মুক্তিযুদ্ধ এখনো শেষ হয়নি: জিএম কাদের

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
সম্মেলনে বক্তব্য দিচ্ছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের

সম্মেলনে বক্তব্য দিচ্ছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের

  • Font increase
  • Font Decrease

স্বাধীনতা সংগ্রাম শেষ হয়েছে, কিন্তু মুক্তিযুদ্ধ এখনো শেষ হয়নি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে। কিন্তু দারিদ্র ও অর্থনৈতিক বৈষম্যের বিরুদ্ধে সংগ্রাম শেষ হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

শনিবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে জাতীয় পার্টির বনানী কার্যালয়ে জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা পার্টির প্রতিনিধি সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

জিএম কাদের বলেন, ‘যে মুক্তিযোদ্ধারা দেশের জন্য জীবন দিতে প্রস্তুত ছিলেন, দেশের মানুষের ন্যায্য অধিকার আদায়ের সংগ্রামে তাদেরই দায়িত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে। জাতীয় পার্টির নেতৃত্বে নতুন বাংলাদেশ গড়তে মুক্তিযোদ্ধাদের এগিয়ে আসতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এরশাদ শুধু মুখেই মুক্তিযোদ্ধাদের জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বলেননি, প্রতিটি কাজে প্রমাণ করেছেন। সম্মানিত করেছেন মুক্তিযোদ্ধাদের। মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য অফিস এবং ভাতার ব্যবস্থা করেছিলেন। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান দেওয়ার সেই ধারাকে আরও সমৃদ্ধ করেছেন।

জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, ‘অনেকেই এমপি-মন্ত্রী হতে পারবেন, কিন্তু যারা দেশের জন্য জীবনবাজি রেখে যুদ্ধ করেননি তারা কখনোই মুক্তিযোদ্ধা হতে পারবে না। এ জন্যই এরশাদ মুক্তিযোদ্ধাদের জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান হিসেবে অভিহিত করেছেন। মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট এবং জেলা পর্যায়ে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য অফিস নির্মাণের ব্যবস্থা করেছেন। মুক্তিযোদ্ধারা জাতির কাছে সম্মানিত ও পূজনীয় হয়ে থাকবেন। মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান কারো দয়ার দান নয়, এটা তাদের অসাধারণ অর্জন।’

জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা পার্টির আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা জাফর উল্লা মজুমদার আজাদের সভাপতিত্বে সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন- প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন, ভাইস চেয়ারম্যান মো. আরিফুর রহমান খান, জহিরুল আলম রুবেল, যুগ্ম মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, মুক্তিযোদ্ধা পার্টির নেতা অধ্যক্ষ মো. তফাজ্জল হোসেন প্রমুখ।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়, মেজর অব. রানা মো. সোহেল এমপি, উপদেষ্টা মোহাম্মদ নোমান, ড. নুরুল আজহার, ভাইস চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নুরু, মোস্তাকুর রহমান মোস্তাক, মোস্তফা আল মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক ফখরুল আহসান শাহজাদা প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :