খোকাকে দেশে আসতে দেয়া হয়নি: মির্জা ফখরুল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম ঢাকা
সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন বিএনপি মহাসচিব, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন বিএনপি মহাসচিব, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করে বলেছেন, ‘সাদেক হোসেন খোকা সুস্থ অবস্থায় দেশে আসতে চেয়েছিলেন। কিন্তু এ সরকার তা হতে দেয়নি। তার পাসপোর্ট আটকে রেখে তাকে দেশে আসতে দেওয়া হয়নি। এটা দুর্ভাগ্যজনক,এই ধরনের ঘটনার যেন পুনরাবৃত্তি আর না হয়।’

বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) সকালে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন। ৭ নভেম্বরকে 'বিপ্লব ও সংহতি দিবস' হিসেবে পালন করে বিএনপি।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সাদেক হোসেন খোকা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। অনেকবার মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। সারা জীবন মানুষের সেবা করে গেছেন। তার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে। চিকিৎসার জন্য তিনি বিদেশে ছিলেন। খোকার মরদেহ দেশে এসেছে আমরা তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি।’

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় বিএনপি

জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবসের কথা উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এই দিনে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানকে সিপাহী-জনতা বিপ্লবের মধ্য দিয়ে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব অর্পণ করে। আমরা বরাবরই এই দিনটিকে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করি।’

তিনি বলেন, ‘গণতন্ত্রের সংগ্রাম করায় সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে ও অনৈতিকভাবে খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটক করে রেখেছে। আজকের এই দিনে আমরা তাকে মুক্ত করার শপথ নিয়েছে। শপথ নিয়েছি স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বকে সমুন্নত করে গণতন্ত্রকে মুক্ত করবো।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘জোর করে ক্ষমতা দখল করে রাখা এই নতজানু সরকার বাংলাদেশকে একটি অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। আমরা বিশ্বাস করি জনগণের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মধ্য দিয়ে জনগণের পক্ষের সরকার গঠন করতে আমরা সক্ষম হবো।’

আপনার মতামত লিখুন :