাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে এক্স নটরডেমিয়ান্স ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন (ইএনডব্লিউএফ)।

রোববার (৩ জুলাই) দুপুর ১২টায় রুস্তমপুর ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের ইউপি সদস্যদের সহায়তায় বন্যায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ছয় শতাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

এসময় স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তায় ৬ শতাধিক বন্যার্ত প্রতিটি পরিবারের হাতে ৫ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি চিড়া, ১ কেজি গুড়, ১ কেজি লবণ, ১ লিটার সয়াবিন, ৩১২ গ্রাম গুড়া দুধ, স্যালাইন, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট, স্যাভলন সাবান দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য ,গত শনিবার (২ জুলাই) বেলা ৩টায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সিলেটের গোইয়াইনঘাট ফতেপুর ইউনিয়নের দারিদ্র পীড়িত বাগবাড়ি এলাকার রামনগর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪ শতাধিক অসহায় পরিবারের হাতে খাদ্যসামগ্রী তুলে দেয় ইএনডব্লিউএফ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, বন্যায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষগুলোর জীবন। ঘরে পানি, বাহিরে পানি, আয়রোজগার বন্ধ, ঘরে খাবার নাই, শিশু সন্তান, ছেলেমেয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে খুব কষ্টের মধ্যে দিনাতিপাত করছে এবং সাহায্যের আশায় বিত্তশালীদের দিকে অসহায়রা তাকিয়ে অপেক্ষার প্রহর গুণছে। পাশাপাশি বন্যার পানি এখনও না নামায় তাদের জীবনে নাভিশ্বাস অবস্থা বিরাজ করছে । বিপর্যস্ত এই স্বল্প আয়ের দৈন্যপ্রবণ মানুষগুলোর জন্য কিছুটা স্বস্তি দিতে খাদ্যসামগ্রী প্রদান করায় এক্স নটরডেমিয়ান্স ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনকে ধন্যবাদ জানিয়েছে বক্তারা। আয়োজকরা এই ধরনের জনহিতকর কাজ চালিয়ে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন এবং সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানান ।

খাদ্যসামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন এক্স নটরডেমিয়ান্স ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের সহ সভাপতি ডা. দলিলুর রহমান, মহাসচিব ডা. মতিয়ার হোসেন, ট্রেজারার আসিফুর রহমান, নির্বাহী সদস্য আখলাক আহমেদ রিয়াদ, রুস্তমপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সাহাব উদ্দিন সিহাব, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক হেলাল আহমেদ, বিট অফিসার অনুশ কুমার দাস, স্থানীয় সমাজসেবক মারুফ হাসান প্রমুখ।

;

সিরাজগঞ্জে আড়াই কোটি টাকার হেরোইনসহ আটক ৩



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, সিরাজগঞ্জ
মাদক চোরাকারবারি আটক

মাদক চোরাকারবারি আটক

  • Font increase
  • Font Decrease

বিশেষ অভিযান চালিয়ে সিরাজগঞ্জে আড়াই কোটি টাকার হেরোইনসহ ৩ মাদক চোরাকারবারিকে আটক করেছে র‌্যাব-১২। এসময় ১টি প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়েছে।

আটকরা হলো- রাজশাহীর সুলতানগঞ্জ গ্রামের শামসুল হুদার ছেলে রাশিদুল হক মনি (২২), বাহ্মণ গ্রামের কামাল উদ্দিনের ছেলে কামরুজ্জামন রনি (২৩) ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের হরমা গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে শাকিল আহম্মেদ (২০)।

রোববার (৩ জুলাই) দুপুুরে র‌্যাব-১২’র উপ-অধিনায়ক মেজর কাজী আলমগীর হোসেন (এসি) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এতথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গোপন সাংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১২’র একটি আভিযানিক দল জেলার বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম এলাকায় মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযান চালিয়ে ২ কেজি ৬৩০ গ্রাম হেরোইনসহ ৩ মাদক চোরাকারবারিকে আটক করা হয়। এসময় মাদক ক্রয়-বিক্রয় কাজে ব্যবহৃত ১টি প্রাইভেটকার (ঢাকা-মেট্রো-গ-১৯-২৫৭৪), ৪টি মোবাইল ও নগদ ১২ হাজার ২শত টাকা জব্দ করা হয়। উদ্ধারকৃত হেরোইনের আনুমানিক মুল্য আড়াই কোটি টাকা।

এই মাদক কারবারিরা আইন প্রয়োগকারী সংস্থার চোখ ফাঁকি দিয়ে দেশের বিভিন্ন জেলায় অবৈধ নেশাজাতীয় মাদকদ্রব্য ক্রয়-বিক্রয় করে আসছি।আটককৃতদের বিরুদ্ধে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

;

জুলাইয়ে হচ্ছে না এসএসসি পরীক্ষা



সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সারাদেশের বন্যা পরিস্থিতি এখনও স্বাভাবিক না হওয়ায় জুলাই মাসে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা হবে না বলে জানিয়েছেন ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার।

তিনি জানান, বন্যা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এসএসসি পরীক্ষা আগস্ট মাসে শুরু হবে।

রোববার (৩ জুলাই) দুপুরে আন্তঃবোর্ডের এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

তিনি বলেন, জুলাই মাসে এসএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হবে না। কারণ আমরা আজকে সবাইকে নিয়ে পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে দেখেছি যে, সিলেটের অর্ধেকেরও বেশি কেন্দ্র এখন আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে। এগুলো সংস্কার করে পুনরায় পরীক্ষার উপযোগী করতে সময় লাগবে। তাই ‍জুলাই মাসে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হবে না। আগস্ট মাসে পরীক্ষা শুরু হবে।

আগস্টের কত তারিখ পরীক্ষা শুরু হতে পারে, জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা ঈদের পর বিষয়টি নিয়ে আলোচনায় বসব। এরপর পরীক্ষার নতুন তারিখ জানাতে পারব।

তাহলে কি এইচএসসি পরীক্ষা আরও পিছিয়ে যাবে, জানতে চাইলে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান বলেন, যেহেতু এইচএসসি পরীক্ষা এসএসসি পরীক্ষার সঙ্গে সম্পর্কিত, তাই এই পরীক্ষাও পিছিয়ে যাবে।

প্রসঙ্গত, দেশব্যাপী এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা ছিল গত ১৯ জুন থেকে। তবে সিলেটসহ দেশের কয়েকটি এলাকায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় ১৭ জুন এসএসসি পরীক্ষা স্থগিতের ঘোষণা আসে।

;

পারিবারিক আদালত আইনের খসড়া অনুমোদন



সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক

মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক

  • Font increase
  • Font Decrease

মামলার ফি বৃদ্ধি করে নতুন ‘পারিবারিক আদালত আইন, ২০২২’-এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

রোববার (৩ জুলাই) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ভার্চুয়াল মন্ত্রিসভা বৈঠকে আইন ও বিচার বিভাগের উপস্থাপন করা এ আইনের খসড়া অনুমোদন দেওয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে এবং মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীরা সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সভাকক্ষ থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যোগ দেন। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

খন্দকার আনোয়ারুল বলেন, আবার মামলার ক্ষেত্রে ফি যেটা ৫০ টাকা ছিল, সেটাকে ২০০ টাকা করা হয়েছে। কারণ ১৯৮৫ সালে কোর্টে মামলা করলে ৫০ টাকা দিতে হতো। যদিও বাড়িয়ে এখন যেটা করা হয়েছে, সেটাও অনেক কম। কারণ বেশির ভাগ ক্ষেত্রে একটু অসহায় মেয়েরা এসে মামলা দায়ের করে সেটা বিবেচনা করে ফি বাড়ানো হয়নি।

তিনি বলেন, আগের আইনটি সামরিক শাসনামলের। ১৯৮৫ সালে একটি ফ্যামিলি কোর্ট অর্ডিন্যান্স হয়, সেই অর্ডিন্যান্সে পারিবারিক বিষয়গুলো দাম্পত্য কলহ, তালাক, ম্যারিজ রেস্টোরেশন, শিশুদের ভরণপোষণ- এ বিষয়গুলো ছিলো। এরআগে এ বিষয়গুলো ফৌজদারি কার্যবিধির ৪(৮৮)-তে বিবেচ্য হতো। হাইকোর্টের বিধি-বিধান অনুযায়ী এটিকে (সামরিক শাসনামলের অধ্যাদেশ) আইনে পরিণত করতে হবে, তাই এ আইনের খসড়াটি নিয়ে আসা হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আগে যেটা ছিল মোটামুটি সেটাই আছে। এখানে ৩১টি ধারা আছে। বিবাহবিচ্ছেদ, দম্পত্য অধিকার পুনরুদ্ধার, দেনমোহর, ভরণপোষণ এবং শিশু সন্তানদের অভিভাবকত্ব ও তত্ত্বাবধান সংক্রান্ত বিষয়গুলো এ আদালত বিবেচনায় নেবে।

‘একটাই মূল পরিবর্তন আনা হয়েছে। সেটা হলো- আগে ছিল যে আদালতে রায় হবে সেটার আপিল কর্তৃপক্ষ ছিলেন জেলা জজ। এখান সংশোধন এনে বলা হচ্ছে, জেলাপর্যায়ে আরও জজ আছেন, নারী-শিশু বা শ্রম আদালত। শুধু জেলা জজ বললে ওনার ওপর একটু বেশি চাপ পড়ে যায়। সরকার যদি মনে করে কোনো জেলাতে আপিলের জন্য অতিরিক্ত মামলা আছে, সেক্ষেত্রে জেলা জজপর্যায়ের অন্যান্য যে জজরা রয়েছেন, তাদেরকেও আপিল আদালত হিসেবে বিবেচনা করা যাবে।’

;