পাওনা টাকা চাওয়ায় চাচাকে পিটিয়ে হত্যা

স্টাফ করেসপন্ডেট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, রাজশাহী
ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজশাহীর বাগমারায় পাওনা টাকা চাওয়া নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে কফিল শাহ (৫৫) নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করেছে তারই ভাতিজা ফেরদৌস (৩১)। বুধবার (৬ নভেম্বর) রাতে উপজেলার যোগীপাড়া ইউনিয়নের বীরকুৎসা রাজবাড়ি বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত ফেরদৌস (ভাতিজা) ও তার ছোট ভাই মিঠু পলাতক রয়েছেন। নিহত কফিল শাহ এবং অভিযুক্ত ফেরদৌস সম্পর্কে চাচা-ভাতিজা ছিলেন।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আতাউর রহমান জানান, কফিল শাহ একজন মুদি দোকানি। তার দোকান থেকে ভাতিজা ফেরদৌস (সিএনজি চালক)  বাকিতে পেট্রোল নিয়েছিলেন। তবে অনেক দিন পার হলেও টাকা না দেওয়ায় বুধবার রাতে তা পরিশোধ করতে বলেন কফিল শাহ। এনিয়ে তাদের দু’জনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়।

ওসি আরও জানান, এক পর্যায়ে ওই বাজারের আরেক মুদি দোকানি এবং অভিযুক্ত ফেরদৌসের ছোট ভাই মিঠুও (২৯) ভাইয়ের সঙ্গে যুক্ত হয়ে চাচা কফিল শাহকে মারধর শুরু করে। তারা বাঁশের লাঠি দিয়ে চাচা কফিলকে আঘাত করলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি বলেন, ‘নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে এখনও মামলা করা হয়নি। যদি তারা মামলা নাও করেন, তবুও পুলিশ বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করবে। অভিযুক্ত দুই জনকে গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।'

আপনার মতামত লিখুন :