'বিরোধী দলের কর্মসূচি দেখলেই আঁতকে উঠছে সরকার'



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম,ঢাকা
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর/ ফাইল ছবি

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর/ ফাইল ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

সরকার বিরোধী দলের যেকোন কর্মসূচি দেখলেই আঁতকে উঠছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

সোমবার (২৫ জানুয়ারি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ মন্তব্য করেন তিনি।

বিবৃতিতে ফখরুল বলেন, গাজীপুর জেলাধীন শ্রীপুর উপজেলা ও শ্রীপুর পৌর বিএনপি’র উদ্যোগে দুই এলাকায় কর্মীসভার উদ্দেশ্যে নির্মিত দু’টি মঞ্চ গতরাতে যুবলীগ-ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়েছে। পরবর্তীতে অন্য দুই স্থানে কর্মীসভার আয়োজন করা হলেও পুলিশ বাধা দিয়ে কর্মীসভাগুলো পণ্ড করে দেয়।

এ ধরণের কাপুরুষোচিত ও ন্যাক্কারজনক ঘটনায় দেশের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন ফখরুল।

বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, 'বর্তমান মিড নাইট সরকারের আমলে দেশের সর্বত্র অন্যায় ও অবিচারের দোর্দণ্ড প্রতাপ চলছে। দেশে আইন-কানুনের বালাই নেই বলেই সরকারদলীয় সন্ত্রাসী ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর দ্বারা বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলোর যেকোন শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতেও বাধা দিয়ে তা পণ্ড করা হচ্ছে। আসলে সরকারের পায়ের নীচের মাটি সরে গেছে বলেই ক্ষমতা হারানোর অজানা আতঙ্কে তারা বিরোধী দলের যেকোন কর্মসূচি দেখলেই আঁতকে উঠছে। তাই দলীয় সন্ত্রাসী ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনী দিয়ে বিএনপিসহ বিরোধী দল ও মতের ওপর চালানো হচ্ছে অবর্ণনীয় নিপীড়ণ-নির্যাতন।

ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে-দেশে রাজনীতি করার অধিকার কেবল আওয়ামী লীগের, অন্যকোন দল বা মতের অনুসারীদের জন্য নয়। দুর্বিনীত দুঃশাসনের এক বিভিষিকাময় ভয়াল রুপ গোটা দেশকেই গ্রাস করে ফেলেছে। শ্রীপুর উপজেলা ও শ্রীপুর পৌর বিএনপি’র উদ্যোগে দুই এলাকায় কর্মীসভার উদ্দেশ্যে নির্মিত দু’টি মঞ্চ যুবলীগ-ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদের দ্বারা ভেঙে গুঁড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় আমি তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ ও ধিক্কার জানাচ্ছি।