নারায়ণগঞ্জ শহরে ওয়াসার কাজের দায়িত্ব এখন নাসিকের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বাঁ থেকে আইভী, মন্ত্রী তাজুল ইসলাম, সচিব হেলাল উদ্দিন ও তাকসিম এ খান, ছবি: শাহরিয়ার তামিম

সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বাঁ থেকে আইভী, মন্ত্রী তাজুল ইসলাম, সচিব হেলাল উদ্দিন ও তাকসিম এ খান, ছবি: শাহরিয়ার তামিম

  • Font increase
  • Font Decrease

নারায়ণগঞ্জ শহরে ঢাকা ওয়াসার কার্যক্রম নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ফলে এখন থেকে ওই শহরের ওয়াসার কার্যক্রম চালাবে নাসিক।

ওয়াসার কার্যক্রম হস্তান্তরের জন্য বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) সকাল ১১টায় রাজধানীর হোটেল প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁওয়ের সুরমা হলে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করা হয়।

সমঝোতা স্মারকে ঢাকা ওয়াসার পক্ষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিও প্রকৌশলী তাকসিম এ খান এবং নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) পক্ষে মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী স্বাক্ষর করেন।

জানা যায়, ১৯৯০ সালের পহেলা জুলাই থেকে ঢাকা ওয়াসা (ওয়াটার অ্যান্ড সোয়ারেজ অথরিটি) নারায়ণগঞ্জ জোনে তাদের সার্ভিস পরিচালনা করে আসছিল। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন হওয়ার পর ২০১২ সাল থেকে ওয়াসার কার্যক্রম নাসিকের কাছে হস্তান্তর করার ব্যাপারে আলোচনা চলছিল। যা স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় বৃহস্পতিবার বাস্তবায়িত হলো।

সমঝোতা স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জে গভীর নলকূপ আছে ৩১টি, ৩২টি স্ট্রিট হাইড্রেন্ট, ওভারহেড ওয়াটার টাংক আটটি, পানি শোধনাগার আছে দু’টি। সর্বমোট ভূমির পরিমাণ ১০.৭৫৫৯৮ একর।

Wasa
সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করছেন তাকসিম এ খান এবং আইভী, ছবি: শাহরিয়ার তামিম

নারায়ণগঞ্জ ওয়াসার গোদলাইন পানি শোধনাগার থেকে দৈনিক ৪.৫০ কোটি লিটার পানি শোধন করা হবে এবং সোনাকান্দা পানি শোধনাগার থেকে দৈনিক ১.২০ কোটি লিটার পানি পাওয়া যাবে। যা নারায়ণগঞ্জে পানির চাহিদা মেটাবে।

সমঝোতা স্বাক্ষরের পর থেকে এক বছর জনবল এবং কারিগরি বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনেরকে সার্বিক সহযোগিতা দেবে ঢাকা ওয়াসা।

নারায়ণগঞ্জ ওয়াসার সব যানবাহন ও যন্ত্রপাতি, পাম্প হাউজ, পানির পাম্প ও স্থাবর সম্পত্তি নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের অধীনে ন্যস্ত থাকবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেন, ২০৪১ সালের যে গোল আমাদের রয়েছে, তার মধ্যে সুপেয় পানি হচ্ছে অন্যতম। তাই সবার কাছে সুপেয় পানি পৌঁছে দিতেই হবে। সে জন্যই আমাদের এ উদ্যোগ। সুপেয় পানি সরবরাহের জন্য বিভিন্ন সময় বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, স্থানীয় সরকার বিভাগ সবার সঙ্গে সমন্বয় করে ভালো কাজ করার চেষ্টা করছে। সে জন্য স্থানীয় পর্যায়ে সিটি করপোরেশনসহ লোকাল সব গভর্নমেন্টকে সহযোগিতা করতে হবে। একই সঙ্গে আপনাদের ওপর ন্যস্ত কাজগুলো যথাযথভাবে করতে হবে। মানুষ যাতে ভালো সেবা পায়, সে ব্যাপারে আমাদের খেয়াল রাখতে হবে।

সমঝোতা স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, দীর্ঘদিনের চেষ্টার ফলে নারায়ণগঞ্জবাসী পুনরায় তাদের ওয়াসা ফেরত পেল। নারায়ণগঞ্জ ওয়াসার দায়িত্ব মেয়র হিসেবে আমি যথাযথভাবে পালন করার চেষ্টা করব। তবে বর্তমানে নারায়ণগঞ্জের ওয়াসার লাইনগুলো খুবই জরাজীর্ণ, সেগুলো ঠিক করে পুরোপুরি সুপেয় পানি পেতে দুই বছর আমাকে সময় দিতে হবে।

wasa
সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বাঁ থেকে সচিব হেলাল উদ্দিন, মন্ত্রী তাজুল ইসলাম, আইভী ও তাকসিম এ খান, ছবি: শাহরিয়ার তামিম

এ সময় তিনি আরও বলেন, সমন্বয়হীনতার কারণে আমাদের ডেভলপমেন্টগুলো পিছিয়ে যাচ্ছে। সেজন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সিটি করপোরেশনসহ সবার সঙ্গে সমন্বয় করে কাজগুলো বাস্তাবায়ন করলে যথাযথ ডেভেলপমেন্ট হবে।

অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলাল উদ্দিন আহমেদ ও ঢাকা ওয়াসার কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলরসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :