বরিশালে লঞ্চে লঞ্চে প্রশাসনের কঠোর নজরদারি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, বরিশাল
বরিশালে লঞ্চে লঞ্চে প্রশাসনের কঠোর নজরদারি

বরিশালে লঞ্চে লঞ্চে প্রশাসনের কঠোর নজরদারি

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে বরিশাল থেকে ঢাকা ও চাঁদপুরের উদ্দেশে ছেড়ে আসা লঞ্চগুলোতে যাত্রীদের সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করা ও স্বাস্থ্যবিধি মানার জন্য কঠোর নজরদারি করছে জেলা প্রশাসন ও বিআইডব্লিউটিএর কর্মকর্তারা ।

সোমবার (১ জুন) বিকেল থেকে পল্টুন, নদী বন্দরের আশপাশ এলাকা এবং লঞ্চে লঞ্চে গিয়ে নজরদারি করা হয়। এছাড়াও নির্ধারিত সময়ের একঘণ্টা আগে ঢাকার উদ্দেশে বরিশাল লঞ্চ টার্মিনাল ছাড়তে ৫টি লঞ্চকে বাধ্য করেছে এই কর্মকর্তারা।

বরিশাল জেলা প্রশাসন ও বিআইডব্লিউটিএ সূত্রে জানা গেছে, করোনাভাইরাসের কারণে টানা ৬৬ দিন বন্ধের পর ঢাকার উদ্দেশে দ্বিতীয় দিনের মতো কয়েক হাজার যাত্রী নিয়ে বরিশাল ছেড়ে গেছে একটি ওয়াটার বাসসহ পাঁচটি বিলাসবহুল লঞ্চ।

সোমবার (১ জুন) রাত ৮টার মধ্যে এমভি সুন্দরবন, এমভি অ্যাডভেঞ্চার, এমভি কুয়াকাটা, এমভি ফারহান এবং এমভি সুরভী লঞ্চ ঢাকার উদ্দেশে বরিশাল লঞ্চ টার্মিনাল ত্যাগ করে। এর আগে বিকেলে ছেড়ে যায় গ্রীন লাইন ওয়াটার বাসটি।

সরেজমিনে দেখা গেছে, প্রায় দুই মাসের বেশি সময় ধরে লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকায় সোমবার দুপুর থেকে লঞ্চ টার্মিনালে ভিড় বাড়তে থাকে যাত্রীদের।

প্রবেশ পথে জীবাণুনাশক স্প্রে ছিটানো, তাপমাত্রা যন্ত্র দিয়ে যাত্রীদের তাপমাত্রা মাপা হলেও লঞ্চের ডেকে সামাজিক দূরত্বের রংয়ের দাগ থাকলেও তা মানছে না যাত্রীরা। এছাড়াও ডেকে ঠাসাঠাসি করে বসে থাকা অনেকের মুখেই মাস্ক দেখা যায়নি।

ফলে বিকেলে থেকেই বরিশালের জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমানের নির্দেশে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াউর রহমান মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে। এতে কোনো জরিমানা করা না হলেও বারবার এসব লঞ্চে ওঠে হ্যান্ড মাইকে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত ও স্বাস্থ্যবিধি মানার জন্য যাত্রীদের বলা হয়।

পাশাপাশি নদীবন্দর এলাকা, পল্টুন ও লঞ্চের সামনে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত ও স্বাস্থ্যবিধি মানার জন্য হ্যান্ড মাইকিং করেন বিআইডব্লিউটিএ বরিশাল নদী বন্দর ও পরিবহন বিভাগের যুগ্ম পরিচালক মো. আজমল হুদা মিঠু সরকার। এছাড়াও স্বাস্থ্য ঝুঁকি এড়াতে ও লঞ্চের ভিড় কমাতে কয়েকশ যাত্রীকে বাড়িতে ফিরিয়ে দিয়েছেন এই কর্মকর্তারা।

বরিশাল জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াউর রহমান জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে লঞ্চে যাত্রী তুলছে কিনা এবং লঞ্চঘাটে কতটা স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে তা মনিটরিং করার জন্য বরিশালের জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এস এম অজিয়র রহমানের নির্দেশনায় লঞ্চঘাট এলাকায় বিকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করা হয়।

জনস্বার্থে বরিশাল জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান এই ম্যাজিস্ট্রেট।

আপনার মতামত লিখুন :