সিলেটে শিশু নাঈম হত্যা মামলায় ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, সিলেট
নিহত শিশু নাঈম, ছবি: সংগৃহীত

নিহত শিশু নাঈম, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সিলেটের দক্ষিণ সুরমার আলোচিত শিশু নাঈম হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসির রায় দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (৯ অক্টোবর) বেলা ১২টায় সিলেট জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মুহিতুল হক এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, দক্ষিণ সুরমা উপজেলার পুরান তেতলী গ্রামের প্রয়াত মো. আফতাব আলীর ছেলে মো. ইসমাইল আলী (২২), একই এলাকার মো. ইছহাক মিয়া ওরফে ইছহাক আলীর ছেলে মো. মিঠুন মিয়া (২০) ও তার ভাই রুবেল (১৮), দক্ষিণ সুরমা থানার দক্ষিণ ভার্থখলা ডি ব্লকের ডিপটি ওরফে রুবেলের ছেলে বিপ্লব ওরফে বিপলু (১৮)।

একই সঙ্গে খালাসপ্রাপ্ত একমাত্র আসামি হলেন- লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ থানার নাদবুদ (সুয়াজিবাড়ী) গ্রামের মো. আবুল কাশেম ওরফে আবুল হোসেনের ছেলে বর্তমানে নগরীর কুয়ারপাড় ভাঙ্গাটিকর মা মঞ্জিল স্মৃতি আবাসিক এলাকার ১৫ নম্বর বাসার বাসিন্দা জুনায়েদ হোসেন ওরফে জুনেদ হোসেন (১৯)।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১১ সালের ১৪ আগস্ট তারাবির নামাজ পড়তে বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয় নাঈম। এর সাত দিন পর বাড়ির পাশের জঙ্গল থেকে তার বস্তাবন্দী গলিত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ২০১১ সালের ২০ আগস্ট নাঈমের বাবা আব্দুল হক বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে দক্ষিণ সুরমা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১১ সালের ২৬ নভেম্বর দক্ষিণ সুরমা থানার উপ-পরিদর্শক মো. হারুন মজুমদার পাঁচজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে এ মামলার চার্জশিট দাখিল করেন। বুধবার আলোচিত এ মামলার রায় ঘোষণা করেন আদালত।

বাদীপক্ষের আইনজীবী গোলাম এহিয়া জানান, মামলার রায়ে আমরা সন্তুষ্ট। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের ফাঁসি দ্রুত কার্যকরের দাবি জানাই।

আপনার মতামত লিখুন :