জাতিসংঘের বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে যোগ দিলেন রাবাব ফাতেমা

নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
রাবাব ফাতেমা, ছবি: সংগৃহীত

রাবাব ফাতেমা, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

জাতিসংঘে নব নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতেমা তার নতুন কর্মস্থলে যোগ দিয়েছেন। গত শুক্রবার (২৯ নভেম্বর) নিউইয়র্কে পৌঁছার পর পরই মিশনে যোগ দেন তিনি।

চলতি সপ্তাহেই তিনি জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিয় গুতেরেসের কাছে পরিচয়পত্র দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব শুরু করবেন বলে মিশন সূত্রে জানা গেছে। খবর ইউএনএ’র।

রাবাব ফাতেমা স্থায়ী প্রতিনিধি হিসেবে যোগ দেয়ার আগে জাপানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ছিলেন। তিনি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেনের স্থলাভিষিক্ত হলেন। এদিকে রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সচিব (দ্বিপাক্ষিক) হিসেবে যোগ দেবেন। পরে তিনি পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হকের স্থলাভিষিক্ত হবেন বলে কূটনৈতিক সূত্রে জানা গেছে। অভিজ্ঞ কূটনীতিক রাবাব ফাতেমা হলেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের ১৪তম স্থায়ী প্রতিনিধি।

ঢাকার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, রাষ্ট্রদূত রাবাব ১৯৮৬ সালে বিসিএসের মাধ্যমে পররাষ্ট্র ক্যাডারে যোগ দেন। বর্ণাঢ্য কূটনীতিক ক্যারিয়ারে তিনি নিউইয়র্কে বাংলাদেশ মিশন ছাড়াও জেনেভা, কলকাতা এবং বেইজিংয়েও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংস্থায়ও গুরুত্বপূর্ণ পদে কাজ করেছেন রাষ্ট্রদূত রাবাব।

যুক্তরাষ্ট্রের টাফটস বিশ্ববিদ্যালয়ের কূটনীতি ও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেছেন তিনি।

রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতেমার স্বামী স্বনামধন্য কূটনীতিক কাজী ইমতিয়াজ হোসাইন ফ্রান্সে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত। কাজী ইমতিয়াজ এর আগে নিউইয়র্কে বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তাদের এক মেয়ে রয়েছেন।

উল্লেখ্য, ১৯৭৪ সালে জাতিসংঘের সদস্যপদ লাভ করার পর রাবাবই দ্বিতীয় কোনো নারী কূটনীতিক, যিনি বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে যাচ্ছেন। এর আগে ২০০৭ থেকে ২০০৯ পর্যন্ত জাতিসংঘে বাংলাদেশের প্রথম স্থায়ী প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করেছেন ইসমত জাহান। আরো উল্লেখ্য, নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেটে প্রথম নারী কনসাল জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন সাদিয়া ফয়জুননেসা।

আপনার মতামত লিখুন :