সাধারণ ছুটিতে যেসব পরিষেবা চালু

  বাংলাদেশে করোনাভাইরাস

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে গত ২৬ মার্চ সরকার ঘোষিথ সাধারণ ছুটি চলছে। দুই ধাপে ঘোষণা করা এই সাধারণ ছুটি আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে।

দেশে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাওয়ায় সাধারণ ছুটি আবারও বাড়ানো হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সাধারণ ছুটির মধ্যে যেসব পরিষেবা চালু থাকবে তার একটি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস স্বাক্ষরিত ওই নির্দেশনায় বলা হয়েছে, করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধের লক্ষ্যে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি এবং জনস্বার্থে চলাচল ও গমনাগমন নিষেধাজ্ঞা, নিয়ন্ত্রণ ও নিবৃত্তিমূলক যেকোন ব্যবস্থাকালে জরুরিসেবা ও সরবরাহ শৃঙ্খলা যথাসম্ভব স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে নিম্নোক্ত পরিষেবাগুলো চালু থাকবে।

পরিসেবাগুলো হলো— (ক) জরুরি পরিষেবা যেমন: বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস, ফায়ার সার্ভিস, পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম, টেলিফোন ও ইন্টারনেট এবং এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নিয়োজিত যানবাহন কর্মী।

(খ) চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত এবং ওষুধসহ চিকিৎসা সরঞ্জমাদি বহনকারী যানবাহন ও কর্মী।

(গ) ওষুধ শিল্প সংশ্লিষ্ট যানবাহন ও কর্মী।

(ঘ) নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রী, খাদ্যদ্রব্য, শিশু খাদ্য, দুগ্ধ ও দুগ্ধজাত দ্রব্য এবং পশু খাদ্য পরিবহনকাজে নিয়োজিত যানবাহন ও কর্মী।

(ঙ) কৃষি পণ্য, সার, কীটনাশক, জ্বালানি ইত্যাদি পণ্য পরিবহনকাজে নিয়োজিত যানবাহন ও কর্মী।

(চ) কৃষিজ পণ্য উৎপাদন, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতের উৎপাদন, দুগ্ধ পণ্য উৎপাদন, খাদ্যদ্রব্য উৎপাদনসহ জীবনধারণের মৌলিক পণ্য উৎপাদন ও পরিবহনকাজে নিয়োজিত যানবাহন ও কর্মী।

(ছ) উপরোক্ত পরিষেবাসমূহ সংশ্লিষ্ট রক্ষণাবেক্ষণ কাজে নিয়োজিত যানবাহন ও কর্মী।

আপনার মতামত লিখুন :

  বাংলাদেশে করোনাভাইরাস