প্রস্তুতি ম্যাচে নাঈম-সাকিবের হাফসেঞ্চুরি



স্পোর্টস এডিটর, বার্তা২৪.কম
হাফ-সেঞ্চুরি হাঁকান নাঈম-সাকিব

হাফ-সেঞ্চুরি হাঁকান নাঈম-সাকিব

  • Font increase
  • Font Decrease

ব্যাটিং তালিকার প্রথম পাঁচজনের সবাই রান পেয়েছেন। দুজনের আছে হাফসেঞ্চুরি। প্রস্তুতি ম্যাচে ঠিক যেমন ব্যাটিং অনুশীলনের খোঁজ থাকে, তারই দেখা পেল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ একাদশ। বিকেএসপিতে কুয়াশার কারণে ম্যাচের দৈর্ঘ্য ৪৫ ওভারে কমিয়ে আনা হয়। নির্ধারিত ৪৫ ওভারে মাহমুদউল্লাহ একাদশ টসে জিতে ব্যাটিং বেছে নেয়। তুলে ৭ উইকেটে ২২৩ রান।

ওপেনার নাঈম শেখ এবং ওয়ানডাউনে ব্যাট করা সাকিব আল হাসান দুজনের ব্যাট হেসেছে হাফসেঞ্চুরির হাসিতে। নাঈম শেখ ৬৪ বলে ৫০ রান করে আউট হন। সাকিব আল দারুণ ধৈর্য্য নিয়ে ৮২ বলে ৫২ রান করেন। সাকিবের হাফসেঞ্চুরির ইনিংসে একটি বাউন্ডারি ও একটি ছক্কা ছিল। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফিরে আসার পর যে কোন ধরনের ক্রিকেটে এটি সাকিবের প্রথম হাফসেঞ্চুরি।

দলের আরেক ওপেনার ইয়াসির আলী করেন ৩৬ বলে ২৪ রান। মিডলঅর্ডারে মুশফিক রহিম ২৭ বলে ২৫ রান করে আউট হন। মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ২ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় ৩৭ বলে ৩১ রান করেন।

প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে হাফসেঞ্চুরিতে ব্যাটিং অনুশীলন সেরে নিয়েছিলেন বলেই শনিবারের দ্বিতীয় ম্যাচে মাহমুদউল্লাহ ব্যাটিংয়ে না নেমে বিশ্রামে থাকেন।

তামিম ইকবাল একাদশের বোলারদের মধ্যে সাইফ উদ্দিন ও মাহাদি হাসান দুটি করে উইকেট পান।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজের আগে বাংলাদেশ দলের এটি দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচ। বিকেএসপিতে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে মাহমুদউল্লাহ একাদশ ৫ উইকেটে হারিয়েছিল তামিম ইকবাল একাদশকে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

মাহমুদউল্লাহ একাদশ: ২২৩/৭ (৪৫ ওভারে, নাঈম শেখ ৫০, ইয়াসির আলী ২৪, সাকিব ৫২, মুশফিক ২৫, মোসাদ্দেক ৩১, সাইফ উদ্দিন ২/৬২, মাহাদি ২/৩১)।