জনগণের আস্থা হারিয়ে আ.লীগ প্রার্থী গণসংযোগে বাধা দিচ্ছে: জাহাঙ্গীর



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
বিএনপি প্রার্থীর গণসংযোগে

বিএনপি প্রার্থীর গণসংযোগে

  • Font increase
  • Font Decrease

জনগণের ওপর আস্থা হারিয়ে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা প্রতিনিয়ত ধানের শীষের গণসংযোগে বাধা দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন।

তিনি নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, যতই বাধা আসুক আগামী ১২ নভেম্বর ফলাফল না হওয়া পর্যন্ত আমরা ভোট কেন্দ্রে থাকবো। বিজয় নিয়েই ঘরে ফিরব।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) গণসংযোগে এ অভিযোগ করেন বিএনপি প্রার্থী।

বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ও বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী নিয়ে খিলক্ষেত থানার কুড়াতলি এলাকা থেকে গণসংযোগ শুরু করেন এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন। এরপর কুড়িল, বিশ্ব রোড, জোয়ার সাহারা, বসুন্ধরা গেইট হয়ে জগ্ননাথপুরে গণসংযোগ শেষ করেন।

এ সময় জাহাঙ্গীর ঘোষণা বলেন, ঢাকা-১৮ আসনের মানুষ খালেদা জিয়া, তারেক রহমান ও গণতন্ত্রের প্রতীক ধানের শীষের পক্ষে ঐক্যবদ্ধ আছেন।

তিনি বলেন, গতকাল প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সাথে আমাদের মিটিং ছিল। তারা বলেছে, আপনাদের নেতাকর্মীরা যখন ধানের শীষের ভোট চাইতে বের হয় তখন হাজার হাজার নেতাকর্মী গণসংযোগে বের হন। হাজার হাজার মানুষ বের হয় সিইসি বলেছেন। আরও বলেছেন, এলাকার রাস্তাঘাট ভালো না, এলাকার উন্নয়ন নেই, নেতাকর্মী কম করে নিয়েন। তখন আমি বলেছি, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ১৯৯১ সালের নির্বাচনে জয়ী হয়ে এই এলাকার যত উন্নয়ন তিনি করেছেন। আর কেউ উন্নয়ন করেনি।

বিএনপি প্রার্থী, এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, আমরা বিশ্বাস করি, আাগামী ১২ নভেম্বর জনগণ ঐক্যবদ্ধভাবে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিবেন। আর আমাদের নেতাকর্মীরা পোলিং এজেন্ট হিসেবে ভোট কেন্দ্রে থাকবেন, কেন্দ্রে থাকেবন। সকাল সকাল কেন্দ্রে যাবো রেজাল্ট হাতে না পাওয়া পর্যন্ত কেন্দ্রে অবস্থান করবো।

তিনি বলেন, গত ১২ বছর ধরে জনগণ ভোট দিতে পারছেন না। বেগম খালেদা জিয়া ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য আন্দোলন করে আসছেন। আমাদের নেত্রী বলেছেন, স্বাধীনতা যুদ্ধে যে আমরা জীবন দিয়েছি, তেমনি গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনতে আমরা প্রয়োজনের আবারও জীবন দিব। তারপরও গণতন্ত্র ও জনগণের ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনবোই ইনশাআল্লাহ।

এ সময় ঢাকা মহানগর দক্ষিণের বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন, ছাত্রদলের সাবেক নেতা রাজীব আহসান, আকরামুল হাসান, মহানগর বিএনপি নেতা কাজী হজরত আলী, ছাত্রদলের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান আমিন, ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি ফকরুউদ্দিন রবিন, সাধারণ সম্পাদক গাজী রেজাউল হক রিয়াজসহ বিএনপি ও তার অঙ্গসংগঠনের কয়েক হাজার নেতাকর্মী গণসংযোগে অংশ নেন।