বগুড়ায় হত্যা মামলার আসামিকে গলা কেটে খুন



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, বগুড়া
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

বগুড়ার শেরপুরে এনামুল হক (৩৫) নামের হত্যা মামলার আসামিকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) সকাল ৯টায় গাড়িদহ ইউনিয়নের হাপুনিয়া মহাবাগ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত এনামুল হক হাপুনিয়া কলোনি এলাকার মোতালেবের ছেলে।

স্থানীয় জানান, সাত বছর আগে হাপুনিয়া এলাকার সালমা খাতুন নামের এক নারীকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছিল এনামুল হক। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে হত্যা মামলা হলে সেই মামলায় তিন বছর কারা ভোগ করে। এরপর ৪ বছর আগে জামিনে মুক্তি পায়। জামিনে মুক্তি নিয়ে আসার পর থেকে মানসিক ভারসাম্যহীন ভাবে এলাকায় চলাফেরা করে। এনামুল অনেক রাত পর্যন্ত বাজার এলাকার আশেপাশে ঘোরাফেরা করে সকালে বাড়িতে ফিরত। বুধবার রাতেও এনামুল স্থানীয় বাজার এলাকায় ঘোরাফেরা করে।

বৃহস্পতিবার সকালে স্কুল মাঠে শহীদ মিনারের পাশে তার মরদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

নিহত এনামুল হক তার খালা জাহানারা খাতুন এর বাড়িতে থাকতেন।

জাহানারা খাতুন জানান, এনামুল মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। তাকে একটি টিনের ঘর দেওয়া হয়েছিল সেই ঘরটি বিক্রি করেছে। পরে আবারও একটি ছোট্ট কুঁড়ে ঘর দেওয়া হয়েছে সারা রাত বাজার এলাকায় ঘোরাফেরা করে সকাল বেলা বাড়িতে এসে সে ওই কুঁড়ে ঘরে ঘুমাতেন। আজ সকালে সে আর বাড়িতে ফেরেনি। সকাল সাড়ে ৮টায় এলাকাবাসী তার মরদেহ দেখে আমাকে খবর দেয়।

শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)শহীদুল ইসলাম জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। মরদেহের গলায় ও পেটে ছুরির আঘাত পাওয়া গেছে। জড়িতদের শনাক্ত করতে পুলিশ কাজ করছে।

রাজশাহীতে নিহত কিশোরের লাশ নিয়ে বিক্ষোভ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রাজশাহী
রাজশাহীতে নিহত কিশোরের লাশ নিয়ে বিক্ষোভ

রাজশাহীতে নিহত কিশোরের লাশ নিয়ে বিক্ষোভ

  • Font increase
  • Font Decrease

 

রাজশাহীতে পূর্ব শত্রুতার হত্যাকাণ্ডের শিকার কিশোরের লাশ নিয়ে বিক্ষোভ করেছেন এলাকাবাসী। সোমবার বেলা ৩টার দিকে এলাকাবাসী নগরীর রেলগেট এলাকায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। প্রায় ৪৫ মিনিট চলে তাদের এই বিক্ষোভ।

এর আগে রোববার রাত ৯টার দিকে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত কিশোরের নাম মো. সনি (১৭)। তার বাবার নাম রফিকুল ইসলাম পাখি। বাড়ি নগরীর রেলগেট এলাকায়। রফিকুল জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি। নিহত সনি এ বছরের এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল।

নগরীর হেতেমখাঁ সবজিপাড়া এলাকার সমবয়সী কিছু ছেলে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তুলে নিয়ে গিয়ে সনিকে কুপিয়ে হত্যা করে। রাতে সনিসহ তার আরও তিন বন্ধুকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের সামনে থেকে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হয়।

একপর্যায়ে সনি ও তৈয়বুর নামে আরেকজনকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। হেতেমখাঁ সবজিপাড়ায় নিয়ে দুজনকেই কোপানো হয়। পরে হাসপাতালে নেওয়া হলে সনিকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। অন্যজন চিকিৎসাধীন।

এ ঘটনায় সনির বাবা রফিকুল ইসলাম রাতেই আটজনের নাম উল্লেখ করে বোয়ালিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা করেছেন। আসামিরা হলেন- মঈন ওরফে আন্নাফ (২০), তার মা বিথী (৩০), মো. রাহিম (১৯), সিফাত (১৯), শাহী (১৯), সোরাব খান লাল (৪০), শিউলী (৪২) ও আনিম (১৮)। আসামিদের সবার বাড়ি হেতেমখাঁ সবজিপাড়া এলাকা। এদের মধ্যে বিথী রাজশাহী মহানগর মহিলা দলের ক্রীড়া সম্পাদক। শিউলী কমিটির সদস্য। আসামিদের কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

তাই সোমবার দুপুরের পর রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে সনির লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হলে স্বজনেরা লাশ নিয়ে যান নগরীর শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান চত্বরে। তারা প্রায় ৪৫ মিনিট সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। বিক্ষোভ থেকে তারা সনির খুনিদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

এ সময় সেখানে গিয়ে বক্তব্য দেন জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ও নগরীর ২৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহাতাব হোসেন চৌধুরী, ১৩ নম্বরের কাউন্সিলর আবদুল মমিন, ১৪ নম্বরের কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনার ও ১৫ নম্বরের কাউন্সিলর আবদুস সোবহান লিটন। তারা খুনিদের গ্রেপ্তারে পুলিশকে ২৪ ঘণ্টা সময় বেধে দেন।

নগরীর বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতরা ঘটনার পরই গা-ঢাকা দিয়েছেন। তাদের আটকের চেষ্টা চলছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে আসামিরা ধরা পড়বে।

;

হালদায় সাড়ে ৩ হাজার মিটার ঘেরাজাল পুড়িয়ে ধ্বংস



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, চট্টগ্রাম
হালদায় সাড়ে ৩ হাজার মিটার ঘেরাজাল পুড়িয়ে ধ্বংস

হালদায় সাড়ে ৩ হাজার মিটার ঘেরাজাল পুড়িয়ে ধ্বংস

  • Font increase
  • Font Decrease

দেশের একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস প্রজনন ক্ষেত্র ও বঙ্গবন্ধু মৎস হেরিটেজ হালদা নদী থেকে অভিযান চালিয়ে সাড়ে ৩ হাজার মিটার অবৈধ জাল জব্দ করে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।

মঙ্গলবার (৪ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২ টা থেকে ২টা পর্যন্ত নদীর মোহনা বোয়ালখালীর উত্তর কদুলখীল এলাকায় এ অভিযান চালান সদরঘাট নৌ পুশিল।

সদরঘাট নৌ পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বার্তা২৪'কে বলেন, চট্টগ্রাম অঞ্চলের নৌ পুলিশ সুপার মুমিনুল ইসলাম ভূঁইয়া স্যারের নির্দেশনায় দুপুরে এ অভিযান চালানো হয়। এসময় সাড়ে তিন হাজার মিটারের ১৫ টি চরঘেরা জাল জ্বদ করা হয়। পরবর্তীতে জালগুলো পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।

হালদা নদীতে মা মাছ ও জীববৈচিত্র্য রক্ষা করার জন্য অভিযান ও টহল অব্যাহত থাকবে বলে জানান নৌ পুলিশের এ কর্মকর্তা।

;

কোম্পানীগঞ্জে অটোরিকশা-পিকঅ্যাপ ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নোয়াখালী
কোম্পানীগঞ্জে অটোরিকশা-পিকঅ্যাপ ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২

কোম্পানীগঞ্জে অটোরিকশা-পিকঅ্যাপ ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২

  • Font increase
  • Font Decrease

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে ব্যাটারী চ্যালিত অটোরিকশা ও বেপরোয়া গতির পিকঅ্যাপ ভ্যানের মুখোমুখি সংষর্ষে ২ অটোরিকশা যাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় অটোরিকশা চালক মামুন (৪৫) গুরুতর আহত হয়েছে।  

নিহত জালাল উদ্দিন মিলন (৪৮) কবিরহাট উপজেলার চাপরাশিরহাট ইউনিয়নের হানিফ বিএসসি বাড়ির মন্নান দরবেশের ছেলে ও লিলি বেগম (৩৫) কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরএলাহী ইউনিয়নের বাদামতলী এলাকার আলী সওদাগরের স্ত্রী।  

সোমবার (৪ জুলাই) দুপুর ৩টার দিকে উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের ৬নম্বর ওয়ার্ডের বিজয় নগরের বাংলাবাজার টু সোনাপুর সড়কের তের চোরার বেড়ি দোকান ঘর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।  

চরফকিরা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জায়দল হক কচি জানান, দুপুর ৩টার দিকে উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের বাংলাবাজার এলাকা থেকে একটি পিকঅ্যাপ ভ্যান সোনাপুরের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। এসময় পিকঅ্যাপ ভ্যানটি চরফকিরা ইউনিয়নের তের চোরার বেড়ি দোকান ঘর এলাকায় পৌঁছলে চাপরাশিরহাট সংযোগ সড়ক থেকে একটি অটোরিকশা বাংলাবাজার টু সোনাপুর সড়কে উঠলে পিকআপ ভ্যানের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই মিলন গুরুত্বর আহত হয়ে মারা যায়। অপরদিকে, গুরুতর আহত অবস্থায় অটোরিকশা যাত্রী লিলি বেগম ও অটোরিকশা চালক মামুনকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক লিলি বেগমকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসির দায়িত্বে থাকা পরিদর্শ (তদন্ত) এসএম মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। স্থানীয় লোকজন পিকআপ ভ্যান ও ঘাতক চালককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে নিহতদের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

;

ডেঙ্গুতে রাজধানীতে আক্রান্ত ৩১ জন



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ডেঙ্গুতে রাজধানীতে আক্রান্ত ৩১ জন

ডেঙ্গুতে রাজধানীতে আক্রান্ত ৩১ জন

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীসহ সারা দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩৬ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকায় ৩১ জন ও ঢাকার বাইরে পাঁচজন আক্রান্ত হয়েছেন। সারা দেশে মোট ১৪৪ জন ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

সোমবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের ইনচার্জ ডা. মো. জাহিদুল ইসলাম স্বাক্ষরিত ডেঙ্গু বিষয়ক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। ১৪৪ জন ভর্তি রোগীর মধ্যে ঢাকার ৪৭টি ডেঙ্গু ডেডিকেটেড হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন ১২৫ জন। ঢাকার বাইরে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন ১৯ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, চলতি বছরে ১ জানুয়ারি থেকে ৪ জুলাই পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয় সর্বমোট এক হাজার ২৩৮ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন ১ হাজার ৯৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত কোনো রোগীর মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি। এ ছাড়া, চলতি বছরে ডেঙ্গুতে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

;