ডিএনসিসির পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের আবাসিক ভবন হবে গাবতলীতে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে মোনাজাত করেন মেয়র আতিকুল ইসলাম,  ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে মোনাজাত করেন মেয়র আতিকুল ইসলাম, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা, কেউ গৃহহীন থাকবে না। এ ঘোষণার প্রেক্ষিতে এবার পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের জন্য অত্যাধুনিক ভবন নির্মাণ করতে যাচ্ছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি)।

দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন অবশ্য আগেই এ ভবন নির্মাণ করেছে যাত্রাবাড়ীতে। সেখানে পরিচ্ছন্নতা কর্মী ও তাদের পরিবারের সদস্যরা বসবাস করছেন।

বুধবার ( ১৮ সেপ্টেম্বর) ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম গাবতলীতে চারটি ১৫ তলা আবাসিক ভবন এবং একটি চার তলা স্কুল ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

Atikul
বক্তব্য দিচ্ছেন মেয়র আতিকুল ইসলাম, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

বাংলাদেশ সরকারের (জিওবি) অর্থায়নে ‘গাবতলী সিটি পল্লীতে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ক্লিনারদের জন্য বহুতল আবাসিক ভবন নির্মাণ প্রকল্প’ এর আওতায় এ নির্মাণ কাজ শুরু হলো।

ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকালে মেয়র বলেন, ‘শপথ বাক্য পাঠ করানোর পরপরই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের জন্য একটি সুন্দর বাসস্থান গড়ার নির্দেশ দেন। এ প্রকল্পের মাধ্যমে ২০২১ সালের জুন মাসের মধ্যে ৭৮৪ জন পরিচ্ছন্নতা কর্মীর আবাসনের ব্যবস্থা হবে।’

তিনি পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম সুন্দরভাবে সম্পন্ন করে জনগণকে সেবা দেওয়ার জন্য পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান। প্রকল্পের কাজের মান বজায় রেখে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শেষ করতে ঠিকাদারদের নির্দেশ দেন আতিকুল ইসলাম।

city
ভবনের নকশা

 

প্রকল্পটির সর্বমোট প্রাক্কলন ব্যয় ধরা হয়েছে ২২১ কোটি ৪৯ লাখ টাকা। ২০২১ সালের জুন মাসে প্রকল্পের কাজ বাস্তবায়ন শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। এ প্রকল্পের আওতায় ১৫ তলা বিশিষ্ট চারটি আবাসিক ভবনে মোট ৭৮৪টি ফ্ল্যাট নির্মাণ করা হবে। প্রতিটি ফ্ল্যাটের আয়তন হবে ৫৬২ বর্গফুট। প্রতিটি ফ্ল্যাটে দু’টি করে বেডরুম, একটি কিচেন, একটি টয়লেট, একটি বাথরুম, একটি বারান্দা থাকবে। আবাসিক ভবনগুলোতে ১৪টি প্যাসেঞ্জার লিফট এবং সাতটি সার্ভিস লিফট থাকবে। প্রতিটি ফ্ল্যাট আসবাবপত্রে সুসজ্জিত করে দেওয়া হবে। এ ছাড়া আবাসিক ভবনগুলোর জন্য পৃথক সুয়ারেজ ট্রিটমেন্টের ব্যবস্থা রাখা হবে। ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান ‘বঙ্গ বিল্ডার্স’ এবং ‘মার্কস কনস্ট্রাকশন’ এ প্রকল্পের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করার দায়িত্ব পেয়েছে।

ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকালে অন্যান্যের মধ্যে স্থানীয় সংসদ সদস্য আসলামুল হক, ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আব্দুল হাই, প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাইদ আহমেদ, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী ও প্রকল্প পরিচালক মো. শরীফ উদ্দিন, ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুজিব সারোয়ার মাসুম, মোবাশ্বের চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :