‘বিএনপি শেখ হাসিনার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতে চায়’



সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ড. কামাল হোসেনের মেয়ের জামাই ডেভিড বার্গম্যান আর তারেক রহমান বিদেশে বসে সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ দিয়েছেন মাস্ক পরিধান করতে হবে, স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। কিন্তু বিএনপি এই কাজগুলো করবে না। ওরা লাশের ওপর দাঁড়িয়ে শেখ হাসিনার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতে চায়।

রোববার (১৮ জুলাই) দুপুরে রাজধানীর কদমতলী থানা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে অসহায় কর্মহীন মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ করোনার শুরু থেকে মানুষের পাশে রয়েছে উল্লেখ করে এসএম কামাল বলেন, বিশ্ব নেতৃত্ব যখন হিমশিম খেয়েছে,আমেরিকা, ব্রিটেন, ব্রাজিল কানাডা, ফ্রান্স, ইতালি যখন হিমশিম খেয়েছে। তখন আমার-আপনার নেত্রী ঠান্ডা মাথায় দেশপ্রেমে উদ্বুর্ধ্ব হয়ে সততার সহিত করোনা মোকাবিলা করেছে। বিশ্বের ৩৫টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ প্রথম ভ্যাকসিন পেয়েছে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে। সেই ভ্যাকসিন যখন আসে তখন বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল বললেন, এই ভ্যাকসিন বড় লোকের ভ্যাকসিন। বিএনপির মুখপাত্র বললেন, গরিব মানুষকে মারার জন্য ভ্যাকসিন এনেছে। বিএনপির ঘরানার একজন বুদ্ধিজীবী বললেন, এটা মুরগির ভ্যাকসিন। অথচ রাতের অন্ধকারে তারা আগেই ভ্যাকসিন নিলেন। এইভাবে অপপ্রচার করে মানুষের ভিতর আতঙ্ক ছড়াচ্ছে বিএনপি।

বিএনপিসহ যারা টেলিভিশনে বড় কথা বলে, এরা কেউ মাঠে আছে? প্রশ্নও তোলেন এবং আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে অতীতে বন্যা দুর্যোগের সংকটে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর কথা তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, যিনি সবকিছু হারিয়ে দিনরাত পরিশ্রম করছেন মানুষের কল্যাণের জন্য। শেখ হাসিনা যা দিয়েছেন বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার পর যারা ক্ষমতায় ছিল জিয়া থেকে খালেদা জিয়া তারা বাংলাদেশকে কিছু দিতে পারে নাই, বাংলাদেশের মানুষকে কিছু দিতে পারে নাই। বরং বাংলাদেশকে পিছনের দিকে ঠেলে নিয়ে গেছেন।

দলীয় নেতাকর্মীদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে করোনাকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে এসএম কামাল বলেন, আমাদের নেত্রী নির্দেশ দিয়েছেন মাস্ক পরিধান করার। এই কাজগুলো আমাদের করতে হবে। কারণ ওরা (বিএনপি) করবে না। ওরা মানুষের লাশের ওপর দাঁড়িয়ে ক্ষমতায় যেতে চায়। ওরা মানুষের ওপর দাঁড়িয়ে শেখ হাসিনার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতে চায়। ওরা ভুয়া ছবি ছাপিয়ে বিদেশে পাচার করে।

আজকে ষড়যন্ত্র হচ্ছে দাবি করে তিনি বলেন, কামাল হোসেনের জামাই বার্গম্যান আর তারেক জিয়া বিদেশে বসে ষড়যন্ত্র করছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনা করোনার সময় বিশ্বের নেতৃত্ব যার প্রশংসা করেছেন। শুধু বিশ্ব নেতৃত্ব নয় ওয়ার্ড ইকোনমিক ফোরাম শেখ হাসিনার প্রশংসা করেছেন আর তারা শুধু সমালোচনা করছেন, ষড়যন্ত্র করছেন মির্জা ফখরুলরা আর কামাল হোসেনরা।

দলীয় নেতাকর্মীদের সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়ে এসএম কামাল বলেন, মানুষকে বাঁচানোর জন্য নেত্রী যা নির্দেশ দিয়েছেন, সেই কাজগুলো আমাদের করতে হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর কদমতলী থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ৫৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আকাশ কুমার ভৌমিক। উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মান্নাফী এবং সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবিরসহ মহানগর নেতারা।