ঢাকা টেস্টে অভিষেক হচ্ছে জয়ের!



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
মাহমুদুল হাসান জয়

মাহমুদুল হাসান জয়

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশের ওপেনাররা যেন কিছু্তেই জ্বলে উঠতে পারছেন না। কাটছে না তাদের রান খরা। ক্রিকেটের কোনো সংস্করণেই যে সাফল্য পাচ্ছেন না ওপেনাররা। এমন দুর্দশার মাঝে দলে চলছে ওপেনার সংকট। তারওপর পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে নেই সাইফ হাসান। টাইফয়েড জ্বর নিয়ে মাঠের বাইরে এখন তিনি। ইনজুরি নিয়ে তামিম ইকবাল তো আগে থেকেই মাঠের বাইরে। তাহলে ঢাকা টেস্টে সাদমান ইসলামের সঙ্গে বাংলাদেশের ইনিংস উদ্বোধন করবেন কে?

পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টের আগে আজ শুক্রবার, ৩ ডিসেম্বর আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে লাল-সবুজের জার্সিধারীদের অধিনায়ক মুমিনুল হক জানান, ওপেনিংয়ে দেখা যেতে পারে ডানহাতি-বাঁহাতি কম্বিনেশন, ‘দেখেন ওপেনিং কম্বিনেশন ডান-বাম হতে পারে, হয়তো বাম হাতি দুইজনও হতে পারে, আসলে ডান বাম হওয়ারই চান্স বেশি।’ ডানহাতি-বাঁহাতি কম্বিনেশন হলে নিশ্চিত ডাক পাচ্ছেন না নাঈম শেখ। এক্ষেত্রে বাঁহাতি সাদমান ইসলামের উদ্বোধনী পার্টনার হিসেবে অভিষেক হয়ে যেতে পারে মাহমুদুল হাসান জয়ের।

কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে, এভাবে জুনিয়র ক্রিকেটারদের পরীক্ষা ফেলে তাদের ক্যারিয়ারকেই কেন ঝুঁকিতে ফেলা হচ্ছে? উত্তরে মুমিনুলের ব্যাখ্যা, ‘আমার মনে হয় না। আপনারা যদি শেষ দেখেন এখানে কিন্তু জুনিয়র কাউকে আনা হয়নি এক্সপেরিমেন্টের জন্য। আপনি দেখেন, তামিম ভাই নাই তার জায়গা একটা ওপেনার দরকার ছিল। তো জয় আসছে, তারপর নাঈম এসেছে। সাকিব ভাই ছিল না, রাব্বি খেলল প্রথম ম্যাচ। রিয়াদ ভাই তো রিটায়ার্ড করল, তো এরকম জায়গায় নতুন কাউকে তো নিতে হবে। আমাদের তো অনেক বেশি খেলোয়াড়ও নাই। যারা নাই তাদের জায়গা খেলছে।’

চট্টগ্রাম টেস্টে সাকিব আল হাসানের অভাবটা ভালো করেই টের পেয়েছে টাইগাররা। চোট কাটিয়ে দলে জায়গা করে নিয়েছেন বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডার। তাই দুশ্চিন্তাও কমে গেছে অনেকটা। সাকিব থাকায় শেষ টেস্টে স্বাগতিক দলের কম্বিনেশন কেমন হবে? মুমিনুল বলেন, ‘সাকিব ভাই ঢুকলে তো একটু সহজ হয়, তা সবারই জানা। আর উনাকে দেখলাম, উনি ভালোই আছেন। অনুশীলন করেছেন, ভালোই লাগছে দেখে। আর টিম কম্বিনেশন হবে সাত ব্যাটসম্যান আর চার বোলারের। এ রকমই চিন্তা করেছি।’

৯৬ রানে গুটিয়ে গেল সিলেট



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের ক্রিকেটারদের উইকেট উদযাপন

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের ক্রিকেটারদের উইকেট উদযাপন

  • Font increase
  • Font Decrease

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের দুরন্ত বোলিংয়ের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি সিলেট সিক্সার্স ব্যাটসম্যানরা। সিলেট গুটিয়ে গেছে মাত্র ৯৬ রানে। পুরো ২০ ওভারও খেলতে পারেনি তারা। সিলেটের ব্যাটিং যাত্রা থেমেছে ১৯.১ ওভারেই।

সিলেটের কলিন ইনগ্রাম করেন ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ২০ রান। রবি বোপারার ব্যাট থেকে আসে ১৭। আর সোহাগ গাজী এনে দেন ১২ রান। বাকিরা কেউ দুই অংকও স্পর্শ করতে পারেননি।

কুমিল্লার হয়ে দুটি করে উইকেট শিকার করেন নাহিদুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান ও শহিদুল ইসলাম। 

;

২ কোটি রুপির ভিত্তিমূল্যে আইপিএলের নিলামে সাকিব-মুস্তাফিজ



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
মুস্তাফিজুর রহমান ও সাকিব আল হাসান

মুস্তাফিজুর রহমান ও সাকিব আল হাসান

  • Font increase
  • Font Decrease

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) নিলামে রয়েছে সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমানের নাম। তাদের দুজনেরই ভিত্তি মূল্য রাখা হয়েছে ২ কোটি রুপি।

গত মৌসুমে ৩ কোটি ২০ লাখ রুপিতে সাকিবকে কিনে নিয়েছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। কিন্তু মৌসুমটা তার মোটেই ভালো কাটেনি। সাকিব ৮ ম্যাচে পান মাত্র ৪ উইকেট। ব্যাট হাতে দলকে এনে দেন কেবল ৪৭ রান। যে কারণে বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খানের কেকেআর বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডারকে ছেড়ে দিয়েছে। 

মুস্তাফিজকে ১ কোটি রুপিতে দলে টেনে ছিল রাজস্থান রয়্যালস। বল হাতে দারুণ পারফরম্যান্স দেখালেও ফ্র্যাঞ্চাইজিটি রাখেনি বাংলাদেশের এ তারকা পেসারকে। ১৪ ম্যাচে তার শিকার ১৪ উইকেট। রানের খরচটা অবশ্য একটু বেশিই ছিল তার। 

আইপিএলের নিলাম হওয়ার কথা রয়েছে বেঙ্গালুরুতে- ১২ ও ১৩ ফেব্রুয়ারি। এবারের নিলামে বাংলাদেশি ক্রিকেটার রয়েছেন ৯ জন। সব মিলিয়ে নিলামে উঠছে ১২১৪ ক্রিকেটারের নাম।

;

টস জিতে বোলিংয়ে কুমিল্লা, ব্যাটিংয়ে সিলেট



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স-সিলেট সানরাইজার্স

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স-সিলেট সানরাইজার্স

  • Font increase
  • Font Decrease

বিপিএলে সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে টস জিতে ফিল্ডিং বেছে নিয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। তাই তো টস হেরে শুরুতে ব্যাট হাতে মাঠে নেমেছে সিলেট।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স একাদশ: ইমরুল কায়েস (অধিনায়ক), ফাফ ডু প্লেসিস, মুমিনুল হক, আরিফুল হক, মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন, শহীদুল ইসলাম, নাহিদুল ইসলাম, তানভীর ইসলাম, ক্যামেরন ডেলপোর্ট, করিম জানাতে ও মুস্তাফিজুর রহমান।

সিলেট সানরাইজার্স একাদশ: মোসাদ্দেক হোসেন (অধিনায়ক), মোহাম্মদ মিঠুন, কলিন ইনগ্রাম, এনামুল হক, নাজমুল ইসলাম, রবি বোপারা, সোহাগ গাজী, অলোক কাপালি, কেসরিক উইলিয়ামস, মুক্তার আলী ও তাসকিন আহমেদ। 

;

না ফেরার দেশে ফুটবল কিংবদন্তি সুভাষ ভৌমিক



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
কিংবদন্তি ফুটবলার সুভাষ ভৌমিক

কিংবদন্তি ফুটবলার সুভাষ ভৌমিক

  • Font increase
  • Font Decrease

চলে গেলেন সুভাষ ভৌমিক। আজ শনিবার, ২২ জানুয়ারি সকালে মারা গেছেন ভারতের এ কিংবদন্তি ফুটবলার ও কোচ। ভোরে হার্ট-অ্যাটাক হয় সুভাষ ভৌমিকের। পরে চলে যান না ফেরার দেশে। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর।

দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন সুভাষ ভৌমিক। তিন বছর আগে করান হৃদযন্ত্রে বাইপাস সার্জারি। এরপর থেকেই নানা জটিলতার কারণে বাসা থেকে হাসপাতালে ছোটাছুটি করে যাচ্ছিলেন। 

কয়েক দিন আগে বুকের সংক্রমণ নিয়ে ভর্তি হন কলকাতার এক বেসরকারি নার্সিংহোমে। এবার সেখান থেকে ঘরে ফেরা হলো না।

ভারতীয় ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকার ছিলেন সুভাষ ভৌমিক। ক্লাব মোহনবাগান ও ইস্টবেঙ্গলে রাজত্ব করে গেছেন তিনি। ১৯৭০ সালে ভারতের জার্সি গায়ে এশিয়ান গেমসে জেতেন ব্রোঞ্জ। আর বর্ণালি ফুটবল ক্যারিয়ারকে না বলে দেন তিনি ১৯৭৯ সালে। 

সুভাষ ভৌমিক মোহনবাগান, ইস্টবেঙ্গল, মোহামেডানের কোচ হিসেবেও ছিলেন সফল। ২০০৩ সালে জেতেন আশিয়ান ট্রফি।

;