ব্রহ্মপুত্র নদে সেতু নির্মাণে চরাঞ্চল এখন উপ-শহর!



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, জামালপুর
ব্রহ্মপুত্র নদে সেতু নির্মাণে চরাঞ্চল এখন উপ-শহর!

ব্রহ্মপুত্র নদে সেতু নির্মাণে চরাঞ্চল এখন উপ-শহর!

  • Font increase
  • Font Decrease

জামালপুরের বুক চিরে বয়ে যাওয়া সর্বনাশা ব্রহ্মপুত্র নদ জেলাটিকে দ্বি-খণ্ডিত করেছে। অনুন্নত একটি অংশ ছিল পূর্বচর। এক সময়ে এই অংশটি সকল উন্নয়নের ক্ষেত্রে-ই পিছিয়ে ছিলো। স্থানীয় এমপি ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান দুলালের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এ নদে দুটি সেতু নির্মাণে চরাঞ্চল এখন উপ-শহরে পরিণত হয়েছে।পাল্টেছে মানুষের জীবন যাত্রার মান।

জানা যায়, ২০১৩ সালে ইসলামপুর উপজেলার পাইলিং ঘাট হতে গোয়ালেরচর রাস্তায় "বীর উত্তম শহীদ খালেদ মোশারফ সেতু”ও মেলান্দহের ডেফলা ঘাট হতে ইসলামপুরের ডিগ্রীরচর আমডাঙ্গা সড়ক পর্যন্ত "শহীদ লেফটেন্যান্ট শেখ জামাল সেতু” নির্মাণের কার্যক্রম শুরু করেন আওয়ামী লীগ সরকার। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে প্রায় সোয়া ২০০ কোটি টাকার ব্যয়ে ৫৬০ মিটার দৈর্ঘ্য সেতুদুটি ২০১৮ সালের ১১ অক্টোবর প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করেন। মাত্র ৫ বছরেই ইসলামপুরের চারটি ইউনিয়ন ও মেলান্দহের একটি ইউনিয়ন চরাঞ্চলের সারি থেকে উপ-শহরে পরিণত হয়েছে। বকশিগঞ্জ ও পার্শ্ববর্তী শেরপুর জেলার লোকজন সেতুর উপর দিয়ে যাতায়াতে মাধ্যমে এ অঞ্চলের মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হয়েছে।

সরেজমিনে গেলে, সেতু হওয়ার আগের অবস্থার বর্ণনা তুলে ধরে ডিগ্রীরচর সকাল বাজারের বণিক সমিতির সভাপতি আল-আমিন বাচ্চু মেম্বার বলেন, এক সময় খেয়া নৌকায় পার হতে খেয়াঘাটে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হতো। যাত্রী বেশি উঠায় অনেক সময় নৌকা ডুবে আপনজন হারানোর কথা ভুলবার নয়। সেতু নির্মাণে আওয়ামী সরকার আমাদের জানমালের নিরাপত্তার মাধ্যম সৃষ্টি করাই, বর্তমান ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর প্রতি শ্রদ্ধা রেখে বিএনপি থেকে আমি আওয়ামী লীগে যোগদান করেছি।

গাইবান্ধা ইউনিয়নের সুবহান আলী,মিঠুন মিয়া,হারুন আলীসহ একাধিক কৃষকেরা বলেন, অনেক পরিশ্রম করে ফসল ফলিয়ে ন্যায্য দামে বিক্রি করতে পারি নাই। সার কিটনাশক অনেক কষ্টে ঘাড়ে বহন করে আনতে হতো। এখন সার,কিটনাশক ও শস্য ঘাড়ে বহন করা লাগেনা, গাড়ি বাড়িতেই এসে পরে,দামেও ভালো বিক্রি করতে পারি। ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর নিকট আসলেই আমরা কৃতজ্ঞ।

চরপুটিমারী ইউনিয়নের পল্লী চিকিৎসক বর্তমানে ঢাকায় বসবাসকারী আলালউদ্দিন এলাকায় বেড়াতে এসে গ্রামগুলো প্রায় শহরে রূপায়িত হওয়াই আওয়ামী সরকারের প্রশংসা ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে ভয়াল এক রাতের ঘটনা তুলে ধরে বলেন, এক জনৈক ডেলিভারি রোগীর কল আসে আমি সেই বাড়িতে যায়। রোগীর অবস্থা আশংকাজনক দেখে, তাকে চৌকিতে তুলে কাঁধে করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে রওনা হই। খেয়া ঘাটে মাঝিদের না পেয়ে লোক পাঠাই মাঝিদের বাড়িতে, রোগীর অবস্থাও অবনতি ও অনেক সময় ব্যয় হওয়াই,খেয়া ঘাটেই সে মৃত সন্তান প্রসব করে। আর এখন কত উন্নত, সবকিছুই হাতের কাছেই!

শেরপুর জেলার কামারের চরের বাসিন্দা পথচারি মনিরুজ্জামান ও তার স্ত্রী বলেন, আগে ইসলামপুর আসতে জামালপুর হয়ে যেতে হতো। সেতু হওয়াতে এখন অল্প সময়ে সল্প খরচে ইসলামপুর যেতে পারি। এমপি সাহেব আসলেই এই এলাকাতে অনেক উন্নয়ন করেছেন। এক সময়ের চরাঞ্চল এখন তো আর চর মনে হয় না, যেন শহর!

পোড়ারচর টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ আজাদ বারী বলেন, ছেলেমেয়েদের লেখাপড়ার জন্য অনেক কষ্ট করে খেয়া নৌকায় পৌর শহরের স্কুল কলেজে যেতে হতো। সেতু নির্মাণের পরপরই অসংখ্য স্কুল কলেজ এ অঞ্চলে প্রতিষ্ঠা লাভ করাই লেখাপড়ার হার বৃদ্ধি হয়েছে।

দেখা যায়,সেতু নির্মানের পাশাপাশি হাট বাজার,রাস্তা ঘাট,বিদ্যুৎ,চিকিৎসা কেন্দ্রসহ অসংখ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থাপনের মধ্য দিয়ে এ অঞ্চলের মানুষের মনে যেন শহরের ছোঁয়া লেগেছে। শিক্ষা, ব্যবসাসহ কৃষি ক্ষেত্রেও উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে এ অঞ্চলের লোকজন। নিত্য নতুন কর্মক্ষেত্রের সুযোগ সৃষ্টি হচ্ছে। আইন-শৃঙখলা রক্ষার জন্য স্থাপন করা হয়েছে পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র। এতে কমছে অপরাধ, বদলেছে মানুষের জীবন প্রবাহ, চরাঞ্চল হয়েছে উপ-শহর।

আরও ৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৪৮০

  বাংলাদেশে করোনাভাইরাস



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আরও পাঁচজন মারা গেছেন। এ নিয়ে ২৯ হাজার ৩৬৮ জনের প্রাণ কেড়ে নিল ভাইরাসটি।

একই সময়ে ৪৮০ জনের শরীরে করোনা ধরা পড়েছে। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০ লাখ ২৫ হাজার ৬৭৭ জনে।

শনিবার (১ অক্টোবর) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ হাজার ১২১টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ৩ হাজার ১৪১টি নমুনা। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ২৮ শতাংশ। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৬১ শতাংশ।

আরও বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৪৪৩ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ৬৫ হাজার ৬৩১ জন।

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম ৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। ২০২১ সালের ৫ ও ১০ আগস্ট দুদিন সর্বাধিক ২৬৪ জন করে মারা যান।

;

স্বপ্ন আর প্রচেষ্টা জীবনযুদ্ধ জয়ের চাবিকাঠি: তথ্যমন্ত্রী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ

  • Font increase
  • Font Decrease

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খণ্ডকালীন শিক্ষক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, স্বপ্ন আর প্রচেষ্টা জীবনযুদ্ধ জয়ের অন্যতম চাবিকাঠি।

শনিবার (১ অক্টোবর) ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশের (ইউল্যাব) অষ্টাদশ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বিশ্ববিদ্যালয়কে প্রকৃত মানুষ গড়ার কারখানা হিসেবে উল্লেখ করে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, জীবন একটি যুদ্ধক্ষেত্র, উজান ঠেলে পাড়ি দেওয়া ও স্রোতের বিপরীতে এগিয়ে চলতে হয়। জীবন চলার পথে অনেক প্রিয়জনকে হারাতে হতে পারে, খানিক থমকে গেলেও যুদ্ধ বন্ধ করা যাবে না।

ড. হাছান ভারতের প্রয়াত সাবেক রাষ্ট্রপতি এপিজে আবদুল কালামকে উদ্ধৃত করে বলেন, জীবনযুদ্ধে জয়ী হতে যেমন স্বপ্ন থাকতে হবে, তেমনি স্বপ্নের সঙ্গে যুক্ত করতে হবে প্রচেষ্টা। ঘুমিয়ে স্বপ্ন নয়, সে স্বপ্ন ঘুমুতে দেয় না সেই স্বপ্ন আর প্রচেষ্টা মিলে এক ধরনের ইলেকট্রোম্যাগনেটিক ফোর্স তৈরি হবে, যা মানুষকে জীবনে জয়ের পথে এগিয়ে নেবে।

লতা মুঙ্গেশকর, স্টিভ জবসের উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, জীবন সংগ্রামে ধর্ম-বর্ণ-চেহারা নয়, অদম্য ইচ্ছাশক্তি আর অধ্যাবসায়ই বিজয়ের চাবিকাঠি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ইমরান রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ এমপি বিশেষ বক্তা এবং ট্রাস্টি বোর্ডের ভাইস প্রেসিডেন্ট কাজী আনিস আহমেদ স্বাগত বক্তব্য রাখেন। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে অনুষ্ঠানে একটি কেক কাটা হয়।

;

ইউনাইটেডে বিশ্ব হার্ট দিবস পালন



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ইউনাইটেডে বিশ্ব হার্ট দিবস পালন

ইউনাইটেডে বিশ্ব হার্ট দিবস পালন

  • Font increase
  • Font Decrease

‘ইউজ হার্ট ফর এভরি হার্ট- এই স্লোগান নিয়ে এবার পালিত হলো বিশ্ব হার্ট দিবস ২০২২। এ উপলক্ষে ইউনাইটেড হেলথকেয়ার সার্ভিসেস লিমিটেডে হৃদরোগ প্রতিরোধে করণীয় ও দেশের সকল হৃদরোগীদের সুস্থতা কামনা করে দিনটি বিশেষভাবে পালন করা হয়।

এ উপলক্ষে শনিবার (১ অক্টোবর) সকালে চিকিৎসক, নার্সসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার উপস্থিতিতে ইউনাইটেড হসপিটাল, এম এ রশীদ হসপিটাল - জামালপুর এবং মেডিক্স - ধানমন্ডিতে র‍্যালির আয়োজন করা হয়। র‍্যালি শেষে আগত রোগীদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার জন্য হৃদরোগ বিষয়ক স্বাস্থ্য বুথ উদ্বোধন করা হয়।

ইউনাইটেড হেলথকেয়ার সার্ভিসেস লিমিটেডের ডিরেক্টর মেডিকেল সার্ভিসেস ডা. মাহবুব উদ্দিন আহমেদ, ইউনাইটেড হসপিটালের হৃদরোগ বিভাগের চিফ কার্ডিয়াক সার্জন এন্ড ডাইরেক্টর কার্ডিয়াক সেন্টার ও স্বনামধন্য হৃদরোগ সার্জন ডা. জাহাঙ্গীর কবির, সিনিয়র কনসাল্টেন্ট ও হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. কায়সার নাসরুল্লাহ খান, ডা. ফাতেমা বেগম, ডা. রেয়ান আনিস, ডা. এ এম শফিক এবং সিনিয়র কনসাল্টেন্ট ও কার্ডিয়াক সার্জন ডা. সাইদুর রহমান, ডা. রেজাউল হাসান এবং ডা. আবুল কালাম মহিউদ্দিন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

ডা. মাহবুব উদ্দিন আহমেদ বলেন, ইউনাইটেড কার্ডিয়াক কেয়ার সেন্টার হৃদরোগ চিকিৎসায় দেশ সেরা। ১৬ বছর ধরে প্রাইভেট হেলথ সেক্টরে আমরা সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করে আসছি। যার প্রকৃত উদাহরণ হৃদরোগ চিকিৎসা ব্যবস্থাপনা। এখন আমাদের দেশের বেশিরভাগ হৃদরোগী আমাদের দেশেই চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন। বাংলাদেশে ইউনাইটেড হসপিটালেই প্রথমবারের মতো মেকানিক্যাল হার্ট ইমপ্ল্যান্ট, একমো, ট্রান্সক্যাথেটার এওর্টিক ভাল্ভ ইমপ্লান্ট পদ্ধতির চিকিৎসাসহ অনেক সফলতার গল্প তৈরি হয়েছে। এখন আমাদের লক্ষ্য বিশ্বমানের স্বাস্থ্য সেবাকে কি কি উপায়ে আরও সাশ্রয়ী করা যায়।

এরই অংশ হিসেবে আমরা ঘোষণা করছি মাত্র ৯৫ হাজার টাকার পিটিসিএ (স্টেন্টিং) প্যাকেজ এবং ২০ হাজার টাকার এনজিওগ্রাম প্যাকেজ। এছাড়া ইউনাইটেড হসপিটালে বর্তমান ব্যবস্থাপনার পাশাপাশি এখন থেকে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকায় ওপেন হার্ট সার্জারি করা যাবে।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের স্বনামধন্য কার্ডিয়াক সার্জন এবং ইউনাইটেড কার্ডিয়াক সেন্টারের ডিরেক্টর ডা. জাহাঙ্গীর কবির হার্ট চিকিৎসায় সাশ্রয়ী এই প্যাকেজ গুলোর উদ্বোধন করেন। তিনি বলেন, ইউনাইটেড কার্ডিয়াক কেয়ার সেন্টারের হৃদরোগ বিভাগের চিফ কনসালটেন্ট ও স্বনামধন্য হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. এন এ এম মোমেনুজ্জামানের উত্তরসূরি ডা. সামসুন নাহার, ডা. আফরীদ জাহান, ডা. তুনাজ্জিনা আফরিন হার্টের এই অপারেশন গুলো করবেন।

ডা. জাহাঙ্গীর কবির এরই মধ্যে ২৫ হাজারেরই বেশি হার্ট সার্জারি করেছেন। তিনিই বাংলাদেশের প্রথম ৪২ বছর বয়সী এক নারীর হৃদযন্ত্রে মেকানিক্যাল হার্ট ইমপ্ল্যান্ট করেছেন।

উল্লেখ্য, বিশ্ব হার্ট দিবস উপলক্ষে ইউনাইটেড হেলথকেয়ার সার্ভিসেস লিমিটেড সপ্তাহব্যাপী সামাজিক সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছে, যার মধ্যে বিভিন্ন ক্লাবে ও করপোরেট হাউসে সচেতনতামূলক সেমিনার কার্যক্রম, অনলাইন ও ফেসবুক লাইভ ওয়েবিনার এবং বিভিন্ন টেলিভিশনে আলোচনা সভায় ইউনাইটেড কার্ডিয়াক কেয়ার সেন্টারের বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের উপস্থিতি ও পরামর্শ প্রদান।

;

ভাবির লাঠির আঘাতে দেবরের মৃত্যু



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রংপুর
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

রংপুরের পীরগাছায় ভগ্নিপতির সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলায় ভাবির লাঠির আঘাতে রওশন আলম (৩০) নামের এক যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় বড়ভাই রতন মিয়া ও তার স্ত্রী আরেফা খাতুনকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (১ অক্টোবর) দুপুর ১টার দিকে উপজেলার কৈকুড়ি ইউনিয়নের মিরাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রওশন আলম ওই এলাকার তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রওশন আলমের বড়ভাই রতন মিয়ার স্ত্রী আরেফা খাতুনের সঙ্গে তার ভগ্নিপতির পরকীয়া চলছিল। গত এক সপ্তাহ আগে বড়ভাই বাড়িতে না থাকার সুযোগে ভাবির সঙ্গে ভগ্নিপতিকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলে রওশন। পরে বিষয়টি বড়ভাইসহ পরিবারের লোকজনকে জানায়। এদিকে বিষয়টি ভিন্নখাতে নিতে দেবর রওশনের বিরুদ্ধে কুপ্রস্তাব দেওয়ার অপবাদ দেয় ভাবি।

এতে ক্ষোভে ও অভিমানে গত মঙ্গলবার বিষপান করে রওশন আলম। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পীরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপতালে ভর্তি করা হয়।

ঘটনার পরে আরেফা খাতুন তার বিরুদ্ধে অপবাদ দেওয়ার অভিযোগে স্বামী রতন মিয়াকে তার ভাই রওশকে শায়েস্তা করার দাবি জানায়। পরে শনিবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে রওশনকে বাড়িতে নিয়ে আসে তার বড়ভাই ও বাবা।

এসময় ভ্যান থেকে রওশনকে নামিয়ে স্ত্রীর হাতে লাঠি তুলে দেয় বড় ভাই রতন মিয়া। লাঠি হাতে পেয়ে দেবর রওশনকে এলোপাতাড়ি মারপিট করেন আরেফা খাতুন। এতে গুরুতর অসুস্থ হয়ে ঘটনাস্থলেই রওশন আলমের মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে পীরগাছা থানা-পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ সময় ভাবি আরিফা খাতুন ও ভাই রতন মিয়াকে আটক করা হয়।

পীরগাছা থানার এসআই আব্দুল মালেক বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে নিহতের ভাই রতন মিয়া ও তার স্ত্রী আরেফা থাতুনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

;