আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীর তালিকায় জঙ্গি পরিবারের সদস্য



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কুমিল্লা
ছাদেক হোসেন ভূঁইয়া

ছাদেক হোসেন ভূঁইয়া

  • Font increase
  • Font Decrease

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল এখনো ঘোষণা হয়নি। ইতোমধ্যে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ৮ জন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা নামের তালিকার প্রস্তাব কেন্দ্রে প্রেরণ করেছে। তবে এই তালিকায় এক মনোনয়ন প্রত্যাশীকে নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। এছাড়া বিষয়টি অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন তৃণমূলের দলীয় নেতাকর্মীরাও।

দলীয় নেতাকর্মীদের অভিযোগ, মনোনয়ন প্রত্যাশীরা নামের তালিকায় থাকা ছাদেক হোসেন ভূঁইয়ার পরিবারের এক সদস্য দেশের শীর্ষ জঙ্গিদের একজন। তাদের পরিবার জঙ্গির পরিবার। একজন জঙ্গি নেতার পরিবারের সদস্যের নাম নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে কেন্দ্রে পাঠানোয় দলের নেতাকর্মীরা হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। ইতিমধ্যে বিষয়টি বিভিন্নভাবে দলের নেতাদের জানানো হয়েছে। গত কয়েকদিন ধরে এ ঘটনায় এলাকায় লিফলেটও বিতরণ করা হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও চলছে আলোচনা-সমালোচনা।

দলের নেতাকর্মীরা জানায়, ছাদেক হোসেন ভূঁইয়ার আপন ভাতিজা রাশেদুন্নবী ভূঁইয়া ওরফে টিপু সুলতান দেশের শীর্ষ জঙ্গিদের একজন। সে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিম (এবিটি) ও আনসার আল ইসলামের সামরিক শাখার প্রধান হিসেবে চিহ্নিত ভয়ংকর জঙ্গি মেজর (বহিষ্কৃত) সৈয়দ মো. জিয়াউল হক জিয়ার বিশ্বস্ত সহযোগী। পুরান ঢাকায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ও অনলাইন অ্যাকটিভিস্ট নাজিমউদ্দিন সামাদ হত্যাসহ বিভিন্ন হত্যা ও জঙ্গি কর্মকা-ের ঘটনায় সে এখন কারাগারে রয়েছে।

উপজেলা শ্রমিক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইদুল হক বলেন, ছাদেক হোসেন ভূঁইয়ার পরিবার জঙ্গি ও সন্ত্রাসীর পরিবার। তাকে নিয়ে দলের নেতাকর্মীরা দীর্ঘদিন ধরে বিব্রত। এবার মেয়র পদের তালিকায় তার নাম থাকায় নেতাকর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের গুরুত্বপূর্ণ পদের একজন নেতা নাম প্রকাশ না শর্তে বলেন, তিনি শুধু জঙ্গির পরিবারের সদস্যই নন, তার সঙ্গে জামায়াতের নেতাকর্মীদেরও ভালো যোগাযোগ রয়েছে। এ ঘটনায় নেতাকর্মীরা হতাশ হয়ে পড়েছে।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে ছাদেক হোসেন ভূঁইয়া বলেন, আমি ১৯৬৯ সালে ছাত্রলীগ করার মধ্য দিয়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতি শুরু করি। সেই সময় থেকে দলের বিভিন্ন পদে ছিলাম, এখন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি। আমার পুরো পরিবারের সবাই আওয়ামী লীগ করে। ওই জঙ্গির বাবা আমার আপন ভাই না। আমি মনোনয়ন দৌঁড়ে এগিয়ে রয়েছি। এজন্য একটি মহল আমাকে নিয় ষড়যন্ত্র করছে, এসব অপপ্রচার বলে দাবি করেন তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নাঙ্গলকোট পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো.মনিরুজ্জামান বলেন, ওই জঙ্গি ছাদেক ভূঁইয়ার আপন ভাতিজা। কয়েক বছর আগে র‌্যাব তাকে গ্রেপ্তার করেছিলো। লিফলেট বিতরণের কথা শুনেছি। তবে এসব বিষয়ে কেউ আমাকে জানায়নি এবং অভিযোগও করেনি। কেউ অভিযোগ করলে বিষয়টি দেখবো।