নেপালে বিদেশি বিনিয়োগ রক্ষা করা খুব জরুরি

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম (বাঁয়ে) ও প্রদীপ কুমার গাওয়ালি (মাঝে), ছবি: বার্তা২৪.কম

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম (বাঁয়ে) ও প্রদীপ কুমার গাওয়ালি (মাঝে), ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রদীপ কুমার গাওয়ালি বলেছেন, নেপালে বিদেশি বিনিয়োগ রক্ষা করা খুব জরুরি। তাই বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য চুক্তি করতে নেপাল মুখিয়ে আছে।

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজের (বিআইআইএসএস-বিস) ‘বাংলাদেশ-নেপাল সম্পর্ক: দক্ষিণ এশিয়ার প্রগতি শীর্ষক সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, দুই দেশ কীভাবে সংযোগ, ট্রানজিট, পরিবহন এবং বিদ্যুৎ খাতের সহযোগিতা বিকাশ করতে পারে, তা নিয়ে এবার আলোচনা করেছে। আমরা একটি টাস্কফোর্স গঠন করব, যা বাণিজ্য এবং সংযোগ বিকাশের উপায়গুলো নিয়ে আলোচনা করবে।

বাংলাদেশ সম্প্রতি ভারতীয় সংস্থা জিএমআরকে নেপালের জলবিদ্যুতে বিনিয়োগের অনুমতি দিয়েছে। যা জিএমআর গ্রুপের মাধ্যমে নেপাল থেকে বাংলাদেশে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ করবে। এটি বিদ্যুৎ খাতের সহযোগিতার এক নতুন অধ্যায় উন্মুক্ত করবে, নেপাল মেগা প্রকল্পের সুষ্ঠু নির্মাণের সুবিধার্থে সমস্ত ব্যবস্থা করেছে, যোগ করেন তিনি।

বাংলাদেশ ও নেপাল গত বছর বিদ্যুৎ সহযোগিতা নিয়ে একটি সমঝোতা স্বাক্ষর করেছে উল্লেখ করে নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দু’টি দেশ একটি অগ্রাধিকার বাণিজ্য চুক্তি (পিটিএ) স্বাক্ষর করতে কাজ করে যাচ্ছে। পিটিএর খসড়া নিয়ে আলোচনা চলছে। আশা করি, আমরা এটি চূড়ান্ত করব। বিনিয়োগ রক্ষায় দ্বিপাক্ষিক চুক্তিটিও টেবিলে রয়েছে। আমরা প্রত্যাশা করছি যে এটি তাড়াতাড়িই করব।

প্রদীপ কুমার বলেন, বিদেশি বিনিয়োগ রক্ষা করা খুব জরুরি।

সেমিনারে অনেকের মধ্যে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম এবং বিআইআইএসএসের চেয়ারম্যান রাষ্ট্রদূত এম ফজলুল করিম বক্তব্য দেন।

আপনার মতামত লিখুন :

এ সম্পর্কিত আরও খবর