রিয়ালের মাঠে ধরাশায়ী লিভারপুল



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
জোড়া গোল করেন ভিনিসিয়াস জুনিয়র

জোড়া গোল করেন ভিনিসিয়াস জুনিয়র

  • Font increase
  • Font Decrease

জমজমাট লড়াই উপভোগের অপেক্ষায় ছিল ফুটবল প্রেমীরা। কিন্তু লিভারপুল ভক্ত-সমর্থকদের প্রত্যাশার ছিটে-ফোঁটাও দেখাতে পারল না। তাই নিজেদের মাঠে হেসে-খেলেই জয়োৎসব করল রিয়াল মাদ্রিদ। 

চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার-ফাইনালের প্রথম লেগে অতিথি দ্য রেড শিবিরকে ৩-১ গোলে ধরাশায়ী করল স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নরা। দুরন্ত এ জয়ে কোচ জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা এক পা দিয়ে রাখল আসরের শেষ চারে। লিওনেল মেসির বার্সার বিপক্ষে আসন্ন এল ক্লাসিকোর প্রস্তুতিটা ভালোই সেরে নিল রিয়াল। 

রিয়ালের বিপক্ষে আকর্ষণীয় ম্যাচে দ্বিতীয় সেরা দল নিয়েই মাঠে নেমে ছিল লিভারপুল। নিজেদের সেরা দুই সেন্টার-ব্যাককে মিস করলেও দল ছিল আক্রমণাত্মক মেধায় ছিল পরিপূর্ণ। 

ক্ষতি যা হওয়ার প্রথমার্ধেই হয়েছে লিভারপুলের। টনি ক্রসের দূরবর্তী পাস পেয়ে ভিনিসিয়াস জুনিয়র লো ড্রাইভে জালে জড়ালে এগিয়ে যায় রিয়াল। ডিফেন্ডার ট্রেন্ট আলেকজান্ডার-আর্নল্ডের ভুলে খুব কাছ থেকে গোল ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মার্কো অ্যাসেনসিও।

বিরতির পর খেলায় ঘুরে দাঁড়ায় কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। মোহাম্মদ সালাহ একটি গোল এনে দিলে লড়াইয়ে ফেরার রসদ পায় সফরকারীরা। ২০ মিনিটের অগ্নি স্ফুলিঙ্গ ছড়ানো দাপুটে এক স্পেলই উপহার দেয় তারা। 

কিন্তু ম্যাচের ২৫ মিনিট থাকতেই লিভারপুল ভক্ত-সমর্থকদের ফের হতাশ করেন ভিনিসিয়াস। জয়ের ব্যবধানটা বাড়িয়ে দিয়ে প্রতিপক্ষের সামনে পাহাড়সম বাধাই দাঁড় করিয়ে দেন। সেই বাধাই ১৪ এপ্রিল ফাঁকা অ্যানফিল্ডের ফিরতি লেগে ডিঙাতে হবে লিভারপুলকে।

লড়াইয়ে দু'দলের ব্যবধানটা ইয়ুর্গেন ক্লপের কথাতেই স্পষ্ট, রিয়াল মাদ্রিদের জন্য কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগ জেতা লিভারপুলই অনেকটা সহজ করে দিয়েছে। তবে মোহাম্মদ সালাহর গোল ফিরতি লেগে তাদের জন্য লাইফলাইন হিসেবেই কাজ করবে।

ক্লপ বলেন, 'আপনি সেমি-ফাইনালে উঠতে চাইলে টিকিটটা আপনাকে ছিনিয়ে নিতে হবে। আজ রাতে আমরা সেটা করে দেখাতে পারিনি। বিশেষ করে প্রথমার্ধে। আমরা যথেষ্ট ভালো খেলতে পারিনি। কারণ রিয়াল মাদ্রিদ অনেক সমস্যা তৈরি করেছিল। আমরা ম্যাচটাকে তাদের জন্য সহজ করে দিয়েছি। '