‘বিএনপি আন্দোলনের ডাক দিচ্ছে, কিন্তু সব জায়গায় ব্যর্থ’



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল

  • Font increase
  • Font Decrease

বিএনপি অনেক প্রোগ্রাম দিচ্ছে। আন্দোলনের ডাক দিচ্ছে। সব জায়গায় তারা ব্যর্থ বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি বলেন, বিএনপির কোনও আন্দোলনে আমরা বাধা দিইনি। বিএনপি আন্দোলন করবে? তাদের সঙ্গে লোকজন আছে? তাদের সঙ্গে কোন লোকজন নেই। এদেশের মানুষ আর কখনো অন্ধকারে যেতে চায় না। এদেশের মানুষ একবার আলোকিত হয়েছে, আলো ছেড়ে অন্ধকারে যাবে না।

মঙ্গলবার (০২ আগস্ট) দুপুর আড়াইটার দিকে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিএনপির নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলনে আমাদের কোনো আপত্তি নেই। তবে রাজপথ বন্ধ, জানমালের ক্ষতি করলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যবস্থা নিবে।

তিনি আরও বলেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বাংলাদেশে একটি পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। ডিজেল-ফার্নেস ওয়েল সরবরাহ ঘাটতি হয়েছে। বিদ্যুৎ তৈরির যে ক্ষমতা এখনো আছে আমাদের, যা ধীরে ধীরে আরও বাড়ছে। সেখানে কোনো ঘাটতি নেই। ডিজেল ফার্নেসওয়েল এগুলো সময়মতো আমরা পাচ্ছি না। এজন্য এক ঘণ্টা লোডশেডিং।

এক বছরে টাকার মূল্য ১২ শতাংশের বেশি কমেছে



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আমদানি মূল্য বৃদ্ধি এবং রেমিট্যান্স প্রবাহ কমায় দেশের বৈদেশিক মুদ্রার বাজারে মার্কিন ডলারের ঘাটতি তৈরি হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ ব্যাংক রিজার্ভ থেকে ডলার বিক্রি করছে। তবুও কমছে না ডলারের তেজি ভাব, কাটছে না সংকট।

ডলারের বাজারে অস্থিরতা চলছে গত কয়েক মাস ধরেই। ফলে টাকার বিপরীতে এর দাম বেড়েই চলেছে। বাংলাদেশ ব্যাংক এখন বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর কাছে ৯৫ টাকা দরে ডলার বিক্রি করছে। গত বছরের জুলাইয়ে প্রতি ডলারের বিপরীতে বিনিময় হার ছিল ৮৪ টাকা ৮০ পয়সা। অর্থাৎ এক বছরে টাকার মূল্য ১২ শতাংশের বেশি কমেছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বৈদেশিক ঋণ পরিশোধের চাপ বেড়ে যাওয়া, এলএনজি আমদানির দেনা পরিশোধ, রফতানি আয়ের চেয়ে আমদানি ব্যয় মাত্রাতিরিক্ত বৃদ্ধি এবং দেশ থেকে টাকা পাচারসহ নানা কারণে বাজারে ডলারের সংকট সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে ডলারের দাম বেড়ে যাচ্ছে। ডলারের দাম বাড়ায় আমদানি ব্যয় বেড়ে যাচ্ছে। ফলে ভোগ্যপণ্য, জ্বালানি তেল, শিল্পের কাঁচামালসহ সব আমদানি পণ্যের ব্যয় বাড়ছে। এতে মূল্যস্ফীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এদিকে সরকার ডলারের লাগাম টেনে ধরতে বিলাসী পণ্য আমদানি নিরুৎসাহিত করা এবং সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের বিদেশ ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দেওয়াসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে। তবুও পাগলা ঘোড়ার মতো ছুটছে ডলারের মূল্য।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্রে জানা যায়, ডলারের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে চলতি অর্থবছরের শুরু থেকে এ পর্যন্ত রিজার্ভ থেকে ১৫০ কোটি (দেড় বিলিয়ন) ডলার বিক্রি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

ব্যাংক কর্মকর্তারা বলছেন, আমদানি ব্যয় বৃদ্ধি ও প্রবাসী আয় বা রেমিট্যান্স কমে যাওয়ায় দেশে ডলারের তীব্র সংকট তৈরি হয়েছে। এ জন্য প্রতিনিয়ত বাড়ছে ডলারের দাম। এতে রিজার্ভ থেকে ডলার ছেড়ে বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা করছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। তবুও প্রতিনিয়ত দামও বাড়াচ্ছে। এর পরও সংকট কাটছে না।

;

কোথায় কখন লোডশেডিং আজ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

জ্বালানি সংকটের কারণে বিদ্যুৎ উৎপাদনের ঘাটতির জন্য দেশজুড়ে এলাকাভিত্তিক আজও লোডশেডিং শুরু হচ্ছে। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী বুধবারের (১০ আগস্ট) তালিকা প্রকাশ করেছে বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানিগুলো।

ঢাকা বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানি (ডিপিডিসি), ঢাকা ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি (ডেসকো), নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি (নেসকো), ওয়েস্টজোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউসন কোম্পানি (ওজোপাডিকো), বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি) এবং বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিপিডিবি) এর ওয়েবাসাইটের নির্দিষ্ট লিংককে গিয়ে এই তালিকা দেখতে পারবেন গ্রাহকরা।

আজকে কোন এলাকায় কখন লোডশেডিং হবে, এর সূচি দেওয়া হয়েছে। দেখে নেওয়া যাক।

https://www.desco.org.bd/bangla/loadshed_b.php

http://www.wzpdcl.org.bd/

https://nesco.portal.gov.bd/site/page/13ccd456-1e1d-4b24-828d-5811a856f107

http://reb.portal.gov.bd/site/page/c65ac273-d051-416f-9a93-5cd300079047

https://bpdb.portal.gov.bd/site/page/cafea028-95e6-4fca-8fea-e4415aef9a60

https://www.desco.org.bd/bangla/loadshed_b.php

জ্বালানি সাশ্রয়ে উচ্চ ব্যয়ের ডিজেলচালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ রাখার সরকারি সিদ্ধান্তের পর সরবরাহ সংকটে দেশজুড়ে প্রতিদিন সূচি ধরে কোথাও এক ঘণ্টা আবার কোথাও ২ ঘণ্টা করে লোডশেডিং করা শুরু হয় মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) থেকে।

এর আগে ১৮ জুলাই লোডশেডিংয়ের সিদ্ধান্ত সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বিদ্যুৎ ও জ্বালানিবিষয়ক সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

;

ভোলার ঢালচরে মাছ ধরার দুটি ট্রলার ডুবি, ৮ জেলে নিখোঁজ



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ভোলা
ভোলার ঢালচরে মাছ ধরার দুটি ট্রলার ডুবি, ৮ জেলে নিখোঁজ

ভোলার ঢালচরে মাছ ধরার দুটি ট্রলার ডুবি, ৮ জেলে নিখোঁজ

  • Font increase
  • Font Decrease

ভোলার ঢালচরে বৈরি আবহাওয়ায় কবলে পরে  মাছ ধরার দুটি ট্রলার ডুবে গেছে ১০ জেলে জীবিত উদ্ধার, ৮ জেলে নিখোঁজ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আজ মঙ্গলবার (৯ আগস্ট)  বিকেলে বয়ার চরের পূর্ব দিকে ১৩ জেলে নিয়ে ইউসুফ মাঝির ট্রলার ডুবে যায়। খবর পেয়ে অন্য ট্রলারের মাঝিরা ৫ জনকে জীবিত উদ্ধার করে। এখনও ৮ জেলের সন্ধান পাওয়া যায়নি। এছাড়া সকালে ঢালচরের তারুয়া এলাকায় ৫ জেলে নিয়ে অপর একটি ট্রলার ডুবে গেছে। এতে হতাহতের কোন ঘটনা ঘটেনি। ট্রলার মাঝি ইউসুফ মাঝি জানিয়েছেন, তার ৮ জেলের ভাগ্যে কি রয়েছে তা এখনো জানা সম্ভব হয়নি। বৈরী আবহাওয়া এবং গভীর অন্ধকারের কারনে তাদের উদ্ধার করা সম্ভব হচ্ছে না। কোস্ট গার্ড কিংবা নৌ পুলিশ এখনও উদ্ধার কাজ শুরু করেনি।

কোস্ট গার্ড দক্ষিণ জোন ভোলার মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটানেন্ট কে.এম শাফিউল কিঞ্জল জানান, যে দুটি ট্রলার ডুবছে সে বিষয়ে কোস্টগার্ড অবগত রয়েছে। এর মধ্যে একটি ট্রলারের সবাইকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। অন্য ট্রলারের যারা নিখোঁজ রয়েছে তাদেরকে উদ্ধারের জন্য কোস্টগার্ডের পূর্ব এবং পশ্চিম যোনকে জানানো হয়েছে। তারা উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করবে। এছাড়া কোস্টগার্ড দক্ষিণ জোনের সমুদ্রগামী জাহাজ না থাকায় তারা এখনও উদ্ধার কাজ শুরু করতে পারেনি। তবে আগামীকাল সকালে নিখোঁজ জেলেদের উদ্ধারে  কাজ শুরু করবেন বলেও জানান তিনি।

;

‘আমরা অর্থের ঘাটতিতে এখন কিছুটা অসুবিধায় আছি’



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান

  • Font increase
  • Font Decrease

বৈশ্বিক পরিস্থিতির প্রভাব বাংলাদেশের অর্থনীতিতে পড়ছে বলে মন্তব্য করেছন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। তিনি বলেছেন, আমরা অর্থের ঘাটতিতে এখন কিছুটা অসুবিধায় আছি। এ সমস্যা আমাদের নয়। অন্য রাষ্ট্রের তৈরি সমস্যা হঠাৎ আমাদের ওপর এসে পড়েছে। 

সোমবার সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জ উপজেলার এফআইভিডিবি হলে স্বেচ্ছাধীন তহবিল থেকে আর্থিক অনুদান বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আমরা বিদ্যুৎ দিয়েছি ঘরে ঘরে। এখন বিদ্যুৎ একটু কম পেলেও মাসখানেক পরই সব ঠিক হয়ে যাবে। অর্থের ঘাটতিতে পড়ায় এই সময়ে আমরা কিছুটা অসুবিধায় আছি। এই সমস্যা আমাদের তৈরি নয়, অন্য রাষ্ট্রের তৈরি সমস্যা আমাদের ওপর এসে পড়েছে। ধৈর্য্য ধারণ করতে হবে। সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে। 

এম এ মান্নান আরও বলেন, এইবারের বন্যায় গরিবের কষ্ট হয়েছে বেশি। কাঁচা ঘরবাড়ি ভেসে গেছে। সরকার তাদের সহায়তা করছে, আরও করবে।

সরকারকে একটু সময় দেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, শেখ হাসিনার সরকার গরিবের সরকার। উপস্থিত লোকজনকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আপনারা ভোট দিয়েছেন, এ জন্য গরিবের সরকার ক্ষমতায় আছে। আবারও ভোট দেওয়ার সময় আসবে, গরিবের কাজ করে যারা, তাদেরই ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

আর্থিক অনুদান বিতরণ অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, শান্তিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আনোয়ারুজ্জামান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাষক নুর হোসেন প্রমুখ।

;