সাক্ষাৎকারদাতাদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে আল জাজিরা

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
লকডআপ ইন মালয়েশিয়ান লকডাউন-১০১ ইস্ট শীর্ষক প্রোগাম, ছবি: সংগৃহীত

লকডআপ ইন মালয়েশিয়ান লকডাউন-১০১ ইস্ট শীর্ষক প্রোগাম, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশি তরুণ রায়হান কবিরসহ একটি প্রতিবেদনে প্রচারিত সাক্ষাৎকার দাতাদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে কাতারের সংবাদভিত্তিক চ্যানেল আল জাজিরা। করোনাভাইরাস মহামারির সময় মালয়েশিয়ায় অভিবাসী শ্রমিকদের ওপর নিপীড়নের একটি তথ্যচিত্র প্রকাশের পর থেকে মালয়েশিয়া সরকার এবং পুলিশের রোষানলে পড়ে আল জাজিরা।

লকডআপ ইন মালয়েশিয়ান লকডাউন-১০১ ইস্ট-শীর্ষক ডকুমেন্টারিতে মালয়েশিয়ায় অভিবাসী শ্রমিকদের নিয়ে করা প্রতিবেদনটিতে মিথ্য সংবাদ পরিবেশনের অভিযোগ অস্বীকার করে বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে আল জাজিরা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, পক্ষপাতমূলক সাংবাদিকতা বা গুণগত বিষয়ে যে প্রশ্ন তুলেছে মালয়েশিয়া সরকার- সেটি অবান্তর।

বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) সন্ধ্যায় এক বিবৃতিতে বলা হয়, মালয়েশিয়া পুলিশ আল জাজিরার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদোহ, মানহানি এবং শৃঙ্খলা লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছে দেশটির কমিউনিকেশন এবং মাল্টিমিডিয়া এ্যাক্টের অধীনে।

একইসঙ্গে আল জাজিরা বলেছে, মালয়েশিয়াতে প্রতিষ্ঠানটির কর্মীরা অনলাইন হয়রানির শিকার হচ্ছেন এবং মৃত্যুর হুমকি পাচ্ছেন। এছাড়া তাদের ব্যক্তিগত বিষয়গুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষকে আমরা বলবো, গণমাধ্যমের স্বাধীনতাকে সন্মান করতে এবং সাংবাদিককে অপরাধী হিসেবে নির্দেশ না করতে।’

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, ৩ জুলাই ‘লকডআপ ইন মালয়েশিয়ান লকডাউন-১০১ ইস্ট’ শীর্ষক অনুসন্ধানমূলক ডকুমেন্টারিটি প্রকাশিত হওয়ার পর থেকে বিষয়টি নিয়ে যেভাবে প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে সেক্ষেত্রে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছে আল জাজিরা।’

আল জাজিরা বলেছে, ডকুমেন্টারি অনুষ্ঠানটি প্রতি সপ্তাহে প্রচারিত হয় এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে। সর্বোচ্চ গুণসম্পন্ন এই অনুষ্ঠানটিতে গভীরতা দিয়েই সাংবাদিকতা করা হয় বলে সুনাম রয়েছে। অনেকগুলো অনুষ্ঠান দুনিয়াজুড়ে বেশ কিছু সন্মানিত এ্যাওয়ার্ডেও ভূষিত হয়েছে।

আল জাজিরা ওই বিবৃতিতে আরও জানায়, বারবার অনুরোধ ও চেষ্টা করেও প্রতিবেদনে মালয়েশিয়ার সরকারের তরফ থেকে কোনো মন্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। এরপর এখন যেভাবে সংবাদ মাধ্যমটির কর্মীদের হয়রানি করা হচ্ছে, এর ফলে মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত কর্মীরা মৃত্যুভয়ে রয়েছেন।

এ ছাড়া প্রতিবেদনে সাক্ষাৎকারদাতাদের যেভাবে অনলাইনে হয়রানি করা হচ্ছে এবং ঘৃণা ছড়ানো হচ্ছে, তাদের নিরাপত্তা নিয়েও শঙ্কা প্রকাশ করেছে আল জাজিরা।

মানুষকে মুক্তভাবে গণমাধ্যমে কথার বলতে দেওয়ার জন্য এবং এ কারণে হয়রানি না করার জন্য মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানিয়েছেন সংবাদ মাধ্যমটি।

আপনার মতামত লিখুন :