অবৈধভাবে কেন্দ্রে প্রবেশের দায়ে শিক্ষকের দুই বছরের জেল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, রাজশাহী
ছবি: সংগৃৃহীত

ছবি: সংগৃৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজশাহীর বাগমারায় পরীক্ষা চলাকালে অবৈধভাবে কেন্দ্রের অভ্যন্তরে প্রবেশের দায়ে কনক কুমার প্রামাণিক নামের এক শিক্ষককে দুই বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়। দণ্ডপ্রাপ্ত কনক কুমার প্রামাণিক উপজেলার রমজানপাড়া মহিলা ভোকেশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক।

বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আতাউর রহমান বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে জানান, মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের অধীনে নবম শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষা শুরু হয়। পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা পর রমজানপাড়া মহিলা ভোকেশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক ওই কেন্দ্রে ডিউটির দায়িত্বে না থাকা সত্ত্বেও কনক প্রামাণিক ওই কেন্দ্রের অভ্যন্তরে ঘোরাঘুরি করছিলেন। সন্দেহ হওয়ায় অন্য শিক্ষকরা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে কেন্দ্র সচিবের কাছে পাঠান। কেন্দ্র সচিব ওই শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ করেন।

ওসি বলেন, 'আমরা বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) জানাই। পরে বিকেলে তাকে ইউএনও কার্যালয়ে নেওয়া হলে সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে তাকে দুই বছরের জেল দেন আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কৌশিক আহমেদ। সাজা দেওয়ার পর তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়।'

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও বাগমারার ইউএনও কৌশিক আহমেদ বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, 'অভিযুক্ত কনক প্রামাণিকের ওই কেন্দ্রে ডিউটি ছিল না। তিনি অসদুপায় অবলম্বনের উদ্দেশে সেখানে প্রবেশ করে সুযোগ খুঁজছিলেন। আদালতে শুনানির সময় তিনি বিষয়টি স্বীকারও করেছেন। আইন অনুযায়ী তাকে দণ্ড দেওয়া হয়েছে।'

আপনার মতামত লিখুন :