গাড়ি দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন ক্রিকেটার অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের জন্য আরেকটি ধাক্কা। দেশটির কিংবদন্তি ক্রিকেটার অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস মারা গেছেন। খবর বিবিসির।

স্থানীয় সময় শনিবার (১৪ মে) রাতে অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ড রাজ্যের টাউনসভিলে গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা যান অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস।

অলরাউন্ডার অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস ১৯৯৮ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ২৬টি টেস্ট, ১৯৮টি ওয়ানডে এবং ১৪টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন।

অস্ট্রেলিয়ার বার্মিংহামে জন্মগ্রহণকারী সাইমন্ডস যুক্তরাজ্যের কেন্ট, গ্লুচেস্টারশায়ার, ল্যাঙ্কাশায়ার এবং সারের হয়ে কাউন্টি ক্রিকেট খেলেছেন।

কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপ ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ছক্কা মারার যৌথ রেকর্ডটি তার দখলে।

চলতি বছরের শুরুতে সাবেক উইকেটরক্ষক রড মার্শ এবং কিংবদন্তি স্পিনার শেন ওয়ার্নের মৃত্যুর পর সাইমন্ডসের মৃত্যু অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের জন্য আরেকটি উল্লেখযোগ্য ক্ষতি।

স্ত্রীর পোস্টে বিদায়ের ইঙ্গিত, মুশফিকের না



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
মুশফিকুর রহিম

মুশফিকুর রহিম

  • Font increase
  • Font Decrease

টি-টোয়েন্টিতে আর খেলতে চান না তামিম ইকবাল। ক্রিকেটের এই ছোট্ট সংস্করণ থেকে ছয় মাসের ছুটি নিয়েছেন দেশসেরা এ ওপেনার। তামিমের মতো টি-টোয়েন্টি থেকে বিদায় নেওয়ার সিদ্ধান্তটা মুশফিককে জানানোর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। 

স্বামীর সেঞ্চুরি আর পাঁচ হাজার রানের মাইলফলক ছোঁয়ার ছবি দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে মুশফিকের অবসরের ইঙ্গিত দেন স্ত্রী জান্নাতুল মন্ডি। সঙ্গে বিসিবি সভাপতির মন্তব্যকে খোঁচা দিয়ে মুশফিক পত্নী লেখেন, 'আমরা হাসিমুখেই বিদায় নেবো ইনশাআল্লাহ। তবে আপনাদের রিপ্লেসমেন্ট আছে তো? সেদিকেও একটু নজর দিলে বাংলাদেশের ক্রিকেটের উন্নয়ন হতো!’

সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্নটা তুলতেই মুশফিক জানালেন এখনই বিদায় নেয়ার কোনো ভাবনা নেই তার, ‘না ভাই, আমার এমন কোনো ভাবনা নেই, আমার ইচ্ছে বাংলাদেশের হয়ে যতটুকু ম্যাচ খেলার আমার কাছে সুযোগ আসবে, এবং আমাকে তারা যেভাবে চাইবে, আমি চেষ্টা করে যাব আমার ফিটনেস আর পারফরম্যান্স দিয়ে সেই সুযোগ ধরে রাখার।’

এর আগে সম্প্রতি মুশফিককে ইঙ্গিত করে পাপন বলেছিলেন, ‘রিয়াদ টেস্ট থেকে সরে এসেছে। তামিম টি-টোয়েন্টি খেলছে না। মুশফিক এখনও খেলছে, আমি নিশ্চিত ওর সিদ্ধান্তও জানা যাবে। ও নিশ্চয়ই চিন্তাভাবনা করছে। আমরা চাই না আমাদের খেলোয়াড়রা মন খারাপ করুক। তারা হাসিমুখে খেলুক। নিজেরা সিদ্ধান্ত নিক। যত তাড়াতাড়ি তারা নিজেদের সিদ্ধান্ত নিতে পারবে ততো ভালো। যদি সিদ্ধান্ত না নেয় তো একটা সময় আমাদেরকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে।’

;

ড্রেসিং রুমে কেক কেটে মুশফিকের মাইলফলক উদযাপন



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ড্রেসিং রুমে কেক কেটে মুশফিকের মাইলফলক উদযাপন

ড্রেসিং রুমে কেক কেটে মুশফিকের মাইলফলক উদযাপন

  • Font increase
  • Font Decrease

শ্রীলংকার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে ১০৫ রান করেন মুশফিকুর রহিম। এই ইনিংস খেলার পথে দেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে টেস্টে ৫ হাজার রান পূর্ণ করেন তিনি। আর বিশ্বের ৯৯তম খেলোয়াড় হিসেবে এই মাইলফলক স্পর্শ করেন মুশি।

মুশফিকের এমন অর্জনকে আরও বেশি স্মরনীয় করতে দিনের খেলা শেষে বাংলাদেশের ড্রেসিং রুমে কেক কাটা হয়। দলের খেলোয়াড়দের নিয়ে কেক কাটেন মুশফিক। তখন দলের সকলেই করতালি দেন। এরপর কেক কেটে দলের ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয়কে খাইয়ে দেন মুশি। 

২০০৫ সালে লর্ডসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে  টেস্ট অভিষেক হয় মুশফিকের। ৮১তম ম্যাচে এসে ৫ হাজার রান পূর্ণ করলেন তিনি।

;

বাংলাদেশ থামল ৪৬৫ রানে, লিড ৬৮



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
লিটন দাস

লিটন দাস

  • Font increase
  • Font Decrease

লিটন দাস দুরন্ত ব্যাটিং চালিয়ে যাচ্ছিলেন। ব্যাটিং ঝলকে দেখিয়ে যাচ্ছিলেন সেঞ্চুরির আভাস। তবে মধ্যাহ্নভোজ শেষে মাঠে নামতেই ছন্দ হারিয়ে ফেলেন তারকা এ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান। কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েও শতক মিস করেছেন।

তবে ধৈর্য্যের পরীক্ষায় উতরে ঠিকই সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন মুশফিকুর রহিম। দুজনের দুরন্ত ব্যাটিংয়ে সবগুলো উইকেট হারিয়ে প্রথম ইনিংসে ৪৬৫ রানের পাহাড় গড়েছে বাংলাদেশ। এতেই টাইগাররা লিড নিয়েছে ৬৮ রানের।

কাসুন রাজিথার বলে উইকেটের পিছনে নিরোশান ডিকভেলার গ্লাভসবন্দি হয়ে ফেরেন লিটন। তারপরই ফের মাঠে নামেন তামিম ইকবাল। তারকা এ ওপেনার তৃতীয় দিন শেষে অপরাজিতই ছিলেন। রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে চলে গিয়েছিলেন ড্রেসিংরুমে।

চতুর্থ দিন মধ্যাহ্নভোজ বিরতির মাঠে নামলেও মাত্র তিন বল মোকাবেলা করেন তামিম। ব্যক্তিগত ১৩৩ রানের আর কোনো রানই যোগ করতে পারেননি। ২১৮ রানে ১৫ বাউন্ডারিতে ইনিংসটি সাজিয়ে রাজিথার বলে বোল্ড হন দেশসেরা এ ওপেনার। বঞ্চিত হন ডাবল সেঞ্চুরি থেকে ।

তৃতীয় দিনের শেষ ভাগটায় ব্যাটিংয়ে দাপট দেখিয়েছেন দুজনে। চতুর্থ দিনেও দ্যুতি ছড়ালেন তারা। ব্যাট হাতে মুশফিকুর রহিম সেঞ্চুরি পেলেও লিটন দাস অসাধারণ দৃঢ়তা দেখিয়েও পুড়েছেন সেঞ্চুরি মিসের আক্ষেপে। 

জাদুকরী তিন অঙ্ক ছুঁলেও খুব বেশি দূর আগাতে পারেননি মুশফিকুর রহিম। ২৮২ বলে ৪ বাউন্ডারিতে ১০৫ রানের দুর্বার এক ক্রিকেটীয় ইনিংস খেলেনি লাসিথ এম্বুলদেনিয়ার ঘূর্ণি জাদুতে হন পরাস্ত। টেস্টে এটি তার অষ্টম শতক। ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ডাবল সেঞ্চুরির পর এটাই তার প্রথম শতক। টেস্ট ক্রিকেটে প্রথম বাংলাদেশি ব্যাটার হিসেবে পাঁচ হাজার রানের ক্লাবে জায়গা করে নিয়েছেন মিস্টার ডিপেন্ডেবল।

আর লিটন ১৮৯ বলে ১০ বাউন্ডারিতে ৮৮ রান নিয়ে ফিরে গেছেন সাজঘরে। করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট নিয়ে মাঠে নামা সাকিব আল হাসান বল হাতে আলো ছড়ালে ব্যাট হাতে বড় ইনিংস উপহার দিতে পারলেন না। ৪৪ বলে ৩ বাউন্ডারিতে ২৬ রান সংগ্রহ করে উইকেট থেকে বিদায় নিয়েছেন বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডার।

শেষ দিকে অবশ্য ব্যাটিং ঝলক দেখিয়েছেন তাইজুল ইসলাম। নিজের ইনিংসটা টেনে বড় করতে পারেননি। ৪৫ বলে ৩ বাউন্ডারিতে দলীয় স্কোরে যোগ করেন ২০ রান।

শ্রীলঙ্কার হয়ে কাসুন রাজিথা চার উইকেট শিকার করেছেন। ২৪.১ ওভারে তিনি খরচ করেছেন ৬০ রান। ৩ উইকেট পেয়েছেন আসিথা ফার্নান্দো। ২৬ ওভারে তার খরচ হয়েছে ৭২ রান। একটি করে উইকেট নেন লাসিথ এম্বুলদেনিয়া ও ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা। দুজনে দেন যথাক্রমে ১০৪ ও ৪৮ রান। 

তার আগে ৩ উইকেটে ৩১৮ রান নিয়ে চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করেছে বাংলাদেশ। তৃতীয় দিন শেষে মুশফিক ৫৩ ও লিটন ৫৪ রানে অপরাজিত ছিলেন। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে এক রানের জন্য ডাবল সেঞ্চুরি মিস করেছেন লঙ্কান তারকা অলরাউন্ডার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস। তার ব্যাটিং নৈপুণ্যে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কা সবকটি উইকেট হারিয়ে সংগ্রহ করেছে ৩৯৭ রান।

চতুর্থ দিনের শেষ দিকে ব্যাটিংয়ে নেমে সুবিধা করতে পারেনি শ্রীলঙ্কা। ৩৯ রান তুলতেই ২ উইকেট হারিয়ে ফেলেছে সফরকারীরা। ফিরে গেছেন ওপেনার ওশাদা ফার্নান্দো (১৯) ও নাইট ওয়াচম্যান লাসিথ এমবুলদেনিয়া (২)। ১৮ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে আছেন ক্যাপ্টেন দিমুথ করুণারত্নে। এতে জয়ের স্বপ্ন বুনছে টাইগাররা। 

;

মুশফিকের সেঞ্চুরি, লিটনের মিস, বাংলাদেশ ৪৩২/৬



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
মুশফিকুর রহিম

মুশফিকুর রহিম

  • Font increase
  • Font Decrease

তৃতীয় দিনের শেষ ভাগটায় ব্যাটিংয়ে দাপট দেখিয়েছেন দুজনে। চতুর্থ দিনেও দ্যুতি ছড়ালেন তারা। ব্যাট হাতে মুশফিকুর রহিম সেঞ্চুরি পেলেও লিটন দাস অসাধারণ দৃঢ়তা দেখিয়েও পুড়েছেন সেঞ্চুরি মিসের আক্ষেপে। 

মুশফিক ২৭০ বলে ৪ বাউন্ডারিতে ১০১ রান সংগ্রহ করে ব্যাটিং করে যাচ্ছেন। টেস্টে এটি তার অষ্টম শতক। ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ডাবল সেঞ্চুরির পর এটাই তার প্রথম শতক। টেস্ট ক্রিকেটে প্রথম বাংলাদেশি ব্যাটার  হিসেবে পাঁচ হাজার রানের ক্লাবে জায়গা করে নিয়েছেন মিস্টার ডিপেন্ডেবল।

আর লিটন ১৮৯ বলে ১০ বাউন্ডারিতে ৮৮ রান নিয়ে ফিরে গেছেন সাজঘরে। করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট নিয়ে মাঠে নামা সাকিব আল হাসান বল হাতে আলো ছড়ালে ব্যাট হাতে বড় ইনিংস উপহার দিতে পারলেন না। ৪৪ বলে ৩ বাউন্ডারিতে ২৬ রান সংগ্রহ করে উইকেট থেকে বিদায় নিয়েছেন বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডার।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৬ উইকেট হারিয়ে ৪৩২ রানের পুঁজি গড়েছে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার চেয়ে ৩৫ রানে এগিয়ে রয়েছে টাইগাররা। শ্রীলঙ্কার হয়ে কাসুন রাজিথা চার উইকেট শিকার করেছেন। ২০ ওভারে তিনি খরচ করেছেন ৪৮ রান। দুই উইকেট পেয়েছেন আসিথা ফার্নান্দো। ২৫ ওভারে তার খরচ হয়েছে ৭২ রান। 

তার আগে ৩ উইকেটে ৩১৮ রান নিয়ে চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করেছে বাংলাদেশ। তৃতীয় দিন শেষে মুশফিক ৫৩ ও লিটন ৫৪ রানে অপরাজিত ছিলেন।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে এক রানের জন্য ডাবল সেঞ্চুরি মিস করেছেন লঙ্কান তারকা অলরাউন্ডার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস। তার ব্যাটিং নৈপুণ্যে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কা সবকটি উইকেট হারিয়ে সংগ্রহ করেছে ৩৯৭ রান।

;