যৌন হয়রানি বন্ধে প্রয়োজন সমন্বিত আইন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,বার্তা২৪.কম,ঢাকা
জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরামের সংবাদ সম্মেলন

জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরামের সংবাদ সম্মেলন

  • Font increase
  • Font Decrease

যৌন হয়রানি বন্ধে সমন্বিত আইনের দাবি জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরাম।

বুধবার (৪ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘যৌন হয়রানি প্রতিরোধে সমন্বিত আইন এখন সময়ের দাবি’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলন করে সংস্থাটি। 

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, বর্তমানে নারী ও শিশুদের প্রতি ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের ঘটনা দিন দিন বেড়েই চলেছে। ধর্ষণ, ধর্ষণের পর হত্যা এবং নানাবিধ যৌন হয়রানি বাড়ছেই। শুধু বাংলাদেশেই নয় নারী নির্যাতন সমগ্র বিশ্বেই একটা ভয়াবহ সমস্যা। এই যৌন হয়রানি বন্ধে প্রয়োজন একটি সমন্বিত আইন।

তারা বলেন, এক বছরের অবুঝ শিশু থেকে ১০০ বছরের বৃদ্ধাও নিপীড়নের হাত থেকে রেহাই পাচ্ছেনা। নির্যাতনকারীদের বিকৃত মানসিকতা থেকে শিশু, বৃদ্ধা, তরুণী কেউ নিরাপদ নয়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিবেদন উল্লেখপূর্বক সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, বিশ্বের প্রায় এক-তৃতীয়াংশ নারী যৌন নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। প্রতিনিয়ত যৌন নিপীড়ন, নির্যাতনসহ বিভিন্ন ঘটনাসমূহ সাধারণ মানুষের জীবনকে বিপন্ন, ভয়ঙ্কর করে তুলছে। আমরা মনে করি এটি কোন সুস্থ সমাজ ও রাষ্ট্র ব্যবস্থার জন্য কাম্য নয়। নারী ও শিশুর জন্য যৌন হয়রানি মুক্ত পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে। যৌন হয়রানি প্রতিরোধে সমন্বিত আইন প্রণয়ন করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরামের সম্পাদক নাসিম আক্তার জলি, ওয়াহিদা বানুসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। 

আপনার মতামত লিখুন :