রাঙ্গাকে বাদ দিয়েই রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রংপুর
রাঙ্গাকে বাদ দিয়েই রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন

রাঙ্গাকে বাদ দিয়েই রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন

  • Font increase
  • Font Decrease

রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির পূর্বের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে। দলটির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু এমপির সুপারিশে কমিটি অনুমোদন করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি। এতে বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল মাসুদ চৌধুরী নান্টুকে আহ্বায়ক ও হাজী আব্দুর রাজ্জাককে সদস্য সচিব করা হয়েছে। বিলুপ্ত ওই কমিটির সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন মসিউর রহমান রাঙ্গা।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জাতীয় পার্টির দপ্তর সম্পাদক-২ এম এ রাজ্জাক খান।
অনুমোদন দেয়া আহ্বায়ক কমিটির অন্যরা হলেন যুগ্ম আহ্বায়ক আবু নাছের শাহ মোহাম্মদ মাহবুবার রহমান (পীরগাছা), সামছুল ইসলাম (গঙ্গাচড়া), আজমল হোসেন লেবু (রংপুর সদর), অ্যাডভোকেট মোকাম্মেল হোসেন চৌধুরী (বদরগঞ্জ), সদস্য গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি (রংপুর সদর), মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা (রংপুর সদর), এইচ এম শাহরিয়ার আসিফ (রংপুর সদর), এস এম ইয়াসির (রংপুর সদর), ডা. ইখলাস (গঙ্গাচড়া), ফৈরদৌসি বেগম মালা (রংপুর সদর), অধ্যক্ষ নাহিদ ইয়াসমিন (রংপুর সদর), শাহিনুর রহমান মার্শাল (তারাগঞ্জ), ভিপি আলাউদ্দিন মিয়া (রংপুর সদর), অ্যাডভোকেট শাহীন (কাউনিয়া), অ্যাডভোকেট আমজাদ হোসেন (কাউনিয়া), হাসানুজ্জামান নাজিম ( রংপুর সদর), কাজলী বেগম (রংপুর সদর), মেজবাহুল ইসলাম মিলন চৌধুরী (মিঠাপুকুর), মাসুদার রহমান মিলন (রংপুর সদর), মাসুদ নবী মুন্না (রংপুর সদর), সাফিউল ইসলাম সাফি (রংপুর সদর), রুহুল আমিন লিটন (রংপুর সদর), কামরুল ইসলাম ভরসা (কাউনিয়া), হবিবর রহমান (পীরগঞ্জ), আবেদ আলী (পীরগঞ্জ), নূর আলম যাদু (পীরগঞ্জ), আলমগীর হোসেন (পীরগঞ্জ), জাহিদুল ইসলাম (পীরগঞ্জ), আল মামুন (রংপুর সদর)। পরবর্তীতে প্রয়োজন হলে আহ্বায়ক কমিটিতে সদস্য অন্তর্ভূক্ত করা হবে বলেও সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

এর আগে গত ১৪ সেপ্টেম্বর জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্যসহ দলের সব পদ থেকে মসিউর রহমান রাঙ্গাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের দলীয় গঠনতন্ত্রে প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এই সিদ্ধান্ত নেন। রাঙ্গা ২০১৮ সালের ৩ ডিসেম্বর থেকে ২০২০ সালের ২৬ জুলাই পর্যন্ত জাতীয় পার্টির মহাসচিবের দায়িত্ব পালন করেছিলেন। এছাড়া তিনি জেলা জাতীয় পার্টির বিলুপ্ত কমিটির সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন।
বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদের সঙ্গে জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের দ্বন্দ্বের মধ্যেই প্রেসিডিয়াম সদস্যসহ দলের সব পদ থেকে অব্যাহতি পেয়েছেন মসিউর রহমান রাঙ্গা।

আজ কোথায় কখন লোডশেডিং



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

জ্বালানি সংকটের কারণে বিদ্যুৎ উৎপাদনের ঘাটতির জন্য দেশজুড়ে এলাকাভিত্তিক আজও লোডশেডিং শুরু হচ্ছে। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী মঙ্গলবারের (৪ অক্টোবর) তালিকা প্রকাশ করেছে বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানিগুলো।

ঢাকা বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানি (ডিপিডিসি), ঢাকা ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি (ডেসকো), নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি (নেসকো), ওয়েস্টজোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউসন কোম্পানি (ওজোপাডিকো), বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি) এবং বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিপিডিবি) এর ওয়েবাসাইটের নির্দিষ্ট লিংককে গিয়ে এই তালিকা দেখতে পারবেন গ্রাহকরা।

আজকে কোন এলাকায় কখন লোডশেডিং হবে, এর সূচি দেওয়া হয়েছে। দেখে নেওয়া যাক।

https://www.desco.org.bd/bangla/loadshed_b.php

http://www.wzpdcl.org.bd/

https://nesco.portal.gov.bd/site/page/13ccd456-1e1d-4b24-828d-5811a856f107

http://reb.portal.gov.bd/site/page/c65ac273-d051-416f-9a93-5cd300079047

https://bpdb.portal.gov.bd/site/page/cafea028-95e6-4fca-8fea-e4415aef9a60

https://www.desco.org.bd/bangla/loadshed_b.php

জ্বালানি সাশ্রয়ে উচ্চ ব্যয়ের ডিজেলচালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ রাখার সরকারি সিদ্ধান্তের পর সরবরাহ সংকটে দেশজুড়ে প্রতিদিন সূচি ধরে কোথাও এক ঘণ্টা আবার কোথাও ২ ঘণ্টা করে লোডশেডিং করা শুরু হয় মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) থেকে।

এর আগে ১৮ জুলাই লোডশেডিংয়ের সিদ্ধান্ত সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বিদ্যুৎ ও জ্বালানিবিষয়ক সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

;

মণ্ডপ দেখতে বেরিয়ে নৈশকোচের ধাক্কায় প্রাণ গেল দুজনের



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রংপুর
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

রংপুরে পূজামণ্ডপ দেখতে বেরিয়ে নৈশকোচের ধাক্কায় ব্যাটারিচালিত অটোভ্যানের দুই যাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত তিন জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

সোমবার (৩ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়কে জেলার তারাগঞ্জ উপজেলার খিয়ারজুম্মা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার তালুক দামোদরপুর এলাকার পবিত্র চন্দ্র (২২) ও রতন চন্দ্র (৩০)।

পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, রাত সাড়ে ৮টার দিকে ব্যাটারিচালিত অটোভ্যানটি খিয়ারজুম্মা এলাকায় পৌঁছায়। এ সময় সৈয়দপুর থেকে ছেড়ে আসা অজ্ঞাত একটি নৈশকোচ পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ভ্যান থেকে সড়কে ছিটকে পড়ে উপজেলার তালুক দামোদরপুর এলাকার পবিত্র চন্দ্র (২২) ও রতন চন্দ্র (৩০), লিটন চন্দ্র (২৫) ভোলা চন্দ্র (২৮) ও সাহেব আলী (২১) গুরুতর আহত হন। খবর পেয়ে তাদের উদ্ধার করে রমেক হাসপাতালে পাঠায় তারাগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একদল কর্মী। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সোয়া ১১টার দিকে পবিত্র চন্দ্র ও রতন চন্দ্রের মৃত্যু হয়।

হাসপাতালের চিকিৎসকের বরাত দিয়ে তারাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি শেখ মো. মাহাবুব মোরশেদ বলেন, রাত সোয়া ১১টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পবিত্র চন্দ্র ও রতন চন্দ্র মারা গেছে। বাকি তিনজনের চিকিৎসা চলছে।

;

দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • Font increase
  • Font Decrease

যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রে ১৮ দিনের রাষ্ট্রীয় সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (৩ অক্টোবর) দিবাগত রাত ১টা এক মিনিটে প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী একটি ভিভিআইপি চার্টার্ড ফ্লাইট ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

প্রধানমন্ত্রীর ডেপুটি প্রেস সচির হাসান জাহিদ তুষার এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে, ফ্লাইটটি ওয়াশিংটন ডিসি থেকে রোববার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় (বাংলাদেশ সময় সোমবার ভোর সাড়ে ৪টায়) উড্ডয়ন করে।
বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো.শাহরিয়ার আলম, যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ ইমরান এবং জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মুহাম্মদ আবদুল মুহিত।

প্রধানমন্ত্রী ওয়াশিংটন থেকে দেশে ফেরার পথে লন্ডনে সংক্ষিপ্ত যাত্রাবিরতি করেন।

শেখ হাসিনা যুক্তরাজ্যে রাষ্ট্রীয় সফরে ১৫ সেপ্টেম্বর লন্ডন যান যেখানে তিনি রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া এবং রাজা চার্লস তৃতীয় কর্তৃক আয়োজিত অভ্যর্থনায় যোগ দেন।

১৯ সেপ্টেম্বর তিনি নিউ ইয়র্কের উদ্দেশ্যে লন্ডন ত্যাগ করেন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানকালে তিনি ২৩ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের (ইউএনজিএ) ৭৭তম অধিবেশনে ভাষণ দেন এবং এর পাশে বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

;

পঞ্চগড়ে নৌকাডুবি: ইজারাদার-মাঝিকে দায়ী করে প্রতিবেদন



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, পঞ্চগড়
পঞ্চগড়ে নৌকাডুবি

পঞ্চগড়ে নৌকাডুবি

  • Font increase
  • Font Decrease

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় করতোয়া নদীর আউলিয়ার ঘাটে নৌকাডুবির ঘটনায় প্রতিবেদন জমা দিয়েছে তদন্ত কমিটি। এতে ইজারাদার ও মাঝির অদক্ষতাসহ সাত-আটটি কারণ চিহ্নিত করা হয়েছে।

সোমবার (৩ অক্টোবর) রাতে পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক জহুরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, আমরা তদন্ত প্রতিবেদন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার কাছে পাঠিয়েছি। তাদের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং পূর্ণাঙ্গ বিষয়টি হাতে আসলে প্রকাশ করা হবে। তবে বেশ কিছু দিন যাচাই বাছাই করে প্রথামিকভাবে নৌকাডুবির ঘটনায় ইজারাদার এবং মাঝির অদক্ষতাকে দায়ী করা হয়েছে। এছাড়া আরও বেশ কিছু দিক চিহ্নিত করা হয়েছে।

এদিকে জেলা প্রশাসনের পাশপাশি পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের তদন্ত চলমান রয়েছে। সকল তদন্ত রিপোর্ট জমা হওয়ার পর পূর্ণাঙ্গ বিষয়টি জানা যাবে। তবে প্রতিবেদন নিয়ে এর বেশি বিস্তারিত জানাননি তিনি।

প্রতিবেদন জমার বিষয়ে পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও তদন্ত কমিটির প্রধান দীপঙ্কর রায় জানান, রোববার রাতে প্রতিবেদনটি জেলা প্রশাসক বরাবর দাখিল করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে আমরা এ বিষয়ে বিভিন্ন দিক অনুসন্ধান করে প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছি। এখন বাকি বিষয়টি জেলা প্রশাসক জানাতে পারবেন।

উল্লেখ্য, মহালয়া পূজা উপলক্ষে গত রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) বোদা উপজেলার আউলিয়ার ঘাটে শতাধিক সনাতনধর্মীদের পুণ্যার্থী নিয়ে একটি নৌকা করতোয়া নদী পাড় হয়ে বদ্বেশ্বরী মন্দিরে যাচ্ছিল। নৌকাটি নদীর মাঝে গেলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ডুবে যায়। এ ঘটনায় ৬৯ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এখনও নিখোঁজ রয়েছেন শিশুসহ তিনজন। ঘটনার দিনই পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট দীপঙ্কর রায়কে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে জেলা প্রশাসন। রোববার তারা প্রতিবেদন জমা দেন।

এখন পর্যন্ত ৬৯ জনের মরদেহ উদ্ধারের মধ্যে নারী ৩০ জন, পুরুষ ১৮ জন ও ২১ শিশুর মরদেহ রয়েছে। এর মাঝে পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার ৪৫ জন, আটোয়ারী উপজেলার ২ জন, দেবীগঞ্জ উপজেলার ১৮ জন, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ৩ জন এবং পঞ্চগড় সদর উপজেলার ১ জন রয়েছেন।

তবে পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলার শালডাঙ্গা ইউনিয়নের ছত্রশিকারপুর হাতিডুবা গ্রামের মদন চন্দ্রের ছেলে ভুপেন ওরফে পানিয়া (৪০), বোদা উপজেলার সাকোয়া ইউনিয়নের কলেজপাড়া গ্রামের সরেন্দ্রনাথ (৬৫) এবং পঞ্চগড় সদর উপজেলার ঘাটিয়ারপাড়া গ্রামের ধীরেন্দ্রনাথের মেয়ে জয়া রানির (৪) মরদেহ এখনও নিখোঁজ রয়েছে।

;