টেলিভিশন উন্মুক্ত, কারও মুখ চেপে ধরা হয়নি: প্রধানমন্ত্রী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমি টেলিভিশন উন্মুক্ত করে দিয়েছি। এখন সবাই কথা বলতে পারেন। অথচ অনেকে টিভিতে টকশো করছেন আর বলেন যে, কথা বলতে দেওয়া হয় না। কারও মুখ তো চেপে ধরা হয়নি।

সোমবার (১৬ মে) সকালে গণভবন থেকে এসডিজি বাস্তবায়ন পর্যালোচনা বিষয়ক ২য় জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধন শেষে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাস ও রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে বাধাগ্রস্ত হলেও নির্দিষ্ট সময়ে এসডিজি বাস্তবায়নের চেষ্টা করছে সরকার। পানি, বিদ্যুৎ ও খাদ্য ব্যবহারের ক্ষেত্রে সবাইকে সাশ্রয়ী হওয়ার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, দেশের অর্ধেক জনগোষ্ঠী নারী। তাদের অবহেলিত রেখে টেকসই উন্নয়ন সম্ভব নয়। তাই প্রতিটি ক্ষেত্রে নারীদের সম্পৃক্ত করা হচ্ছে। সমাজে প্রতিবন্ধি ভাতাসহ বিভিন্ন শ্রেণির জন্য ভাতা দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আশাবাদ ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সকলে মিলে একসঙ্গে কাজ করলে ২০৩০ সালের মধ্যে লক্ষ্য অর্জন করা সম্ভব।

শেখ হাসিনা বলেন, গ্রামে যান, খেটে খাওয়া মানুষদের দেখুন। কৃষক, শ্রমিক, খেটে খাওয়া মানুষের জীবনমান উন্নয়ন হচ্ছে। প্রকল্পগুলো শেষ হলে আমরা অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবো। তবে আমাদের সম্পদ ও অর্থের কার্যকর ব্যবহার ও অপচয়রোধ নিশ্চিত করতে হবে। কারণ, আমরা জানি, কোভিড-১৯ ও রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের ফলে বিশ্ব অর্থনীতিতে একটা ধাক্কা লেগেছে।

সরকার প্রধান বলেন, অনেকেই পারমাণবিক বিদ্যুতের সমালোচনা করেন। কিন্তু এগুলো যে মানুষের কাজে লাগবে সেটা তারা বিবেচনা করেন না।নদীমাতৃক বাংলাদেশের তৃণমূলের মানুষ এতে উপকৃত হবেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ২০২২ সালের এপ্রিলের মধ্যে সারাদেশে ১ লাখ ৮৩ হাজার ৩টি গৃহহীন পরিবারকে বাড়ি বানিয়ে দিয়েছি। এছাড়াও কক্সবাজারে ৬৪০টি জলবায়ু উদ্বাস্তু পরিবারকে নতুন বাড়ি করে দিয়েছি; ২০২৩ সালের মধ্যে মোট ৪ হাজার ৪০৯টি জলবায়ু উদ্বাস্তু পরিবার নতুন বাড়ি পাবে।

রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে চুরি যাওয়া টিন খুলনায় উদ্ধার



উপজেলা করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, মোংলা (বাগেরহাট)
রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে চুরি যাওয়া টিন খুলনায় উদ্ধার

রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে চুরি যাওয়া টিন খুলনায় উদ্ধার

  • Font increase
  • Font Decrease

রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রের চুরি যাওয়া ১৬ লাখ টাকা মূল্যের ভারতীয় মালামাল খুলনা থেকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব। উদ্ধার হওয়া মালামাল খুলনার বটিয়াঘাটা থানা পুলিশে হস্তান্তর করা হয়েছে।

শনিবার (০২ জুলাই) রাত সাড়ে ১০টার দিকে খুলনার বটিয়াঘাটা এলাকায় অভিযান চালিয়ে এসব মালামাল উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব জানায়, বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রের সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান তাদের মালামাল চুরির ঘটনায় র‌্যাব-৬ এর কার্যালয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতে গোয়েন্দা তৎপরতার মাধ্যমে শনিবার (০২ জুলাই) রাত সাড়ে ১০টার দিকে খুলনার বটিয়াঘাটা এলাকায় অভিযান চালানো হয়। অভিযানকারীরা চোরাকারবারিদের লুকিয়ে রাখা এসব মালামাল উদ্ধার করতে সক্ষম হন। উদ্ধার হওয়া ২৮৭ পিস অ্যালুমিনিয়াম টিন সিট রাতেই বটিয়াঘাটা থানা পুলিশে হস্তান্তর করা হয়েছে।

উদ্ধারকৃত মালামালের মূল্য ১৬ লাখ টাকা বলে জানায় র‌্যাব। র‌্যাব আরও জানায়, উদ্ধার হওয়া মালামাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রের অবকাঠামো নির্মাণ কাজে ব্যবহারের জন্য ভারত থেকে আমদানি করা হয়েছিলো। যা সংঘবদ্ধ চোরচক্র চুরি করে নিয়ে বটিয়াঘাটা এলাকায় লুকিয়ে রাখে।

উল্লেখ্য, এর আগে রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে বিভিন্ন সময়ে চুরি হওয়া জিআই পাইপ, বৈদ্যুতিক তার ও সকেট উদ্ধারসহ চুরির সাথে সম্পৃক্তদের আইনের আওতায় আনে র‌্যাব-৬।

;

ভোজ্যতেল আমদানিতে ভ্যাট প্রত্যাহারের মেয়াদ বাড়ল ৩ মাস



সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ভোক্তাপর্যায়ে সয়াবিন ও পাম তেলের দাম সহনীয় রাখতে এ পণ্যের ওপর মূল্যসংযোজন কর প্রত্যাহারের মেয়াদ আরও তিন মাস বাড়ানো হয়েছে।

রোববার (৩ জুলাই) বিকেলে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। ভোজ্যতেলে বিদ্যমান এ ভ্যাট সুবিধার মেয়াদ ছিল গত ৩০ জুন পর্যন্ত।

প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়, আন্তর্জাতিক বাজারে ভোজ্যতেলের কাঁচামালের মূল্যবৃদ্ধি অব্যাহত থাকার পরিপ্রেক্ষিতে ভোক্তাদের স্বার্থ বিবেচনায় এ সুবিধার মেয়াদ ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে।

বর্তমানে ভোজ্যতেলে শুধু আমদানি পর্যায়ে ৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপ আছে। আর উৎপাদন ও সরবরাহ পর্যায়ে কোনো ভ্যাট দিতে হয় না ব্যবসায়ীদের। এ দুই স্তরে মোট ২০ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহার করা হয়েছে। চলতি বছরের মার্চে প্রজ্ঞাপন জারি করে এ সুবিধা দেওয়া হয়।

বিশ্ববাজারে ভোজ্যতেলের দাম বাড়তে থাকায় গত মার্চের মাঝামাঝি তিন ধাপে মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) কমায় সরকার।

;

ঈদের আগে পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচল নয়



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

পবিত্র ঈদুল আজহার আগে পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে মোটরসাইকেল চলাচলের সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

রোববার (৩ জুলাই) মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর সচিবালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা জানান।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতুতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন ক্যামেরা বসবে, বসানো হবে স্পিডগানও। তারপর পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে মোটরসাইকেল চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এর আগে, গত ২৭ জুন ভোর ৬টা থেকে পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ ঘোষণা করে সরকার। ২৫ জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পরদিন সকাল থেকে সেতুটি যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হয়।

 

;

ইশতেহারে দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে চাই: প্রধানমন্ত্রী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • Font increase
  • Font Decrease

নির্বাচনের সময় জনগণের কাছে দেওয়া প্রতিশ্রুতি ক্ষমতায় গিয়ে ভুলে যায়নি মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের উন্নয়ন পরিকল্পনা একেবারে তৃণমূল থেকে। বিশেষ করে আমাদের লক্ষ্যটা হলো আমরা যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসেছি তা বাস্তবায়ন করতে চাই।

রোববার (০৩ ‍জুলাই) মন্ত্রণালয়/বিভাগগুলোর ২০২২-২৩ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) স্বাক্ষর এবং ‘বার্ষিক কর্মসম্পাদন পুরস্কার ২০২২’ ও ‘শুদ্ধচার পুরস্কার ২০২২’ বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব বলেন তিনি।

রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, উন্নয়ন কাজের সঙ্গে যারা জড়িত ছিলেন সবাইকে আমি আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। আপনারা আন্তরিকতা নিয়ে কাজ করেছেন বলেই আমরা কাজটা করতে পেরেছি।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের লক্ষ্যটা হলো আমরা যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসেছি সেটা আমরা বাস্তবায়ন করতে চাই। আমরা রাজনীতি করি, আমাদের দল আছে। আমরা যখন নির্বাচনে অংশ নেওয়ার সময় একটা নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, উন্নত দেশগুলো দেয়নি, আমরা বিনাপয়সায় সবাইকে করোনা টেস্ট ও ভ্যাকসিন দিয়েছি। বুস্টার ডোজও দেওয়া হচ্ছে। আমি আশা করি সবাই এ ভ্যাকসিন নেবেন।

এ সময় মুজিব বর্ষের গৃহনির্মাণ কর্মসূচির বাস্তবায়নের সঙ্গে জড়িতদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানান সরকার প্রধান।

;