'বাজেটে গণতান্ত্রিক ঘাটতি রয়েছে'



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
‘জাতীয় বাজেট ২০২২-২৩ তারুণ্যের প্রাপ্তি ও প্রত্যাশা’ শীর্ষক সভা

‘জাতীয় বাজেট ২০২২-২৩ তারুণ্যের প্রাপ্তি ও প্রত্যাশা’ শীর্ষক সভা

  • Font increase
  • Font Decrease

'দেশের উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রতিফলিত হয় বাজেটে। তাই বাজেটে জনগণের সম্পৃক্ততা প্রয়োজন। কিন্তু সেটা অনেক ক্ষেত্রে উপেক্ষিত হচ্ছে। বাজেট প্রণয়নের ক্ষেত্রে গণতান্ত্রিক অনেক ঘাটতি রয়েছে। সংসদ সদস্যদের অংশগ্রহণ অত্যন্ত সীমিত।'

মঙ্গলবার (২৮ জুন) সংসদ ভবনের পার্লামেন্ট মেম্বার্স ক্লাবে অনুষ্ঠিত ‘জাতীয় বাজেট ২০২২-২৩ তারুণ্যের প্রাপ্তি ও প্রত্যাশা’ শীর্ষক সভায় আলোচকেরা এসব কথা বলেন। সভার আয়োজন করে গণতান্ত্রিক বাজেট আন্দোলন, দ্য আর্থ, ক্লাইমেট পার্লামেন্ট, তারুণ্যের বাজেট আন্দোলন, সেইফটি এন্ড রাইটস সোসাইটি ও দি এশিয়া ফাউন্ডেশন।

গণতান্ত্রিক বাজেট আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক মনোয়ার মোস্তফা বলেন, ‘বাজেট প্রণয়নের ক্ষেত্রে গণতান্ত্রিক অনেক ঘাটতি রয়েছে। এখানে সংসদ সদস্যদের অংশগ্রহণ অত্যন্ত সীমিত। সংসদে খুবই কম সময় বাজেট আলোচনা হয়, এটা যথেষ্ট না। এই বাজেটে স্থানীয় সরকারের কোন জনপ্রতিনিধি বা জনগণের তেমন সম্পৃক্ততা নেই। দেশের উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় জনগণের অংশগ্রহণ নেই। পুরোটা আমলাতান্ত্রিক প্রক্রিয়া।’

তরুণদের সঙ্গে নিয়ে ৫ বছর ধরে বাজেট অলিম্পিয়াড আয়োজন করা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, বাজেট সম্পর্কে তরুণদের সচেতন হতে হবে। তাদের জানতে হবে বাজেটে তাদের কতটুকু হিস্যা রয়েছে।’

সংসদ সদস্য শামীম হায়দার পাঠোয়ারী বলেন, ‘দেশে বাজেট কখনো গণতান্ত্রিক হয় না। মন্ত্রীরা ভূমিকা রাখে। সংসদ সদস্যদের ভূমিকা থাকে খুবই সামান্য।’ তিনি বলেন, সংসদে তরুণ না থাকলে তারুণ্য নির্ভর বাজেট হবে না। সংসদ সদস্য ও সচিবদের মধ্যে যদি ৫০ শতাংশ তরুণ থাকে তাহলে বাজেটে তার ইতিবাচক প্রভাব পড়বে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংসদ সদস্য তানভীর শাকিল জয়। তিনি দাবি করেন সকলের সঙ্গে আলোচনা করে বাজেট প্রণয়ন করা হয়। তবে বাজেট বরাদ্দের কতটা বাস্তবায়ন হয় সেটা খেয়াল রাখা দরকার। দ্য আর্থের নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ মামুন মিয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য মীর মুস্তাকিম আহমেদ রবি, আশিক উল্যাহ রফিক, আহসান আদেলুর রহমান, সেলিম আলতাফ জর্জ ও সেইফটি এন্ড রাইটস সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক সেকেন্দার আলী মিনা।

এতে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আসা প্রায় অর্ধশত শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। তারা বাজেট বিষয়ে নিজেদের মতামত তুলে ধরেন। তরুণদের বক্তব্যে প্রাধান্য পেয়েছে শিক্ষা, কর্মসংস্থান, জলবায়ু পরিবর্তন ও প্রবাসী শ্রমিক ইস্যু।

বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরা ট্রলার ডুবি, নিখোঁজ ১১ জেলে



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নোয়াখালী
বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরা ট্রলার ডুবি, নিখোঁজ ১১ জেলে

বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরা ট্রলার ডুবি, নিখোঁজ ১১ জেলে

  • Font increase
  • Font Decrease

নোয়াখালী হাতিয়ার বঙ্গোপসাগরে মাছধরা ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটেছে। এতে চার জেলে জীবিত উদ্ধার হলেও নিখোঁজ রয়েছে ১১ জন। মঙ্গলবার দুপুরে জীবিত উদ্ধার হওয়া জেলেরা এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

দূর্ঘটনার কবলে পড়া ট্রলারের মালিক হাতিয়ার জাহাজমারা আমতলি গ্রামের বাসিন্দা লুৎফুল্লাহিল মজিব নিশান জানান, মঙ্গলবার ভোরে ট্রলারটি ঝড়ের কবলে পড়ে পটুয়াখালীর জেলার দক্ষিণে বঙ্গোপসাগরে ডুবে যায়। পরে পাশে থাকা একটি ট্রলার চার জেলেকে উদ্ধার করে পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া উপজেলার মহিপুর নিয়ে আসে। উদ্ধার হওয়া জেলেরা মঙ্গলবার বিকালে মোবাইলে এই সংবাদ জানান তাকে।

দূর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় সাগর উত্তাল থাকায় ট্রলার ও নিখোঁজ জেলেদের উদ্ধারে চেষ্টা করা যাচ্ছে না বলে জানান তিনি।

নিখোঁজ জেলে  মো: সোহেলের (২২) ভাই মোটরসাইকেল চালক মো: রাসেল জানান, তার ভাইসহ ১৫ জন জেলেকে নিয়ে  ট্রলারটি ঝড়ের কবলে পড়ে উল্টে যায়।  চারজনকে অন্য একটি ট্রলার উদ্ধার করে। তার ভাইসহ ১১ জন জেলে এখনও নিখোঁজ রয়েছে।

হাতিয়ার জাহাজমারা ইউপি চেয়ারম্যান মাসুম বিল্লাহ জানান, দূর্ঘটনার কবলে পড়া ট্রলারটি জাহাজমারা আমতলী ঘাটের। নিখোঁজ ১৩ জেলের মধ্যে ৫ জনের বাড়ী জাহাজমারা আমতলী গ্রামে। অন্য ৮ জনের বাড়ী একই উপজেলার হরনী ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডে। সবার বাড়ীতে শোকের মাতাম চলেছে।

হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন জানান, হাতিয়া উপকূল থেকে ১০০ কিলোমিটার দক্ষিণে বঙ্গোপসাগরে একটি ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় চারজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। ১১ জন জেলে নিখোঁজ রয়েছেন।

;

শোকের মাসে জলসা চট্টগ্রাম ক্লাবে, অবশেষে বাতিল



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, চট্টগ্রাম
শোকের মাসে জলসা চট্টগ্রাম ক্লাবে, অবশেষে বাতিল

শোকের মাসে জলসা চট্টগ্রাম ক্লাবে, অবশেষে বাতিল

  • Font increase
  • Font Decrease

আগস্ট ও মহররম মাসের শোকের ভেতর ভূরিভোজসহ গানের জলসা আয়োজন করে সবাইকে চমকে দিয়েছিল এশিয়ার প্রাচীনতম অভিজাত ক্লাব হিসেবে বিবেচিত চট্টগ্রাম ক্লাব (সিসিএল)।

সূত্রের খবর, ব্যাপক সমালোচনার মুখে অবশেষে অনুষ্ঠানটি বাতিল করল চট্টগ্রাম ক্লাব।

আগামী ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যাকাণ্ডের দিন। আগস্ট জুড়েই তাই শোকের আবহ থাকে বাংলাদেশে। এ মাসে আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠান আয়োজনে বিরত থাকে সবাই।

আসছে ১১ আগস্ট সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় বিশাল এক গানের জলসা আয়োজন করেছিল চট্টগ্রাম ক্লাব। গ্র্যান্ড মিউজিক নাইট ২০২২। তাতে মনোরঞ্জনের জন্য আসার কথা ছিল অল ইন্ডিয়া সা রে গা মা পা চ্যাম্পিয়ন ২০০৫ ও বলিউড প্লেব্যাক সিঙ্গার দেবজিত সাহার।

চট্টগ্রাম ক্লাবের এমন আয়োজন নিয়ে এরই মধ্যে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়েছে। শোকের মাসের আবহ ফিকে করতে এটা কোনো উদ্দেশ্যমূলক আয়োজন কি না তার যথাযথ তদন্ত হওয়া উচিত বলেও মনে করছেন অনেকে।

;

শোকের মাসে জলসা চট্টগ্রাম ক্লাবে, আসছে বলিউড স্টার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, চট্টগ্রাম
চট্টগ্রাম ক্লাবের লগো

চট্টগ্রাম ক্লাবের লগো

  • Font increase
  • Font Decrease

আগস্ট ও মহররম মাসের শোকের ভেতর ভূরিভোজসহ গানের জলসা আয়োজন করে সবাইকে চমকে দিয়েছে এশিয়ার প্রাচীনতম অভিজাত ক্লাব হিসেবে বিবেচিত চট্টগ্রাম ক্লাব (সিসিএল)।

আগামী ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যাকাণ্ডের দিন। আগস্ট জুড়েই তাই শোকের আবহ থাকে বাংলাদেশে। এ মাসে আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠান আয়োজনে বিরত থাকে সবাই।

২০০৪ খ্রিষ্টাব্দের ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার সমাবেশে করা গ্রেনেড হামলায় ২৪ জন নিহত হওয়ার পর থেকে আরও বেশি শোকাবহ মাস হয়ে উঠেছে আগস্ট। তারওপর চলছে দেশের সর্ববৃহৎ সম্প্রদায় মুসলমানদের শোকের মাস মহররম। কিন্তু ওসবে থোড়াই কেয়ার চট্টগ্রাম ক্লাবের।

আসছে ১১ আগস্ট সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় বিশাল এক গানের জলসা আয়োজন করছে চট্টগ্রাম ক্লাব। নাম দিয়েছে গ্র্যান্ড মিউজিক নাইট ২০২২। তাতে মনোরঞ্জনের জন্য আসছেন অল ইন্ডিয়া সা রে গা মা পা চ্যাম্পিয়ন ২০০৫ ও বলিউড প্লেব্যাক সিঙ্গার দেবজিত সাহা।

চট্টগ্রাম ক্লাবের চেয়ারম্যান নাদের খান এর আমন্ত্রণপত্রে দেখা যাচ্ছে, তিনিই অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি। ক্লাবের সব সদস্যকে সপরিবারে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন তিনি। সবাইকে বলেছেন, স্মার্ট ক্যাজুয়াল পোশাকে অনুষ্ঠানে আসতে। সংগীত উপভোগের পাশাপাশি অনুষ্ঠানে সবার জন্য থাকছে ভূরিভোজের আয়োজন। তবে ১২ বছরের কম বয়সীদের অনুষ্ঠানে আনতে বারণ করা হয়েছে।


পুরো আয়োজনের পৃষ্ঠপোশকতায় আছেন- ইঞ্জিনিয়ার আলি আহমেদ, শাহজাদা আলম, সোলায়মান আলম শেঠ, নুরুল আবেদিন (নোবেল), ক্যাপ্টেন সৈয়দ ইউসুফ আলী, ফাহিম আহমেদ ফারুক চৌধুরী, ইয়াকুব, মোরশেদ কাদের চৌধুরী, মোহাম্মদ ইমরান আলী ভুঁইয়া, ইমরান ফাহিম নুর, ইঞ্জিনিয়ার মো. গোলাম সারওয়ার, কোহিনুর কামাল, এসএস ট্রেডিং।

চট্টগ্রাম ক্লাবের এমন আয়োজন নিয়ে এরই মধ্যে সমালোচনা শুরু হয়েছে। শোকের মাসের আবহ ফিকে করতে এটা কোনো উদ্দেশ্যমূলক আয়োজন কি না তার যথাযথ তদন্ত হওয়া উচিত বলেও মনে করছেন অনেকে।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রামের এসএস খালেদ রোডে অবস্থিত চট্টগ্রাম ক্লাবে গত পাঁচ বছরে অন্তত ২০ কোটি টাকার রাজস্ব ফাঁকির তথ্য উদ্ঘাটন করেছে চট্টগ্রাম ভ্যাট কমিশনারেট। ক্লাবটির বিরুদ্ধে মদের বারসহ বিভিন্ন সেবায় বিপুল পরিমাণ ভ্যাট ও সম্পূরক শুল্ক ফাঁকির অভিযোগ আছে। শুধু তাই নয়, ক্লাবের অডিটোরিয়াম, ব্যাঙ্কোয়েট হল, লাউঞ্জ, লাউঞ্জ স্টোর, ক্যাটারিং, মেস স্টোর, সেলুন, কনফারেন্স হল, গেস্ট হাউস, লন ক্যাফে, বেকারি স্টোর, মিষ্টান্ন, কনফেকশনারি, সুইমিং পুলসহ বিভিন্ন সেবার বিপরীতে ক্লাবটির বিপুল পরিমাণ ভ্যাট ফাঁকির প্রমাণ পেয়েছে ভ্যাট গোয়েন্দারা। যদিও ক্লাব কর্তৃপক্ষের দাবি, যেসব পণ্য ও সেবায় ভ্যাট রয়েছে সেসব ক্ষেত্রে নিয়ম মেনে শতভাগ ভ্যাট দেওয়া হয়েছে।

;

ছুটিতে এসে সড়কে প্রাণ গেল সেনা সদস্যের



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, সিরাজগঞ্জ
ছুটিতে এসে সড়কে প্রাণ গেল সেনা সদস্যের

ছুটিতে এসে সড়কে প্রাণ গেল সেনা সদস্যের

  • Font increase
  • Font Decrease

মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সিরাজগঞ্জে রিয়ান বাবু (২১) নামে এক সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় তার চাচাতো ভাই আবু বকর সিদ্দিক (২২) গুরুতর আহত হয়েছেন। তাঁকে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) দুপুরে সিরাজগঞ্জ-কাজীপুর আঞ্চলিক সড়কের সদর উপজেলার পিপুল বাড়িয়া বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত সেনা সদস্য রিয়ান বাবু কাজীপুর উপজেলার পলাশপুর গ্রামের হেলাল উদ্দিনের ছেলে।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্তকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবির বলেন, রিয়ান বাবু যশোর সেনানিবাসে কর্মরত ছিলেন। সোমবার তিনি ছুটিতে বাড়িতে আসেন। আজ দুপুরে চাচাতো ভাই আবু বকর সিদ্দিককে সাথে নিয়ে মোটর সাইকেলযোগে বাড়ি থেকে পিপুলবাড়িয়া বাজারে ঘুরতে বের হন। তিনি পিপুলবাড়িয়া বাজারের সামনে শ্যামপুর সেতু এলাকায় পৌছালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। এতে সেনা সদস্য রিয়ান বাবু ও তার চাচাতো ভাই গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক রিয়ান বাবুকে মৃত ঘোষণা করেন।

আহত আবু বকর সিদ্দিক বলেন, আমরা দুই ভাই মোটরসাইকেলে বাড়ি থেকে বের হই। রিয়ান বাবু মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলেন। পেছনে ছিলাম আমি। পিপুলবাড়িয়ার শ্যামপুর সেতু এলাকায় পৌছালে একটি ব্যাটারিচালিত অটোভ্যান সামনে এসে পড়ে।

এ সময় মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেললে আমরা দুজন আহত হই। পরে স্থানীয় লোকজন আমাদের হাসপাতালে নিয়ে আসে। এরপর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক রিয়ান বাবুকে মৃত ঘোষণা করে।

সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডা. শামীমুর রহমান বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই সেনা সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। তার মৃতদেহ হাসপাতালে রয়েছে।

;