স্বাস্থ্যসেবায় বাংলাদেশ অনেক এগিয়ে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
বিশ্ব দৃষ্টি দিবসের আলোচনা সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক

বিশ্ব দৃষ্টি দিবসের আলোচনা সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক

  • Font increase
  • Font Decrease

স্বাস্থ্যসেবার দিক থেকে বাংলাদেশ প্রতিবেশী দেশগুলোর চেয়ে অনেকখানি এগিয়ে রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি বলেন, আমাদের আশেপাশের দেশ থেকে সকল সূচকে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। ঠিক একইভাবে স্বাস্থ্যসেবার দিক থেকেও বাংলাদেশ অনেকখানি এগিয়ে আছে।

সোমবার (২১ অক্টোবর) দুপুরে জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট হাসপাতালে বিশ্ব দৃষ্টি দিবস-২০১৯ উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

জাহিদ মালেক বলেন, স্বাস্থ্যসেবায় আমরা অনেক অর্জন করেছি। এ জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘ভ্যাকসিন হিরো’ পুরস্কার পেয়েছেন। মাঠ পর্যায়ের ডাক্তার-নার্সদের পরিশ্রমের জন্যই এই সফলতা।

চোখের চিকিৎসা প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে দারিদ্র্য যেমন কমে গেছে অন্ধত্বের হারও অনেক কমে যাচ্ছে। প্রান্তিক এলাকাতেও এখন চোখের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। গ্রামের লোকজনও অন্ধত্ব থেকে রক্ষা পাচ্ছে। প্রত্যেকটি উপজেলায় কমিউনিটি ভিশন সেন্টার চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে। দেশের প্রতিটি ব্যক্তিকে চোখের চিকিৎসাসেবার আওতায় আনা হবে। এর মাধ্যমে আমাদের দেশের অন্ধত্ব দূর হবে।

বিশ্ব দৃষ্টি দিবসের র‌্যালি

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের সাড়ে ৭ লাখ লোক অন্ধ হয়ে আছে। এর মধ্যে আড়াই লাখ লোককে অপারেশন করা সম্ভব। অনেক চক্ষু রোগীকে আমরা অপারেশন করতে পারি না। সব চক্ষু রোগীকে চিকিৎসাসেবা দিতে আমাদের সক্ষমতা অর্জন করতে হবে। আমাদের ডাক্তারের স্বল্পতা রয়েছে, ডাক্তারের সংখ্যা বৃদ্ধি করতে হবে।

মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষা প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এবারের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা আমরা সুন্দরভাবে নিতে পেরেছি। এবারের পরীক্ষা নিয়ে কোথাও কোন প্রশ্ন ওঠেনি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম বলেন, ভালোমানের চিকিৎসা দিয়ে চক্ষু চিকিৎসাকে আমরা ভালো পর্যায়ে নিয়ে এসেছি। এখন আমাদের গোল হলো—চক্ষু চিকিৎসাকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া।

এর আগে বিশ্ব দৃষ্টি দিবস উপলক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী হাসপাতাল প্রাঙ্গণে একটি বর্ণাঢ্য র্যা লিতে অংশ নেন। এরপর চক্ষু দিবসের আলোচনা শেষে জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের নতুন একটি লেজার মেশিনের উদ্বোধন করেন তিনি।

লাইন ডাইরেক্টর ন্যাশনাল আই কেয়ার এবং জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. গোলাম মোস্তফার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন—স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. মো. আবুল কালাম আজাদ, স্বাস্থ্যসেবা ও স্বাস্থ্য পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. শাহাদত হোসেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রাক্তন মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মো. নূরুল হক প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :