সীমান্তে যারা মারা যাচ্ছেন তারা চোরাকারবারি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, সিলেট
বক্তব্য রাখছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বক্তব্য রাখছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • Font increase
  • Font Decrease

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, সীমান্তে যারা মারা যাচ্ছেন, তাদের অধিকাংশই চোরাকারবারির সঙ্গে জড়িত। ২০০৩ সালে ১৬৬ জন লোক সীমান্তে মারা গেছেন। কিন্তু গত বছর মাত্র তিন-চারজন মারা গেছেন।

শনিবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

ফেনী নদীর পানি বণ্টন ইস্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘খাগড়াছড়ির মাটিরাঙার ভগবানটিলায় ফেনী নদীর উৎপত্তি। সেটার বেশিরভাগই সীমান্তে। ভারতের ওই অংশের মানুষের পান করার পানির অভাব। এছাড়া বর্ডারের পানিতে দুই দেশেরই সমান অধিকার। আর এখানে তো পুরোটাই সীমান্তে। আর আমরা তাদেরকে খাওয়ার পানি দিয়েছি। আমাদের জায়গা থেকে উদারতা দেখিয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘আমরা আমদানি করে আনা এবং দেশে উৎপাদিত কিছু এলপিজি বোতলজাত করে রফতানি করব। এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের রফতানির একটা পণ্য বাড়ছে। এটা তো খুশির সংবাদ।’

এ সময় মন্ত্রীর সাথে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ, সহসভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, বিশ্বনাথ উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম নুনু মিয়া, বিসিবির পরিচালক শফিউল আলম নাদেল, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের কার্যনির্বাহী সদস্য মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :