গৌরীপুর পৌর আ.লীগের সভাপতির পদ থেকে সৈয়দ রফিকুলকে অব্যাহতি



উপজেলা করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, গৌরীপুর (ময়মনসিংহ)
ছবি প্রতীকী।

ছবি প্রতীকী।

  • Font increase
  • Font Decrease

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান শুভ্র হত্যাকাণ্ডে সম্পৃক্ততার কারণে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি সৈয়দ রফিকুল ইসলামকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। তিনি গৌরীপুর পৌরসভার বর্তমান মেয়র।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) বিকেলে গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডা. হেলাল উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে এক জরুরি সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সৈয়দ রফিকুল ইসলামকে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতির পদ থেকে অব্যাহতি প্রদান সহ দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ওই সভায় ময়মনসিংহ-৩ গৌরীপুর আসনের সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

মঙ্গলবার রাতে উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডা. হেলাল উদ্দিন আহমেদ জানান, অব্যাহতির আদেশপত্র জেলা ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

অব্যাহতিপত্র

জানা গেছে, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মাসুদুর রহমান শুভ্রর বাড়ি পৌর শহরের কালীপুরে। তিনি পৌরসভার মেয়র প্রার্থী হিসেবে প্রচারণায় ছিলেন। গত শনিবার রাতে পৌর শহরের পানমহালে একদল সন্ত্রাসী মাসুদুর রহমান শুভ্রসহ তার দুই সহযোগীকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। পুলিশ ও স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে ওইদিন রাতে মাসুদুর রহমান শুভ্রর মৃত্যু হয়।

এদিকে মাসুদুর রহমান শুভ্র হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তার ছোট ভাই আবিদুর রহমান প্রান্ত বাদী হয়ে গৌরীপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলায় আসামি করা হয়েছে উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ও মইলাকান্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াদুজ্জামান রিয়াদ ও গৌরীপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলামসহ নাম উল্লেখ ১৪ জন ও অজ্ঞাত ৭-৮ জনকে। ইতোমধ্যে পুলিশ মামলার প্রধান আসামি ইউপি চেয়ারম্যান রিয়াদুজ্জামান, জাহাঙ্গীর আলম, রাসেল ও মজিবুরকে গ্রেফতার করেছে।