‘অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলতে ভয় পাননি জিয়াউদ্দিন বাবলু’



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের

  • Font increase
  • Font Decrease

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের বলেছেন, জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু ছিলেন একজন নন্দিত রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, রাজনীতিবিদ হিসেবে তিনি সবসময় গণমানুষের কল্যাণে কাজ করেছেন। নির্ভয়ে দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করেছেন, অন্যায়, অসত্য আর অনৈতিকতার বিরুদ্ধে কখনো কথা বলতে ভয় পাননি।

শুক্রবার (৮ অক্টোবর) ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স (আইডিইবি) মিলনায়তনে জাতীয় পার্টির প্রয়াত মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু‘র স্মরণ সভায় তিনি এমন মন্তব্য করেন।

জিএম কাদের বলেন, জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু সবসময় স্বপ্ন দেখতেন শক্তিশালী জাতীয় পার্টি গণমানুষের আস্থা অর্জন করে দেশ ও মানুষের কল্যাণে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব পাবে। এজন্য জাতীয় পার্টিকে শক্তিশালী করতে সবসময়ে চেষ্টা করেছেন। তাই জাতীয় পার্টিকে শক্তিশালী করতে পারলেই প্রয়াত জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু‘র প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হবে। জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু সবসময় জাতীয় পার্টির স্বকীয়তা বজায় রেখে রাজনীতি করেছেন।
শোককে শক্তিতে পরিণত করে জাতীয় পার্টিকে আরও শক্তিশালী করতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান।

জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু কখনো সত্য বলতে ভয় পায়নি। একজন আদর্শ রাজনীতিবিদ হিসেবে গণমানুষের আস্থা ও ভালোবাসার প্রতীক হয়ে থাকবেন। ছাত্রজীবন থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু সত্য ও ন্যায়ের পথে অবিচল ছিলেন।

স্মরণ সভায় কো-চেয়ারম্যান এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু সবসময় জাতীয় পার্টিকে ঐক্যবদ্ধ করে রেখেছেন। জাতীয় পার্টি একটি পরিবার হিসেবে ঐক্যবদ্ধ থাকবে। জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু ছিলেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের বিশ্বস্ত ও নির্ভীক সৈনিক।

কো-চেয়ারম্যান অ্যাড. কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, রাজনীতির মাঠে জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু ছিলেন আপোষহীন। জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত রাজনীতির মাঠে উজ্জ্বল ছিলেন। তাই সিলেটের উপ-নির্বাচনে শেষদিন পর্যন্ত সক্রিয় ছিলেন জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু।

কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা বলেছেন, জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু‘র মৃত্যুর শোক‘কে আমরা শক্তিতে পরিণত করবো। জাতীয় পার্টি ঐক্যবদ্ধ ছিলো এবং থাকবে।

কো-চেয়ারম্যান অ্যাড. মুজিবুল চুন্নু বলেন, জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু শুধু দেশে নয়, আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছেন। তার অনবদ্য নেতৃত্ব প্রকাশ পেয়েছিলো ছাত্রজীবনেই। আজীবন সংগ্রামী জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু সবসময় দেশ ও মানুষের পক্ষেই কথা বলেছেন।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য মো. আবুল কাশেম, মো. সাহিদুর রহমান টেপা, মো. মশিউর রহমান রাঙ্গা, সৈয়দ মো. আব্দুল মান্নান, মীর আবদুস সবুর আসুদ, এটিইউ তাজ রহমান, ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী, মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা, মো. শফিকুল ইসলাম সেন্টু, অ্যাড. মো. রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, লিয়াকত হোসেন খোকা, আলমগীর সিকদার লোটন প্রমুখ।