কুশল পেরেরার নেতৃত্বে ঢাকায় আসছে শ্রীলঙ্কা



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
শ্রীলঙ্কার নতুন ওয়ানডে অধিনায়ক কুশল পেরেরা

শ্রীলঙ্কার নতুন ওয়ানডে অধিনায়ক কুশল পেরেরা

  • Font increase
  • Font Decrease

ওয়ানডে ক্রিকেটে নতুনভাবে শুরু করতে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা। তাইতো দলে এসেছে নতুন অধিনায়ক এবং সহ-অধিনায়ক। বাংলাদেশ সফরকে সামনে রেখেই দলে এই পরিবর্তন এনেছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট (এসএলসি)।

এক দিনের ক্রিকেটের অধিনায়কত্ব কেড়ে নেওয়া হয়েছে দিমুথ করুনারত্নের কাঁধ থেকে। ১৮ সদস্যের দলে নেতৃত্বে রয়েছেন কুশল পেরেরা। কয়েক মাস আগেই দল থেকে বাদ পড়েছিলেন এ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান। এবার তিনিই হলেন দলের ক্যাপ্টেন।

২৬ বছরের মিডল-অর্ডার ব্যাটসম্যান কুশল মেন্ডিসকে করা হয়েছে সহ-অধিনায়ক। দলে এই পরিবর্তন এলো ২০২৩ বিশ্বকাপকে মাথায় রেখে। আরও একটি কারণ রয়েছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে ওয়ানডে সিরিজের অভিজ্ঞতা ছিল বড়ই তিক্ত। বাজে পারফরম্যান্সে লঙ্কানরা হাতছাড়া করে তিন ম্যাচের সিরিজ।

শুধু অধিনায়কত্ব থেকে ছিটকে যাননি দিমুথ করুনারত্নে। দল থেকেও বাদ পড়েছেন। তার সঙ্গে স্কোয়াডে জায়গা পাননি অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, দিনেশ চান্দিমাল ও লাহিরু থিরিমান্নে। থিসারা পেরেরা তো আগেই অবসর নিয়ে ফেলেছেন। আগেই শোনা গিয়েছিল, কয়েকজন সিনিয়র ক্রিকেটারদের বাদ দিয়ে হতে পারে নতুন ওয়ানডে দল। সেই গুঞ্জনটাই এবার সত্যি হলো।

দলে নতুন মুখ হিসেবে জায়গা পেয়েছেন চামিকা করুনারত্নে, শিরান ফার্নান্ডো, আসিথা ফার্নান্ডো ও বিনুরা ফার্নান্ডো। অন্যদিকে ক্যারিবিয়ান সফরে ভালো করে দলে টিকে গেছেন আশেন বান্দারা, দানুশকা গুনাথিকালা ও ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা।

স্পিন আক্রমণের ধার বাড়াতে রমেশ মেন্ডিস ও লক্ষ্মণ সন্দাকানকে নিয়ে দলের সবাই এখন ঢুকে পড়েছেন সুরক্ষা বলয়ে। তবে করোনা আক্রান্ত ধনাঞ্জয়া লাকশান ও ঈষান জয়ারত্নে দুজনেই বাদ পড়েছেন। ১৬ মে ঢাকায় পা রাখার কথা তাদের।

সিরিজের তিনটি ম্যাচই হবে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু ২৩ মে। বাকি দুই ম্যাচ হবে ২৫ ও ২৮ মে।

শ্রীলঙ্কা স্কোয়াড: কুশল পেরেরা (অধিনায়ক), কুশল মেন্ডিস (সহ-অধিনায়ক), দানুশকা গুনাথিলাকা, পাথুম নিসানকা, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা, আশেন বান্দারা, নিরোশান ডিকভেলা, দাসুন শঙ্কা, ইসুর উদানা, দুষ্মন্ত চামিরা, রমেশ মেন্ডিস, লক্ষ্মণ সন্দাকান, আকিলা ধনাঞ্জয়া, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, চামিকা করুণারত্নে, আসিথা ফার্নান্ডো, বিনুরা ফার্নান্ডো ও শিরান ফার্নান্ডো।