উপকূলীয় অঞ্চলে বিদেশি জাহাজে বাণিজ্যিক পণ্য পরিবহন নয়

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

জাতীয় সংসদ ভবন থেকে:

রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী জাহাজের সুরক্ষায় নতুন আইন পাস করেছে সংসদ। মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) রাতে ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংসদ অধিবেশনে বিলটি পাসের প্রস্তাব উত্থাপন করেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

যদিও বিলটি অধিকতর যাচাই-বাছাই করার প্রস্তাব দেন বিরোধী দলীয় একাধিক সংসদ সদস্য। তবে তাদের সেই প্রস্তাব কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়। পরে বিলটি পাসের প্রস্তাব কণ্ঠভোটে দিলে তা সর্বাধিক সমর্থন নিয়ে পাস হয়। এর আগে গত ১১ সেপ্টেম্বর বিলটি সংসদে উত্থাপন করে

বাংলাদেশের পতাকাবাহী জাহাজ (সুরক্ষা) বিল-২০১৯ সংসদে উত্থাপন করেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী। পরে বিলটি পরীক্ষার জন্য নৌ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়। সংসদীয় কমিটি বিলটি চূড়ান্ত করে গত ২৩ সেপ্টেম্বর রিপোর্ট দেয়।

মূলত উচ্চ আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী সামরিক আমলের আইনকে বাংলায় রূপান্তর করে নতুন আইন করতে এই বিল আনা হয়েছিল।

বিলে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের বৈদেশিক বাণিজ্যে যেসব পণ্য সমুদ্রপথে পরিবহন করা হয়, সেসব পণ্যের সর্বনিম্ন ৫০ শতাংশ বাংলাদেশের পতাকাবাহী জাহাজে পরিবহন করতে হবে। কোনো জাহাজ এ আইনের কোনো বিধান লঙ্ঘন করলে ওই জাহাজকে সর্বোচ্চ পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত প্রশাসনিক জরিমানা করা হবে।

১৯৮২ সালের এ–সংক্রান্ত অধ্যাদেশ অনুযায়ী সমুদ্রপথে পরিবাহিত পণ্যের ৪০ শতাংশ বাংলাদেশের পতাকাবাহী জাহাজে পরিবহনের বিধান ছিল। তবে ওই অধ্যাদেশে জরিমানার পরিমাণ নির্ধারণ করা ছিল না।

পাস হওয়া আইনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের পতাকাবাহী জাহাজ নয়—এমন কোনো বিদেশি জাহাজ দিয়ে উপকূলীয় অঞ্চলে বাংলাদেশের বাণিজ্যিক পণ্য পরিবহন করা যাবে না।

আপনার মতামত লিখুন :