ওবায়দুল কাদের ষড়যন্ত্র তত্ত্বের মহামারিতে আক্রান্ত: রিজভী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী

  • Font increase
  • Font Decrease

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ষড়যন্ত্র তত্ত্বের মহামারিতে আক্রান্ত বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।

ওবায়দুল কাদেরের কড়া সমালোচনা করে তিনি বলেন, একজন নেতা আছেন তিনি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি প্রতিদিনই বলেন ষড়যন্ত্র হচ্ছে, ষড়যন্ত্র হচ্ছে, এতদিন ছিল করোনা মহামারি এখন ষড়যন্ত্র তত্ত্বের মহামারি। এই ষড়যন্ত্র তত্ত্বের মহামারিতে আক্রান্ত হয়ে বসে আছেন ওবায়দুল কাদের সাহেব। তারা এত অন্যায় অবিচার করেছেন যে এখন এসব কথা বলে জনগণের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতে চায়। এমন কোন ঔষধ নাই এই মহামারি থেকে ওবায়দুল কাদের সাহেবকে বাঁচাবে।।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্রিগেডিয়ার হান্নান শাহের ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, হান্নান শাহ প্রমাণ করেছেন সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে থাকলে অন্যায়কারীরা পরাজিত হোন। ফখরুদ্দিন, মঈন উদ্দীন পরাজিত হয়েছেন। আজকে হান্নান শাহ আমাদের মাঝে নেই কিন্তু তিনি বিজয়ী হয়েছেন গণতন্ত্রের পক্ষে। সেই সময় যদি আন্দোলন অব্যাহত না থাকতো তাহলে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে আজও কারাগারে থাকতে হতো। সেই সময় ব্রিগেডিয়ার হান্নান শাহসহ কিছু লোক আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছেন বলে তারা মুক্তি পেয়েছেন। কিন্তু সেই আন্দোলনের ধারা অব্যাহত নাই।

এসময় তিনি আরও বলেন, মঈনউদ্দীন ফখরুদ্দিনের রেখে যাও কাজ একনিষ্ঠভাবে এখন করছেন শেখ হাসিনা।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, শেখ হাসিনা যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলেন সেখানে আন্দোলন হয়েছে। তাই তিনি বলেছেন দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে।দেশে যখন ভোট চুরি হয়, দুর্নীতি হয়, মা বোনরা ধর্ষণের শিকার হয় তখন ভাবমূর্তি নষ্ট হয় না? প্রধানমন্ত্রী আপনার কি লজ্জা নেই? আপনি দিনের ভোট রাত্রে করেন?

রিজভী বলেন, আওয়ামী লীগের নেতারা প্রায়ই বলেন বিএনপি পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসতে চায়। সব দরজা যখন বন্ধ হয়ে যায় তখন বিএনপি গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনার জন্য সামনের দরজা দিয়ে হোক আর যে দরজাই হোক কাঠের লোহার দরজা ভেদ করে সামনের দিকে এগিয়ে যাবে।

সাবেক ছাত্রদলের এই সভাপতি বলেন, এখন আওয়ামী লীগ নতুন করে ষড়যন্ত্র করছে কিছু মিডিয়ার সাহায্যে যে ইভ্যালির টাকা লন্ডনে গিয়েছে এরকম মিথ্যা প্রচার তারা চালানোর চেষ্টা করছে। এর বিরুদ্ধে জাতীয়তাবাদী শক্তিকে আবারও গর্জে উঠতে হবে।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, আবদুস সালাম, বিএনপি নেতা রিয়াজুল হান্নান, শহীদুল ইসলাম বাবুল, আব্দুল কাদির ভুইয়া জুয়েল, মজিবুর রহমান, আজিজুর রহমান পেরা, সাখাওয়াত হোসেন সবুজ, সাংবাদিক নেতা রাশেদুল হক প্রমুখ।