করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় হাসপাতাল প্রস্তুত রাখার সুপারিশ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণায়ের ভূমিকায় অসন্তোষ সংসদীয় কমিটি। চিকিৎসক, নার্সদের সুরক্ষায় পিপিই আরো আগে থেকে কেনো প্রস্তুত করা হলো না এসব বিষয় নিয়ে মন্ত্রণালয়ের কাছে জানতে চায় সংসদীয় কমিটি। তবে যা হবার হয়েছে এখন থেকে আরো বেশি তৎপর থাকতে মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি। এনিয়ে করোনা পরিস্থিতির মধ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে স্বাস্থ্য মন্ত্রীর উপস্থিত না থাকাতেও অনেকে অসন্তোষ প্রকাশ করা হয়েছে।

কেননা মন্ত্রী বৈঠকে থাকলে পুরো মন্ত্রণালয়ের সার্বিক প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা করতে পারতেন সদস্যরা। বৈঠকে উপস্থিত একজন সিনিয়র সদস্য বার্তা২৪.কমকে বলেন, মন্ত্রী থাকলে নিশ্চয়ই ভালো হতো উনি কেনো আসলেন না সেটা উনি বলতে পারবেন। তবে আমাদের জানানো হয়েছে উনার মা নাকি অসুস্থ। মন্ত্রী থাকলে অনেক কিছুই বুঝতে সহজ হয়।

করোনা পরিস্থিতিতে হাসপাতালগুলো প্রস্তুত রাখার জন্য সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি। পাশাপাশি শুধু স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়সহ সকল মন্ত্রণালয়, সকল বিভাগ থেকে শুরু করে ব্যক্তি পর্যায়ে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানানো হয়েছে। যার যার অবস্থান থেকে সর্তক থাকতে বলা হয়েছে।

দেশের বিভিন্ন এলাকায় করোনা রোগী শনাক্ত ও এর সংক্রমণ মোকাবিলায় গৃহীত প্রয়োজনীয় পদক্ষেপসমুহ ত্বরান্বিত করতে ডাক্তার নার্স ও ওয়ার্ড বয়সহ যে সমস্ত পরিচ্ছন্ন কর্মী রয়েছে তাদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা ব্যবস্থায় প্রয়োজনীয় সংখ্যক ব্যক্তিগত নিরাপত্তা সরঞ্জাম (পিপিই) সরবরাহের জন্য যত দ্রুত সম্ভব কার্যকরী ভূমিকা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করতে পর্যাপ্ত কীট সরবরাহ এবং আক্রান্ত রোগীকে আইসোলেশন রাখার জন্য পর্যাপ্ত কোয়ারেন্টাইন ব্যবস্থা এবং আইসিইউ সুবিধা রয়েছে কিনা সে বিষয়ে তদারকি করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করা হয়।

দেশ, জাতি, সমাজ ও ব্যক্তির স্বার্থে গণ জামায়েত এড়িয়ে চলতে এবং সরকারের গৃহীত সিদ্ধান্ত মেনে দেশের সকল জনসাধারণকে তাদের চলাচলকে সীমিত রাখতে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে নিজ গৃহে অবস্থান করার পরামর্শ দিয়েছে সংসদীয় কমিটি।

বৈঠক শেষে কমিটি সদস্য সাবেক মন্ত্রী ডা. আ ফ ম রুহুল হক বার্তা২৪.কমকে বলেন, 'হাসপাতালগুলো প্রস্তুত রাখার জন্য বলা হয়েছে। এছাড়া ডাক্তার, নার্স, ওয়ার্ড বয় যারা আছে তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে। আসলে শুধু স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় নয় সকলকে এগিয়ে আসতে হবে'।

কমিটি সভাপতি শেখ ফজলুল করিম সেলিমের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটি সদস্য আ.ফ.ম. রুহুল হক, মুহিবুর রহমান মানিক, মো: আব্দুল আজিজ, সৈয়দা জাকিয়া নূর অংশগ্রহণ করেন।

বৈঠকে স্বাস্থ্য সচিবসহ মন্ত্রণালয়ের অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :