বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা সিরিজে ‘টাইটেল স্পন্সর’ ওয়ালটন



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা সিরিজে ‘টাইটেল স্পন্সর’ ওয়ালটন

বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা সিরিজে ‘টাইটেল স্পন্সর’ ওয়ালটন

  • Font increase
  • Font Decrease

১২ এপ্রিল টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের দুটি টেস্ট খেলতে শ্রীলঙ্কা সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। সিরিজে স্পন্সর হয়েছে বাংলাদেশি টেক জায়ান্ট ওয়ালটন। টুর্নামেন্টের অফিশিয়াল নাম ‘ওয়ালটন বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা সিরিজ।’

উল্লেখ্য, যেখানে ক্রিকেট, সেখানেই ওয়ালটন। বিশেষ করে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল যেখানেই খেলতে যাচ্ছে সেখানেই ওয়ালটন থাকছে। গত এক দশক ধরে এর তেমন কোনো ব্যত্যয় হয়নি। ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট, সবখানেই রয়েছে ওয়ালটন গ্রুপ। শ্রীলঙ্কাতেও একাধিক সিরিজে ওয়ালটন পৃষ্ঠপোষকতা করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় এবার টেস্ট সিরিজে টাইটেল স্পন্সর হলো ওয়ালটন।

সোমবার (৫ এপ্রিল) সিরিজের স্বত্বাধিকারী আইটিডব্লিউ স্পোর্টস ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে চুক্তি করেছে ওয়ালটন। ওয়ালটনের মিডিয়া অফিসে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক উদয় হাকিম ও আইটিডব্লিউ কনসাল্টিং বাংলাদেশ প্রাইভেট লিমিটেডের প্রধান মোহাম্মদ শারিক।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটনের নির্বাহী পরিচালক ফিরোজ আলম এবং সিনিয়র অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর রবিউল ইসলাম মিলটন।

উদয় হাকিম বলেন, ‘করোনা মহামারির কারণে কঠিন সময় অতিক্রম করছে পুরো বিশ্ব। তবে আনন্দের বিষয় হলো করোনাভীতি কাটিয়ে আবার মাঠে ফিরতে শুরু করেছে ক্রিকেট। জাতীয় দল ইতিমধ্যেই নিউজিল্যান্ড সফর শেষে দেশে ফিরেছে। এরপর টেস্ট খেলতে শ্রীলঙ্কা সফরে যাচ্ছে। বর্ণাঢ্য এ আয়োজনের সঙ্গে থাকতে পেরে ওয়ালটন গ্রুপ গর্বিত। কোটি কোটি দর্শক, ক্রিকেটানুরাগী, খেলোয়াড় ও ক্রিকেটের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাই এ আয়োজনের মাধ্যমে উজ্জীবিত হবেন এটিই প্রত্যাশা। ওয়ালটন ক্রিকেটের সঙ্গে আছে, থাকবে সবসময়।’

শ্রীলঙ্কা সফরে বাংলাদেশের দুটি টেস্ট ম্যাচ হবে ক্যান্ডির অদূরে পাল্লেকেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। এই মাঠে আগে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেললেও এই প্রথম টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। প্রথম টেস্ট শুরু হবে ২১ এপ্রিল, দ্বিতীয় টেস্ট ২৯ এপ্রিল।

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল শ্রীলঙ্কায় সবশেষ টেস্ট খেলেছে ২০১৭ সালে। সেবার প্রথম টেস্টে গলে হেরে গেলেও দ্বিতীয় ম্যাচে নিজেদের শততম টেস্টে স্মরণীয় জয় পায় বাংলাদেশ।