৬ মাসের সাজাপ্রাপ্ত আসামি ৮ বছর ধরে আত্মগোপনে



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, চট্টগ্রাম
৬ মাসের সাজাপ্রাপ্ত আসামি ৮ বছর ধরে আত্মগোপনে

৬ মাসের সাজাপ্রাপ্ত আসামি ৮ বছর ধরে আত্মগোপনে

  • Font increase
  • Font Decrease

চট্টগ্রামে মাদক মামলায় ৬ মাসের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামিকে প্রায় আট বছর পর গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় নগরের ফিরোজ শাহ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার মো. জিয়া তৌহিদকে (৫৭) আকবর শাহ থানার পূর্ব ফিরোজ শাহ এলাকার মৃত এম বি তৌহিদের ছেলে।

বিষয়টি বার্তা২৪.কম-কে নিশ্চিত করেছেন আকবর শাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ওয়ালী উদ্দিন আকবর।

তিনি বলেন, নোয়াখালীর সুধারাম থানায় ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বরের তার বিরুদ্ধে একটি মাদক মামলা ছিলো। ওই মামলায় চট্টগ্রামের আদালত ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে তাকে দোষী সাব্যস্ত করে ৬ মাসের কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেন। দণ্ডের অর্থ অনাদায়ে আরও এক মাসের জেল। সেই সাজা থেকে বাঁচতে তিনি প্রায় ৮ বছর পালিয়ে ছিলেন।

বুধবার গভীর রাতে তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে ফিরোজ শাহ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানান ওসি।

আজ মহানবমী: ১০৮টি নীলপদ্মে দুর্গাদেবীর পূজা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
আজ মহানবমী: ১০৮টি নীলপদ্মে দুর্গাদেবীর পূজা

আজ মহানবমী: ১০৮টি নীলপদ্মে দুর্গাদেবীর পূজা

  • Font increase
  • Font Decrease

হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজার মহানবমী আজ। মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) সকাল ৬টা থেকে রাজধানীসহ সারাদেশের মণ্ডপে মণ্ডপে শুরু হয়েছে মহানবমীর আনুষ্ঠানিকতা।

পুরোহিতদের মতে, মহানবমীতে ভক্তদের দেওয়া ষোড়শ উপাচারের সঙ্গে ১০৮টি নীলপদ্মে পূজা হবে দেবীদুর্গার। এ ছাড়া নীলকণ্ঠ, নীল অপরাজিতা ফুল ও যজ্ঞের মাধ্যমে মহানবমীর বিহিত পূজা হবে আজ।

আরও জানা যায়, মহানবমীর দিনে যজ্ঞের মাধ্যমে দেবীদুর্গার কাছে আহুতি দেওয়া হবে। ১০৮টি বেল পাতা, আম কাঠ, ঘি দিয়ে এই যজ্ঞ অনুষ্ঠিত হবে। মহাষষ্ঠী পূজার মধ্যদিয়ে শনিবার শুরু হওয়া পাঁচ দিনের সার্বজনীন উৎসবের পর্দা নামছে আগামীকালের বিজয়া দশমীতে দেবী বিসর্জনের মধ্য দিয়ে। পূজা সমাপন ও দর্পণ বিসর্জন হবে সকাল ৮টা ৫০ মিনিটের মধ্যে। সন্ধ্যা-আরাত্রিকের পর প্রতিমা বিসর্জন ও শান্তিজল গ্রহণের মধ্য দিয়ে শেষ হবে সব আয়োজন।

সনাতনী শাস্ত্র মতে এবার দেবী দুর্গা জগতের মঙ্গল কামনায় গজে চড়ে মর্ত্যলোকে এসেছেন। এতে প্রাকৃতিক বিপর্যয় ঝড়বৃষ্টি হবে এবং শস্য ও ফসল উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে। অন্যদিকে নৌকায় চড়ে স্বর্গে বিদায় নেবেন। ফলে জগতের কল্যাণ সাধিত হবে।

ভক্তদের বিশ্বাস, মহানবমীর দিন হচ্ছে দেবী দুর্গাকে প্রাণ ভরে দেখে নেওয়ার ক্ষণ।

নবমী নিশীথেই শেষ হয় উৎসব। এ রাত তাই বিদায়ের অমোঘ পরোয়ানা নিয়ে আসে। এসব বিবেচনা করে অনেকেই মনে করেন, নবমীর দিন আধ্যাত্মিকতার চেয়েও অনেক বেশি লোকায়ত ভাবনায় ভাবিত থাকে মন।

বুধবার প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হবে শারদীয় দুর্গোৎসব।

এ বছর সারাদেশের ৩২ হাজার ১৬৮টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা উদযাপন করা হচ্ছে। গত বছর সারাদেশের পূজামণ্ডপের সংখ্যা ছিল ৩২ হাজার ১১৮টি। ঢাকা মহানগরে মণ্ডপের সংখ্যা ২৪১টি, যা গত বছরের থেকে ছয়টি বেশি।

;

ঢাকায় আসছেন ব্রুনাইয়ের সুলতান



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রথমবারের মতো ঢাকায় আসছেন ব্রুনাইয়ের সুলতান হাজি হাসানাল বলকিয়াহ মুইজ্জাদ্দিন ওয়াদদৌল্লাহ। তিন দিনের সফরে চলতি মাসের মাঝামাঝি তিনি ঢাকা আসবেন।

ব্রুনাইয়ের সুলতানের সফরকে কেন্দ্র করে চারটি সমঝোতা স্মারক সইয়ের প্রস্তুতি নিয়েছে দুই দেশ।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, সুলতানের সফরকে কেন্দ্র করে গত ৩১ আগস্ট বাংলাদেশ ও ব্রুনাইয়ের মধ্যে দ্বিতীয় পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের বৈঠক ফরেন অফিস কনসালটেশন (এফওসি) অনুষ্ঠিত হয়। সুলতানের সফরকে কেন্দ্র করে ব্রুনাই থেকে জ্বালানি আমদানি, বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিয়োগ, সরাসরি বিমান চলাচল এবং সংস্কৃৃতি খাতে সমঝোতা স্মারক সইয়ের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

নাম না প্রকাশ করার শর্তে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা বলেন, তিন দিনের সফরের একটি দিন মূলত আনুষ্ঠানিক। প্রথম দিন তিনি আসবেন, দ্বিতীয় দিন মূলত বৈঠক এবং তৃতীয় দিন তিনি বাংলাদেশ ছেড়ে যাবেন। এখন পর্যন্ত চারটিই সমঝোতা স্মারক সইয়ের প্রস্তুতি রয়েছে। এটি বাড়তে পারে। তবে সবই নির্ভর করছে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের নির্দেশনার ওপর।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে পুরো বিশ্ব জ্বালানি সংকটে পড়েছে। এ কারণে প্রথাগত বাজারের বাইরে ভিন্ন উৎস থেকে জ্বালানি সংগ্রহের চেষ্টা করছে বাংলাদেশ।

;

আজ কোথায় কখন লোডশেডিং



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

জ্বালানি সংকটের কারণে বিদ্যুৎ উৎপাদনের ঘাটতির জন্য দেশজুড়ে এলাকাভিত্তিক আজও লোডশেডিং শুরু হচ্ছে। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী মঙ্গলবারের (৪ অক্টোবর) তালিকা প্রকাশ করেছে বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানিগুলো।

ঢাকা বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানি (ডিপিডিসি), ঢাকা ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি (ডেসকো), নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি (নেসকো), ওয়েস্টজোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউসন কোম্পানি (ওজোপাডিকো), বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি) এবং বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিপিডিবি) এর ওয়েবাসাইটের নির্দিষ্ট লিংককে গিয়ে এই তালিকা দেখতে পারবেন গ্রাহকরা।

আজকে কোন এলাকায় কখন লোডশেডিং হবে, এর সূচি দেওয়া হয়েছে। দেখে নেওয়া যাক।

https://www.desco.org.bd/bangla/loadshed_b.php

http://www.wzpdcl.org.bd/

https://nesco.portal.gov.bd/site/page/13ccd456-1e1d-4b24-828d-5811a856f107

http://reb.portal.gov.bd/site/page/c65ac273-d051-416f-9a93-5cd300079047

https://bpdb.portal.gov.bd/site/page/cafea028-95e6-4fca-8fea-e4415aef9a60

https://www.desco.org.bd/bangla/loadshed_b.php

জ্বালানি সাশ্রয়ে উচ্চ ব্যয়ের ডিজেলচালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ রাখার সরকারি সিদ্ধান্তের পর সরবরাহ সংকটে দেশজুড়ে প্রতিদিন সূচি ধরে কোথাও এক ঘণ্টা আবার কোথাও ২ ঘণ্টা করে লোডশেডিং করা শুরু হয় মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) থেকে।

এর আগে ১৮ জুলাই লোডশেডিংয়ের সিদ্ধান্ত সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বিদ্যুৎ ও জ্বালানিবিষয়ক সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

;

মণ্ডপ দেখতে বেরিয়ে নৈশকোচের ধাক্কায় প্রাণ গেল দুজনের



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রংপুর
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

রংপুরে পূজামণ্ডপ দেখতে বেরিয়ে নৈশকোচের ধাক্কায় ব্যাটারিচালিত অটোভ্যানের দুই যাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত তিন জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

সোমবার (৩ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়কে জেলার তারাগঞ্জ উপজেলার খিয়ারজুম্মা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার তালুক দামোদরপুর এলাকার পবিত্র চন্দ্র (২২) ও রতন চন্দ্র (৩০)।

পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, রাত সাড়ে ৮টার দিকে ব্যাটারিচালিত অটোভ্যানটি খিয়ারজুম্মা এলাকায় পৌঁছায়। এ সময় সৈয়দপুর থেকে ছেড়ে আসা অজ্ঞাত একটি নৈশকোচ পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ভ্যান থেকে সড়কে ছিটকে পড়ে উপজেলার তালুক দামোদরপুর এলাকার পবিত্র চন্দ্র (২২) ও রতন চন্দ্র (৩০), লিটন চন্দ্র (২৫) ভোলা চন্দ্র (২৮) ও সাহেব আলী (২১) গুরুতর আহত হন। খবর পেয়ে তাদের উদ্ধার করে রমেক হাসপাতালে পাঠায় তারাগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একদল কর্মী। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সোয়া ১১টার দিকে পবিত্র চন্দ্র ও রতন চন্দ্রের মৃত্যু হয়।

হাসপাতালের চিকিৎসকের বরাত দিয়ে তারাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি শেখ মো. মাহাবুব মোরশেদ বলেন, রাত সোয়া ১১টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পবিত্র চন্দ্র ও রতন চন্দ্র মারা গেছে। বাকি তিনজনের চিকিৎসা চলছে।

;