মঙ্গলবার মাঠে নামছেন নির্বাহী হাকিম



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আসন্ন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে মাঠে নামছেন নির্বাহী হাকিম। মঙ্গলবার (২৪ ডিসেম্বর) থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত তারা ভোটের মাঠে থাকবেন।

উত্তর ও দক্ষিণ সিটির ভোটকে কেন্দ্র করে দু’দফায় মোট ১৭২ জন নির্বাহী হাকিম থাকবেন। তাদের মূল কাজই হবে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে অপরাধীদের শাস্তির আওতায় আনা। ইসির উপ-সচিব মো. আতিয়ার রহমান নির্বাহী হাকিমদের মাঠে নামানো সংক্রান্ত নির্দেশনা ইতিমধ্যে জনপ্রশাসন সচিবকে পাঠিয়েছেন।

আতিয়ার রহমান জানান, দু’সিটিতে এবার ১৭২ জন নির্বাহী হাকিম নিয়োগ করা হচ্ছে। এদের মধ্যে ডিএনসিসিতে দায়িত্ব পালন করবেন ৭২ জন এবং ডিএসসিসিতে থাকবেন ১০০ জন।

মঙ্গলবার (২৪ ডিসেম্বর) থেকেই দু’সিটির ভোটের এলাকা চষে বেড়াবেন ৪৩ জন। তারা ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন। আর ১২৯ জন নামবেন ভোটের দু’দিন আগে। অর্থাৎ ২৮ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন তারা।

জনপ্রশাসন সচিবকে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, এই দুই সিটি নির্বাচনে নির্বাহী হাকিমরা মোবাইল কোর্ট আইন-২০০৯ অনুযায়ী নির্বাচনী আচরণ বিধি প্রতিপালন, স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইন-২০০৯ ও স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) বিধিমালা-২০১০ অনুযায়ী, নির্বাচনী অপরাধ রোধ ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার্থে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার জন্য ভোটের পরের দিন অর্থাৎ ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন।

মো. আতিয়ার রহমান জানান, এই বিরাট সংখ্যক নির্বাহী হাকিম ছাড়াও ভোটের দু’দিন আগে নিয়োগ করা বিচারিক হাকিম। এক্ষেত্রে প্রতি তিন ওয়ার্ডের জন্য একজন করে বিচারিক হাকিম দায়িত্ব পালন করবেন। দুই সিটিতে বিচারিক হাকিম নিয়োজিত থাকবেন ৪৩ জন। এদের মধ্যে উত্তর সিটিতে ১৮ জন এবং দক্ষিণ সিটিতে ২৫জন দায়িত্ব পালন করবেন।

তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়ন দাখিলের শেষ সময় ৩১ ডিসেম্বর, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ২ জানুয়ারি। প্রার্থিতা প্রত্যাহার ৯ জানুয়ারি, প্রতীক বরাদ্দ হবে ১০ জানুয়ারি। আর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ৩০ জানুয়ারি।