ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু ১ জুলাই



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি ১ জুলাই থেকে শুরু হবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন।

বুধবার (২২ জুন) দুপুরে রেল ভবনের সম্মেলনে কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান রেলমন্ত্রী।

তিনি বলেন, যথাক্রমে ৫ জুলাইয়ের টিকিট ১ জুলাই, ৬ জুলাইয়ের টিকিট ২ জুলাই, ৭ জুলাইয়ের টিকিট ৩ জুলাই, ৮ জুলাইয়ের টিকিট ৪ জুলাই এবং ৯ জুলাইয়ের টিকিট ৫ জুলাই বিক্রি হবে।

রেলমন্ত্রী বলেন, টিকিট ক্রয়ের ক্ষেত্রে যাত্রীরা এনআইডি বা জন্ম সনদের ফটোকপি কাউন্টারে প্রদর্শন করে টিকিট ক্রয় করতে পারবেন। অ্যাপ ও ওয়েবসাইটে অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হবে সকাল ৮টায়। কাউন্টারে বিক্রি হবে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। প্রতিটি টিকিট বিক্রি কেন্দ্রে নারী ও প্রতিবন্ধীদের জন্য একটি করে কাউন্টার থাকবে। প্রতিটি আন্তঃনগর ট্রেনে শুধু নারী ও প্রতিবন্ধী যাত্রীদের জন্য আলাদা কোচ সংযোজন করা হবে।

তিনি আরও বলেন, একজন যাত্রী সর্বোচ্চ ৪টি টিকিট কিনতে পারবেন। অগ্রিম টিকিট ফেরত নেওয়া হবে না। ঈদ স্পেশাল ট্রেনের কোনো টিকিট অনলাইনে পাওয়া যাবে না। এটি কাউন্টার থেকে সংগ্রহ করতে হবে।

বৃদ্ধের পায়ুপথে টর্চলাইট ঢুকিয়ে নির্যাতন, গ্রেফতার আরও ১



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নোয়াখালী
আব্দুল গনি

আব্দুল গনি

  • Font increase
  • Font Decrease

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে পায়ুপথে টর্চলাইট ঢুকিয়ে বৃদ্ধ শেখ নাছির উদ্দিন মাইজভান্ডারীকে (৬৮) নির্যাতনের ঘটনায় আরেক আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত আব্দুল গনি (৫৫) উপজেলার চর বৈশাখী গ্রামের ওহাব আলীর ছেলে।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) গ্রেফতারকৃত আসামিকে নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে। এর আগে, গতকাল সোমবার (৪ জুলাই) রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার চর বৈশাখী গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নোয়াখালীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো.শহীদুল ইসলাম বলেন, গত রোববার (৩ জুলাই) দিবাগত রাতে ভুক্তভোগী বৃদ্ধের ছেলে ইউপি সদস্য মো. রিপন বাদী হয়ে ৮ জনের নাম উল্লেখ করে এবং আরও অজ্ঞাত ৮-১০ জনকে আসামি করে চরজব্বার থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এরপর রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার থানারহাট বাজার থেকে প্রধান আসামি আবুল হোসেন শাহনাজকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর মামলার এজাহার নামীয় ৮ নং আসামিকে গ্রেফতার করা হয়। মামলার প্রধান আসামিকে সোমবার বিকেলে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গত শুক্রবার রাত আনুমানিক সাড়ে ১২টার দিকে নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরওয়াপদা ইউনিয়নের থানারহাট সংলগ্ন আমানতগঞ্জে শেখ নাছির উদ্দিন মাইজভান্ডারী নামে এক বৃদ্ধ নির্যাতনের শিকার হন।

ভুক্তভোগীর পরিবারের দাবি, চরওয়াপদা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান ভূঞার ইন্ধনে ৯ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি শাহনাজ ও তার লোকজন ওই বৃদ্ধের পায়ুপথে টর্চলাইট ঢুকিয়ে তাকে পাশবিক নির্যাতন করে। একটি মসজিদ নির্মাণকে কেন্দ্র করে পূর্ব শত্রুতার জেরে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলে ধারণা করছে ভুক্তভোগীর পরিবার। শুক্রবার রাতে ঘটনার পর শনিবার বৃদ্ধ নাছির উদ্দিনকে ২৫০ শয্যা নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। পরে রোববার সকালে হাসপাতালের জেনারেল সার্জন ডা. ফজলুর রহমান মানিকের নেতৃত্বে বৃদ্ধের শরীরে অস্ত্রপাচার করে টর্চলাইটি বের করা হয়। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

;

শেষদিনেও কমলাপুরে টিকিটপ্রত্যাশীদের ভিড়



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ঈদ উপলক্ষে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রির শেষদিনেও কমলাপুর রেল স্টেশনে টিকিটপ্রত্যাশীদের ভিড় দেখা গেছে।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) ঈদ যাত্রা উপলক্ষে ৯ জুলাইয়ের আগাম টিকিট বিক্রি হচ্ছে। অনেকেই টিকিটের প্রত্যাশায় রাত থেকেই লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। উদ্দেশ্য একটাই, ঈদ যাত্রার সোনার হরিণ যে করেই হোক পেতেই হবে।

আজ সকালে রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে সরেজমিনে টিকিটপ্রত্যাশীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, অনেকেই সোমবার (৪ জুলাই) থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। অনেকে আবার তারও আগ থেকে লাইনে দাঁড়িয়েছেন।

লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা টিকিট প্রত্যাশী রহমান বলেন, পরিবারের সদস্য নিয়ে বাড়ি যেতে হবে, চারটি টিকিট লাগবেই। ঈদে ট্রেনের চেয়ে আরামদায়ক ও নিরাপদ আর কোনো পরিবহন নেই। তাই একা কষ্ট করলেও পরিবার অন্তত নিরাপদে পৌঁছাক সেজন্য রাত থেকে লাইনে দাঁড়িয়েছি।

‘টিকিট যার ভ্রমণ তার’ নিশ্চিত করতে যাত্রীদের এনআইডি বা জন্ম নিবন্ধন সনদের ফটোকপি কাউন্টারে প্রদর্শন করে টিকিট কিনতে হচ্ছে। একজন যাত্রী একসাথে সর্বোচ্চ চারটি টিকিট কিনতে পারবেন। এবার ঢাকার কমলাপুর স্টেশনসহ পাঁচটি স্থানে অগ্রিম টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে।

রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ৩, ৪ জুলাই দেওয়া হয়েছে ৭ ও ৮ জুলাইয়ের টিকিট। আর আজ দেওয়া হচ্ছে ৯ জুলেইয়ের টিকিট। টিকিট কেনার সময় দেখাতে হবে জাতীয় পরিচয়পত্র। ৫০ ভাগ টিকিট পাওয়া যাবে কাউন্টারে এবং বাকি টিকিট মিলবে অনলাইনে।

কমলাপুর ছাড়াও রাজধানীর তেজগাঁও, বিমানবন্দর, বনানী ও গুলিস্তানের পুরানো রেলস্টেশনে আগাম টিকিট বিক্রি হচ্ছে। আর ৭ জুলাই থেকে বিক্রি করা হবে ফিরতি যাত্রার টিকিট।

১১ জুলাইয়ের ট্রেনের ফিরতি টিকিট ৭ জুলাই, ১২ জুলাইয়ের টিকিট ৮ জুলাই, ১৩ জুলাইয়ের টিকিট ৯ জুলাই এবং ১৪ ও ১৫ জুলাইয়ের টিকিট বিক্রি করা হবে ১১ জুলাই।

ঈদুল আজহা উপলক্ষে যাত্রীদের সুবিধার্থে ৬ জোড়া বিশেষ ট্রেন পরিচালনা করা হবে। সেগুলো হলো- দেওয়ানগঞ্জ স্পেশাল, চাঁদপুর স্পেশাল ১, ২, বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম (পঞ্চগড়) ঈদ স্পেশাল, শোলাকিয়া স্পেশাল ১, ২।

;

সৌদি আরব পৌঁছেছেন ৫৮ হাজার ১১৮ হজযাত্রী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বিমান বাংলাদেশ এয়ার লাইন্সসহ তিনটি এয়ার লাইন্সের ১৬০টি হজ ফ্লাইটে এ পর্যন্ত ৫৮ হাজার ১১৮ জন হজযাত্রী সৌদি আরব পৌঁছেছেন।

সোমবার (৪ জুলাই) ঢাকায় হজ অফিসের এক বুলেটিনে এই তথ্য জানানো হয়।

বুলেটিনে বলা হয়, এ পর্যন্ত সরকারি ব্যবস্থাপনার বিমান বাংলাদেশ এয়ার লাইন্সের ৮৭টি, সৌদি এয়ার লাইন্সের ৬১টি এবং ফ্লাইনাস এয়ার লাইন্সের ১২টি হজ ফ্লাইটে এসব হজযাত্রী নিরাপদে সৌদি আরবে অবতরণ করেন।

বুলেটিনে আরও বলা হয়, মোট ১৬০টি হজ ফ্লাইটে ৪ হাজার ৮৯ জন সরকারি ব্যবস্থাপনায় এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৫৪ হাজার ২৯ জন হজযাত্রী সৌদি আরব গিয়েছেন।

বাংলাদেশের হজযাত্রীদের মধ্যে ৬৫ শতাংশ পুরুষ ও ৩৫ শতাংশ মহিলা হজযাত্রী রয়েছেন। এবার বাংলাদেশের হজযাত্রীদের মধ্যে ৪১ বছর থেকে ৬০ বছরের মধ্যে হজযাত্রীর সংখ্যা হচ্ছে ৬৫ দশমিক ৮১ শতাংশ। এছাড়া হজ যাত্রীদের মধ্যে ৩৭ শতাংশ হচ্ছেন ঢাকা বিভাগের হজ যাত্রী।

গত ৫ জুন হজ ফ্লাইট শুরু হয়েছে। হজযাত্রী সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় ৫ জুলাই পর্যন্ত হজ ফ্লাইটের সময় বৃদ্ধি করা হয়। আগামী ৮ জুলাই পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে। ১৪ জুলাই হাজিদের ফিরতি ফ্লাইট শুরু হবে। শেষ ফিরতি ফ্লাইট হবে ৪ আগস্ট।

এ পর্যন্ত বিভিন্ন কারণে ৪ জন নারীসহ ১২ জন হজযাত্রী মারা গেছেন। এরমধ্যে মক্কায় ১০ জন ও মদিনায় ২ জন মারা যান।

;

কোম্পানীগঞ্জে ৯ রোহিঙ্গা আটক



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নোয়াখালী
কোম্পানীগঞ্জে ৯ রোহিঙ্গা আটক

কোম্পানীগঞ্জে ৯ রোহিঙ্গা আটক

  • Font increase
  • Font Decrease

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় হাতিয়ার ভাসানচর আশ্রয়ণ কেন্দ্র থেকে পালিয়ে আসা ৯ রোহিঙ্গা নাগরিককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয় বাসিন্দারা। আটককৃতদের মধ্যে ২ নারী, ৪ শিশুসহ ৩ যুবক রয়েছেন।

সোমবার (৪ জুলাই) রাত ১০টার দিকে আটককৃত রোহিঙ্গাদের পুলিশে সোপর্দ করা হয়। এর আগে একই দিন রাত ৯টার দিকে উপজেলার চরকাঁকড়া ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের পেশকারহাট রাস্তার মাথা এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃত রোহিঙ্গারা হলো- ভাসানচর আশ্রয়ণ কেন্দ্রের ৮৩ নং ক্লাস্টারের মৃত লোকমান হাকিমের ছেলে নুরুল হাকিম (২৪) ২৮নং ক্লাস্টারের খলিলের ছেলে ওমর ফারুক (১৪) ৫৪নং ক্লাস্টারের নুর কবিরের ছেলে মাজেদা বেগম (১৫) ৭১নং ক্লাস্টারের মনিরুল হকের স্ত্রী মমতাজ বেগম (২০) একই ক্লাস্টারের মনিরুল হকের মেয়ে মনিকা বেগম (৮) ১৪নং ক্লাস্টারের নুরুল আমিনের স্ত্রী হোসনেয়ারা (২০) একই ক্লাস্টারের নুরুল আমিনের ছেলে নুর ছাদেক (৪) আনোয়োর ছাদেক (২) ৮৩নং ক্লাস্টারের মো.মরি আহাম্মদের ছেলে জাহেদুল্লা (২১)।

চরকাঁকড়া ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য দিদার হোসেন সৌরভ জানান, সোমবার রাত পৌনে ৯টার দিকে উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের বাংলাবাজার এলাকা থেকে কয়েকটি মোটরসাইকেল যোগে ৯ জন রোহিঙ্গা চরকাঁকড়া ইউনিয়নের পেশকারহাট রাস্তার মাথা এলাকায় আসে। তখন হাতে-পায়ে কাদা মাখা অবস্থায় দুই রোহিঙ্গা নারী, ৪ শিশু ও ৩ যুবক ওই এলাকায় ঘুরাফেরা করেন। বিষয়টি স্থানীয়দের সন্দেহ হলে আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে তারা নিজেদের রোহিঙ্গা বলে স্বীকার করেন।

আটককৃত রোহিঙ্গারা জানান, চট্রগ্রামের চকরিয়া এলাকায় তাদের আত্মীয় থাকে। তারা আত্মীয় স্বজনের সাথে দেখা করতে ভাসানচর আশ্রয়ণ ক্যাম্প থেকে দালালের সহযোগিতায় পালিয়ে আসে। পরে রাত ১০টার দিকে কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশের কাছে তাদের সোপর্দ করা হয়।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.সাদেকুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সোমবার ভোর রাতের দিকে দালালের মাধ্যমে তারা ভাসানচর আশ্রয়ণ কেন্দ্র থেকে পালিয়ে আসে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পরবর্তীতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

;