অনলাইনে সংবাদ সম্মেলন করবে আওয়ামী লীগ

  বাংলাদেশে করোনাভাইরাস

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
আওয়ামী লীগ

আওয়ামী লীগ

  • Font increase
  • Font Decrease

চলমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে দলের সব ধরনের সংবাদ সম্মেলন অনলাইনে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ।

দলীয় যে কোনো নির্দেশনা দেশবাসীর কাছে পৌঁছে দিতে অনলাইনে লাইভ সম্প্রচার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটি।

সার্বিক নিরাপত্তা ও করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতা জোরদার করার লক্ষে এ সিদ্বান্ত নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি একান্ত প্রয়োজন ছাড়া আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এসে ভিড় বা জমায়েত না করারও আহ্বান জানানো হয়।

সোমবার (২৩ মার্চ) সন্ধায় আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে এক ঘরোয়া বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ, স্বাস্থ্য সম্পাদক রোকেয়া সুলতানা, উপ দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান, কার্যনির্বাহী সদস্য মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন ও শাহাবুদ্দিন ফরাজী।

বৈঠক শেষে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আরও উপস্থিত হন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া জানান, করোনাভাইরাস সংকটের কথা মাথায় রেখে এখন থেকে আওয়ামী লীগের সকল প্রকার সংবাদ সম্মেলন অনলাইনে লাইভ সম্প্রচার করা হবে। আজকে আমাদের এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। এখন থেকে ঘরে বসেই দলের সংবাদ সম্মেলন কাভার করতে পারবেন গণমাধ্যমের বন্ধুরা। এছাড়াও করোনা প্রতিরোধে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর অফিসে সতর্কতামূলক বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীর সমাগম ঘটাতেন। সেখানে আসেন মন্ত্রী, এমপি থেকে একেবারে সাধারণ কর্মীরা। এ কারণে দলের পক্ষ থেকে অধিক সমাগম এড়িয়ে চলতে বলা হয়েছে। আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি অফিসে নেতাকর্মীদের অহেতুক ভিড় না করতে বলা হয়েছে।

পাশাপাশি যারাই সেখানে আসছেন তাদের জন্য হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এছাড়া হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবান, টিস্যুসহ প্রয়োজনীয় সামগ্রী রাখা হয়েছে। যারা আসছেন তাদের হাত ধুয়ে অফিসে ঢুকতে বলা হচ্ছে। এছাড়াও শরীরের তাপমাত্রা পরিমাপ করে দলীয় সভাপতির কার্যালয়ে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

এসব নির্দেশনা দলের নেতাকর্মীদের মেনে চলতে দেখা গেছে। পাশাপাশি সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দায়িত্বও দুই শিফটে ভাগাভাগি করে দায়িত্ব পালন করার মৌখিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তবে প্রতিদিনের মতোই দলীয় সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয় খোলা থাকবে।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, আমাদের পার্টি অফিসে সবসময় অনেক লোক আসেন। মন্ত্রী থেকে শুরু করে দলের সিনিয়র নেতা ও সাধারণ কর্মীরাও আসেন। আমরা করোনা প্রতিরোধে ব্যবস্থা নিয়েছি। যারাই আসছেন হাত ধুয়ে ঢোকার পরামর্শ দিচ্ছি এবং হাত ধোয়ার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করা হয়েছে। এভাবে পাবলিক প্লেসগুলোতে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আমাদের এখানে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম বাড়িয়ে দিয়েছি।

আপনার মতামত লিখুন :

  বাংলাদেশে করোনাভাইরাস