মোবাইল অপারেটরদের কাজে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার বাধা

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনা পরিস্থিতিতে দশ দিনের ছুটিতে ইন্টারনেট এবং টেলিযোগাযোগকে জরুরি সেবা হিসেবে সরকার ঘোষণা দিলেও দেশের বিভিন্ন স্থানে মোবাইল অপারেটরের কর্মীরা আইন প্রয়োগকারী সংস্থার মাধ্যমে নানা রকম বাধার মুখোমুখি হচ্ছেন।

বুধবার (২৫ মার্চ) এ অভিযোগ করেছে মোবাইল ফোন অপারেটরদের সংগঠন অ্যামটব।

এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তারা বলছেন, নেটওয়ার্ক পরিচালন, রিচার্জ ও বিতরণ এবং গ্রাহকসেবা (কাস্টমার সার্ভিস) দানকালে তারা আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছে বাধাগ্রস্ত হচ্ছেন। তবে ঠিক কোথায় কোথায় তারা বাধাপ্রপ্ত হয়েছেন সেটি বলেননি।

"আমরা আইন প্রয়োগকারী সংস্থার দায়িত্বশীল কর্মকর্তাদের তাদের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যথাযথভাবে যোগাযোগের জন্য অনুরোধ করছি যেন মোবাইল সেবাদাতারা কোনরকম বাধাবিঘ্ন ছাড়াই দেশব্যাপী নিরবচ্ছিন্নভাবে তাদের পরিষেবাগুলো চালিয়ে যেতে পারে এবং তাদের অফিস খুলতে পারে," বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।

গত মঙ্গলবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এক বিজ্ঞপ্তিতে বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস, ফায়ার সার্ভিস, পরিষ্কারের কাজের সঙ্গে সঙ্গে টেলিফোন এবং ইন্টারনেটকে জরুরি সেবা ঘোষণা করে সেগুলোকে শাটডাউনের আওতামুক্ত রেখেছে।

সে কারণে মোবাইল অপারেটরদের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে এবং অফিস খোলা থাকছে। তবে বাধাপ্রাপ্ত হওয়ায় কোথাও গ্রাহক সেবা বঞ্চিত হতে পারে বলেও জানানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :