শীর্ষ সন্ত্রাসী সুব্রত বাইন পরিচয়ে প্রতারণা, আটক ৩



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
আটক তিনজন, ছবি: সংগৃহীত

আটক তিনজন, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নিজেকে শীর্ষ সন্ত্রাসী সুব্রত বাইন বলে পরিচয় নিয়ে প্রতারণা করার অভিযোগে প্রতারক চক্রের তিন সদস্যকে আটক করেছে ডিএমপির সিরিয়াস ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ।

আটক ব্যক্তিরা হলেন- মো. বেলায়েত হোসেন ওরফে ইলিয়াস (৪৮), মো. কাইয়ুম মিয়া ওরফে বাবুল ওরফে মোস্তফা (৪৯) এবং মো. জুয়েল মিয়া (৩০)।
বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) রাতে বার্তা২৪.কমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডিএমপি পুলিশের ডিবির সিরিয়াস ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার আশরাফউল্লাহ।

তিনি বলেন, ১১ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর দারুস সালাম এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত ছয়টি মোবাইল ফোন, সাতটি সিম, একটি টেলিফোন নির্দেশিকা ও একটি ভারতীয় সিম উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে অভিযুক্তরা ভারতীয় মোবাইল সিম ও বাংলাদেশি মোবাইল ফোনের সিম দিয়ে পরস্পর যোগসাজশে টেলেফোন ডাইরেক্টরি থেকে টার্গেটেড ব্যক্তির নাম, ঠিকানা ও মোবাইল ফোন নম্বর সংগ্রহ করতেন। পরে সীমান্তবর্তী এলাকা বেনাপোল ও দিনাজপুরের হাকিমপুর থেকে ইন্ডিয়ান মোবাইল নেটওয়ার্ক কাভারেজ হয়ে বাংলাদেশের গুরুত্বর্পর্ণ ব্যক্তিদের শীর্ষ সন্ত্রাসী সুব্রত বাইন, আরমান, শহিদসহ অন্যান্য সন্ত্রাসীদের পরিচয় দিয়ে মিডিয়া ও রাজনৈতিক অঙ্গনে চাঞ্চল্যকর সৃষি্ট করেছে।

আশরাফউল্লাহ বলেন, অভিযুক্তরা শীর্ষ সন্ত্রাসী সুব্রত বাইনের পরিচয় দিয়ে বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের তাদের কিছু সদস্য গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত অবস্থায় ইন্ডিয়ায় চিকিৎসাধীন আছে। তারা বলেছিলেন, আহতদের চিকিৎসার জন্য ১৫ লাখ টাকা দরকার। ১০ লাখ সংগ্রহ হয়েছে, বাকিটা আপনি দেবেন। এভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে বিকাশে চাঁদা আদায় করতেন এ তিনজন।