করোনা পরীক্ষার ফি নির্ধারণে বিএনপির নিন্দা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাস সংক্রামণ ‘শনাক্তকরণ পরীক্ষায়’ ফি নির্ধারণ করায় নিন্দা জানিয়েছে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, পৃথিবীর কোনো দেশে আছে- এই মহামারির মধ্যে মানুষ না খেয়ে আছে, একমুঠো আহারের জন্য আজকে নিরন্ন, অসহায়, কর্মহীন মানুষ দ্বারে দ্বারে ঘুরছে। অথচ করোনা টেস্টের জন্য ২০০ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে। একটা যুদ্ধ-বিধ্বস্ত দেশ আফগানিস্তান সেখানেও করোনা টেস্টে ২‘শ টাকা নেওয়া হয় না। কত বড় গণবিরোধী হতে পারে এই সরকার।

বুধবার (১ জুলাই) নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের উদ্যোগে গুম হওয়া নেতা-কর্মীদের দুই পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতা প্রদানের সময় তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, আজকে একজন রিকশাওয়ালা, ভ্যানওয়ালা, দিনমজুর ও একজন কৃষি শ্রমিক সারাদিন কাজ করার পর হয়ত ১শ থেকে ২‘শ টাকা ইনকাম করতে পারে, তাও পারে না। সে ২‘শ টাকা দিয়ে করোনা টেস্ট করবে কী করে? আমরা করোনা টেস্টে ফি নির্ধারণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

রিজভী বলেন, দেশে যদি জনগণের সরকার থাকতো এটা (টেস্টের জন্য পরীক্ষার ফি নির্ধারণ) করতো না। সরকারি চিকিৎসা পৃথিবীর বহু দেশে এমনকি বৃটিশ আমলে, পাকিস্তান আমলেও সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা অনেকটা ফ্রি ছিলো। আর উন্নত দেশগুলোতে প্রশ্নই আসে না।

তিনি বলেন, যখন এই মহামারির সময়ে মানুষকে খাদ্য দেওয়া দরকার, মানুষের জিনিসপত্রের দাম কমানো দরকার ঠিক এই সময়ে তারা (সরকার) সুযোগ পেয়ে গেছে। করোনার সময়ে মানুষ আর মিছিল করতে পারবে না-এই সময়ে যত পারিস বাড়াও, বিদ্যুতের দাম, তেলের দাম বাড়াও, গ্যাসের দাম বাড়াও। কী পরিমাণ একটা জুলুমবাজ সরকার ক্ষমতায় আছে।

এসময় ‘গুম’ হওয়া পরিবারের খোঁজ-খবর নেওয়ার জন্য স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতৃবৃন্দের প্রশংসা করেন রিজভী।

ঢাকা উত্তরের সভাপতি ফখরুল ইসলাম রবিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েল বক্তব্য রাখেন।

আপনার মতামত লিখুন :